BREAKING NEWS

২৩  শ্রাবণ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৯ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

এবার অভিভাবকদের জন্যও পোশাক বিধি জারি করল স্কুল! নয়া নির্দেশে তুঙ্গে বিতর্ক

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: August 6, 2022 3:46 pm|    Updated: August 6, 2022 9:28 pm

Schools of Ahmedabad issuing guidelines for parents clothing | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পড়ুয়াকে স্কুলের নির্দিষ্ট পোশাক পরতে তো হবেই, সেইসঙ্গে বাবা-মা কোন পোশাক পরে আসবেন স্কুলে, এবার তাও বলে দিল আহমেদাবাদের (Ahmedabad) বেশ কয়েকটি স্কুল। ‘শালীন’ পোশাক পরা নিয়ে রীতিমতো নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। ফোন ও হোয়াটসঅ্যাপে (WhatsApp) অভিভাবকদের বার্তা পাঠানো হয়েছে স্কুলের তরফে। সেখানে বলা হয়েছে, সন্তানকে স্কুলে পৌঁছে দেওয়ার সময় ‘অশালীন’ পোশাক পরে আসছেন বহু অভিভাবক। ভবিষ্যতে তা আর চলবে না। এদিকে স্কুলগুলির বিরুদ্ধে নীতিপুলিশির অভিযোগ তুলে গোটা ঘটনায় বিতর্ক শুরু হয়েছে।

বহু বেসরকারি স্কুল শুরু হয় খুব ভোরে। ঘুম থেকে উঠেই সন্তানকে তৈরি করে স্কুলে হাজির হন বাবা-মায়েরা। সেই সময় অভিভাবকদের অনেকেই ‘অশালীন’ পোশাক পরে স্কুলে হাজির হচ্ছেন বলে অভিযোগ স্কুলগুলির। বলা হচ্ছে, অনেকেই পাজামা, শর্টস, হাতকাটা জামা, স্যান্ডো গেঞ্জির মতো রাত পোশাক পরে ছেলে-মেয়েকে নিয়ে স্কুলে হাজির হচ্ছেন। স্কুল কর্তৃপক্ষের বক্তব্য, এই ধরনের ঘরের পোশাক বিদ্যালয় চত্বরে কখনই শোভনীয় নয়। এতে ছাত্রছাত্রীদের কাছে ভুল বার্তা যাচ্ছে। সেই কারণেই অভিভাবকদের ‘শালীন’ পোশাক পরার নির্দেশ দিয়েছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যে ফোনে ও হোয়াটসঅ্যাপে এই বিষয়ে অভিভাবকদের বার্তা পাঠিয়েছে স্কুলগুলি।

[আরও পড়ুন: বাসে উঠলে দিতে হবে না ভাড়া, রাখি উপলক্ষে উত্তরপ্রদেশের মহিলাদের ‘উপহার’ যোগীর]

এদিকে আহমেদাবাদের একাধিক স্কুলের এমন নির্দেশিকায় বিতর্ক দানা বেঁধেছে। অভিভাবকরা কেমন পোশাক পরবেন, সেই বিষয়ে স্কুল নাক গলাতে পারে না বলে মত একাংশের। গোটা ঘটনাকে নীতিপুলিশি হিসেবে দেখছেন তাঁরা। তাছাড়া ভোরে ক্লাস শুরু হয় শিশুদের, ফলে তাড়াহুড়োয় বাবা-মা পোশাক বদলের সময় পান না বলে মত কারও কারও। যদিও স্কুলগুলিও নিজেদের সিদ্ধান্তে অনড়। অভিভাবকদের ‘শালীন’ পোশাক পরেই স্কুলে আসতে হবে, জানিয়ে দিয়েছে তারা।

[আরও পড়ুন: তৃণমূলের নির্দেশ অমান্য, উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ভোট দিলেন শিশির-দিব্যেন্দু]

এই বিষয়ে এক অভিভাবকের বক্তব্য, “অনেক সময়েই পোশাক বদলের সময় থাকে না। তাড়াহুড়োয় বাচ্চাদের স্কুলে পৌঁছে দিতে হয়। এখন দেখছি আমার ইনবক্সে ‘শালীন’ পোশাক সম্পর্কে একটি লিখিত বার্তা পাঠিয়েছে স্কুল। অবাক হয়েছি এমন নির্দেশিকা দেখে।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে