১ আষাঢ়  ১৪২৬  রবিবার ১৬ জুন ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ

১ আষাঢ়  ১৪২৬  রবিবার ১৬ জুন ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জেব্রা প্রিন্ট, লেপার্ড প্রিন্ট ও স্নেক প্রিন্টের পোশাক আজকালকার মহিলাদের ফ্যাশনে বেশ জনপ্রিয়৷ কিন্তু এই ধরনের প্রিন্টেড পোশাক পরে মহাবিপদে পড়লেন অস্ট্রেলিয়ার এক মহিলা৷ স্নেক প্রিন্টের শৌখিন পোশাক পরে, অবশেষে পা ভেঙে হাসপাতালে ভরতি হতে হল তাঁকে৷

[জেলিফিশের ‘সুড়সুড়ি’তে অসুস্থ বহু, অস্ট্রেলিয়ায় বন্ধ সৈকত ভ্রমণ]

আসলে বরাবরই ট্রেন্ডিং ফ্যাশনের পোশাক পরার শখ ছিল অস্ট্রেলিয়ার ওই মহিলার। বিভিন্ন দোকান থেকে পছন্দসই পোশাক কিনে, সেগুলিকে বাড়িতে এনে ট্রায়াল দিতেন তিনি। নতুন পোশাক পরে বিভিন্ন ধরনের ছবি তুলতেন এবং সেই ছবি পোস্ট করতেন সোশ্যাল মিডিয়ায়৷ কোন ধরনের পোশাকে তাঁকে বেশি সুন্দর লাগছে তা দেখে নিতেন ওই মহিলা৷ কিন্তু এই ‘ফ্যাশন সেন্স’ই চরম বিপদের দিকে ঠেলে দিল তাঁকে। মহিলার সঙ্গে যা ঘটল, সোশ্যাল মিডিয়ায় তা জানতে পেরে মিশ্র প্রতিক্রিয়া নেটিজেনদের৷ কী ঘটেছে ওই মহিলার সঙ্গে?

[৪৫টি কুমিরের সঙ্গে ঘরসংসার, দিব্য আছেন বুরুন্ডির এই বাসিন্দা]

জানা গিয়েছে, কয়েকদিন আগে স্নেক প্রিন্টের একটি পোশাক দোকান থেকে কিনে আনেন অস্ট্রেলিয়ার ওই মহিলা৷ পোশাকটি পরে ছবি তোলেন তিনি৷ সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন৷ পোশাকটি তাঁর এতটাই পছন্দ হয়েছিল যে, সেটা পরে রাতে ঘুমিয়েও পড়েন তিনি৷ এরপরই ঘটে বিপত্তি৷ রাতে কাজ থেকে বাড়ি ফেরেন ওই মহিলার স্বামী এবং ঘরে ঢুকেই চমকে যান৷ আলো-আঁধারি ঘরে ঢুকে তিনি ভাবেন খাটের উপর সাপ রয়েছে৷ আতঙ্কে, বেসবলের ব্যাট দিয়ে সজোরে আঘাত করেন তিনি। যন্ত্রণায় চিৎকার করে ওঠেন মহিলা৷ ভুল ভাঙে তাঁর স্বামীর৷ তিনি বুঝতে পারেন ওটা সাপ নয়, আসলে তাঁর স্ত্রীর পা৷ কিন্তু ততক্ষণে অনেক দেরি হয়ে গিয়েছে৷ বেসবল ব্যাটের আঘাতে ভেঙে গিয়েছে ওই মহিলার পা৷ এরপর তাঁকে হাসপাতালে ভরতি করা হয়৷ কিন্তু মুহূর্তের মধ্যে ছবি-সহ ঘটনার খবর ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়৷ নেটিজেনদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা যায়৷ কেউ বিষয়টাকে উপভোগ করেন৷ কেউ বা সমবেদনা জানান মহিলাকে৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং