BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

টালা ব্রিজে বন্ধ ভারী যান চলাচল, কার্নিভ্যালে যাচ্ছে না উত্তর কলকাতার দুই বড় পুজো

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: October 11, 2019 2:22 pm|    Updated: October 11, 2019 2:58 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অবস্থা অত্যন্ত বিপজ্জনক টালা ব্রিজের। পুজোর সময়ে সরকারি নির্দেশে সেতুর উপর বন্ধ ছিল বাস, ট্রাক ও ভারী যান চলাচল। পুজো শেষ হলেও সেতুর উপর ধীরগতিতেই চলছে যানবাহন। তাও ছোট গাড়ি ও মোটরবাইক। এই অবস্থায় রেড রোডের কার্নিভ্যালে অংশ নিচ্ছে না উত্তরের দুই নামী পুজো কমিটি টালা বারোয়ারি ও টালা পার্ক প্রত্যয়। উদ্যোক্তারা রাজ্য সরকারের তথ্য ও সংস্কৃতি দপ্তরকে চিঠি মারফত নিজেদের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দিয়েছে দুই পুজো কমিটি। উদ্যোক্তাদের সাফ বক্তব্য, বিকল্প পথে বেলগাছিয়া ব্রিজের উপর দিয়ে ভারী ট্যাবলো নিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়। তাই এবার শোভাযাত্রায় তাঁরা অংশ নিতে পারছেন না।

এবছর উত্তর কলকাতার পুজোয় শোভা বর্ধন করেছে টালা বারোয়ারি ও টালা পার্ক প্রত্যয়। টালা পার্ক প্রত্যয় পুজো কমিটি প্রচুর পুরস্কারে ভূষিত হয়েছে। কম যায়নি টালা বারোয়ারিও। দুটি প্যান্ডেলের কাজই মনে ধরেছে পুজোপ্রেমী মানুষের। কিন্তু এবার দর্শনার্থী সমাগমে কিছুটা বাদ সেধেছে টালা ব্রিজে বাস চলাচলে নিষেধাজ্ঞা। বাস বন্ধ থাকায় এবং ধীরগতিতে গাড়ি চলাচলের জন্য অনেককেই বিকল্প পথে দুই পুজো প্যান্ডেলে পৌঁছতে বেশ বেগ পেতে হয়েছে। যানজটে জেরবার হয়েছেন অনেকে। এদিকে সেতুর অবস্থা এতটাই বিপজ্জনক যে ভেঙে ফেলার পরামর্শ দিয়েছেন মুম্বইয়ের বিশেষজ্ঞ ভি কে রায়না। পঞ্চমীর দিন টালা ব্রিজ পরিদর্শন করেন তিনি। ওইদিনই পূর্ত দপ্তরকে টালার বর্তমান পরিস্থিতি সংক্রান্ত প্রাথমিক মৌখিক রিপোর্ট দিয়েছিলেন মুম্বইয়ের বিশেষজ্ঞ। ব্রিজ ভেঙে ফেলার সুপারিশও দিয়েছেন তিনি। ইতিমধ্যেই এ বিষয়ে একপ্রস্থ আলোচনাও হয়েছে। শনিবার নবান্নে বৈঠকের পরই নির্ধারিত হবে টালা ব্রিজের ভবিষ্যৎ।

[আরও পড়ুন: প্রস্তুত রেড রোড, পুজোর থিমের লড়াই আজ মেগা কার্নিভ্যালে]

টালা পার্ক প্রত্যয় পুজো কমিটির এক সদস্য বলেন, ‘টালা ব্রিজ বন্ধ থাকায় ভারী ট্যাবলো নিয়ে বেলগাছিয়া ব্রিজ দিয়ে যাওয়া সম্ভব নয় আমাদের পক্ষে। অন্য বিকল্প পথ বেলঘরিয়া এক্সপ্রেস হয়ে যেতে গেলেও অনেকটা সময় অতিক্রান্ত হবে। তাই এবার আমরা শোভাযাত্রায় অংশ নিতে পারছি না। আমাদের সিদ্ধান্তের কথা সংশ্লিষ্ট দপ্তরকে জানিয়ে দিয়েছি। আজ, শুক্রবার আমরা প্রতিমা বিসর্জনের আয়োজন করছি।’ একই বক্তব্য টালা বারোয়ারির উদ্যোক্তাদেরও। সেতুতে ভারী যান চলাচল বন্ধ থাকায় ঘুরপথে কার্নিভ্যালে পৌঁছনো সম্ভবপর নয় বলেই তারাও শোভাযাত্রায় অংশ নিচ্ছে না বলে জানিয়ে দিয়েছে। দুই পুজো কমিটি কার্নিভ্যালে না থাকা দর্শকদের জন্য বড় মিস, বলছে ওয়াকিবহাল মহল।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement