Advertisement
Advertisement
Personal Finance

দুরন্ত ম্যানুফ্যাকচারিং সেক্টর, লগ্নির প্রস্তুতি শুরু করুন এখনই

বাজারে একাধিক ম‌্যানুফ‌্যাকচারিং নির্ভর ফান্ড ইতিমধ্যে এসে গিয়েছে।

Things to know about before investment

প্রতীকী ছবি

Published by: Suchinta Pal Chowdhury
  • Posted:June 14, 2024 9:18 pm
  • Updated:June 14, 2024 9:18 pm

পণ‌্য নির্মাণ ব‌্যবসা সম্প্রসারণ হতে পারে। ট্রেড পণ্ডিতদের পূর্বাভাস, মাহিন্দ্রা ম‌্যানুলাইফ ম‌্যানুফ‌্যাকচারিং ফান্ডে লগ্নিতেও দেখা যাবে তারই ছাপ। লং টার্ম ক‌্যাপিটাল গ্রোথ এনে দেওয়াই উদ্দেশ‌্য ফান্ড কর্তৃপক্ষের। জানাচ্ছে টিম সঞ্চয়

কেবল ম‌্যানুফ‌্যাকচারিং সেক্টরগুলো থেকে স্টক বেছে নেবেন ফান্ড ম‌্যানেজার, সব মিলিয়ে ডাইভারসিফায়েড একটি পোর্টফোলিও থাকবে এই ফান্ডটির ক্ষেত্রে। মিউচুয়াল ফান্ডটির কর্তৃপক্ষ বলছেন, মোট দশটি বড় সেক্টর এবং তিরিশটির বেশি ইন্ডাস্ট্রির কথা।

Advertisement

Advertisement

এছাড়াও যে ব‌্যবসাগুলো নিয়ে আলাদাভাবে জানানো হচ্ছে সেগুলোর তালিকায় আছে ডিফেন্স ইকুইপমেন্ট, টেক্সটাইলস, ইলেকট্রনিক্স এবং মিনারেলস। মাহিন্দ্রা ম‌্যানুলাইফের পরিচালকরা বলছেন যে সাধারণভাবে অন্তত ৮০% অ‌্যাসেটই ইক্যুইটিতে লগ্নি করবেন তাঁরা। সর্বোচ্চ ১০০% পর্যন্ত তা উঠতে পারে। ফান্ডটির ক্ষেত্রে যে সূচক (বেঞ্চমার্ক) চিহ্নিত করা হয়েছে সেটি S&P BSE India Manufacturing Total Return Index। বিনিয়োগকারীদের জন‌্য কয়েকটি বিশেষ তথ‌্য :
১. নূন্যতম বিনিয়োগ : ১,০০০ টাকা
২. সিপের জন‌্য অন্তত ৬টি কিস্তি দিতে হবে, নূন্যতম ৫০০ টাকার প্রতিটি যদি সাপ্তাহিক এবং মাসিক হয়।
৩. একজিট লোড : ০.৫% যদি তিন মাসের মধ্যে রিডিম করা হয়। তিন মাস পরে ইউনিট বিক্রি করলে লোড ধার্য করা হবে না।

কেন এই জাতীয় ফান্ডে লগ্নি করা উচিত বলে মাহিন্দ্রা ম‌্যানুলাইফ মনে করেন?
১. ভারতীয় জিডিপির সম্ভাব‌্য অগ্রগতির পরিপ্রেক্ষিতে, ম‌্যানুফ‌্যাকচারিং সেক্টরের ভূমিকা অনস্বীকার্য।
২. সরকারি পলিসির অনেক অংশই বিভিন্ন নির্মাণ এবং পণ‌্য প্রস্তুত ব‌্যবসার পক্ষে সহায়ক। PLI বা প্রোডাকশন লিঙ্কড ইনসেনটিভ এখানে উল্লেখ‌্য।
৩. এক্সপোর্ট বাড়ানোর জন‌্য ম‌্যানুফ‌্যাকচারিং ব‌্যবসার বিশেষ ভূমিকা থাকবে আগামিদিনে। ইমপোর্ট কমিয়ে
স্বদেশি দ্রব‌্য ব‌্যবহার বাড়ানোর উপর জোর দেওয়া হবে সরকারি নীতি রূপায়ণ করার জন‌্য।
৪. ইনফ্রাস্ট্রাকচার-সম্বন্ধীয় ব‌্যবসা-বাণিজ‌্য ইতিমধ্যেই বেড়েছে এবং ভবিষ‌্যতে এই ধারাটি বজায় থাকবে বলে অনেক বিশ্বাস করেন।

এই ধরনের ফান্ডের উদ্দেশ‌্য লংটার্ম ক‌্যাপিটাল গ্রোথ এনে দেওয়া। তা ডাইভারসিফায়েড হোল্ডিং থাকলে পাওয়া অসম্ভব নয়, বিশেষ করে যেখানে ম‌্যানুফ‌্যাকচারিং স্টক নিয়ে বাজারে এত উৎসাহ আছে। বিভিন্ন সেক্টরের ভাল শেয়ার একত্রে রাখবেন ফান্ড ম‌্যানেজার। তবে বাজারে একাধিক ম‌্যানুফ‌্যাকচারিং নির্ভর ফান্ড ইতিমধ্যে এসে গিয়েছে। অতি সম্প্রতি এসেছে HDFC-র নিজস্ব ফান্ড। এছাড়াও Axis-এর এই গোত্রের ফান্ড আরও আগে এসেছে। সেটির রিটার্ন মোটের উপর ভালো। আগামিদিনে এই জাতীয় ফান্ডের উপর নজর রাখবেন ইনভেস্টররা।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ