BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

করোনার সংক্রমণ সর্বোচ্চ স্তরে পৌঁছতে পারে এপ্রিলের শেষে! আশঙ্কা বিশেষজ্ঞের

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: April 15, 2020 10:07 am|    Updated: April 15, 2020 10:07 am

An Images

ছবি প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ সর্বোচ্চ স্তরে পৌঁছতে পারে এপ্রিলের শেষে। দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে এই আশঙ্কা প্রকাশ করলেন পাবলিক হেলথ ফাউন্ডেশন অফ ইন্ডিয়ার প্রেসিডেন্ট কে শ্রীনাথ রেড্ডি। তিনি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা তথা WHO’র কোভিড সংক্রান্ত স্টিয়ারিং কমিটির সদস্যও। মঙ্গলবার একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রেড্ডি জানান, ভারতে সংক্রমণ সূচকের ঊর্ধ্বগামিতা শ্লথ হলেও এপ্রিলের শেষ নাগাদ তা শীর্ষ বিন্দুতে পৌঁছতে পারে।

রেড্ডি বলেন, “ভাইরাসের ধর্ম মিউটেট করা। ভারতে করোনা ভাইরাসের যে প্রকৃতি তাতে সামান্য কিছু এদিক-ওদিক হতেই পারে। ভাইরাসটি ভারতে অপেক্ষাকৃত দুর্বল হয়ে পড়েছে, গবেষণায় এমন কোনও তথ্য পাওয়া গিয়েছে বলে আমি অন্তত শুনিনি। গবেষণার ফল জানার জন্য আমাদের আরও অপেক্ষা করতে হবে।” যদিও রেড্ডি আশা প্রকাশ করেছেন, অন্যান্য ভাইরাসের মতোই এই করোনা ভাইরাসও প্রবল গরমে কাহিল হয়ে পড়বে। তবে গবেষণার ফল না জানা পর্যন্ত এ কথা বলা ঠিক হবে না বলেই তিনি মনে করেন।
অন্যান্য দেশের মতো ভারতে করোনা স্টেজ থ্রিতে পৌঁছেছে কিনা সেটাও এখনও বলার সময় আসেনি বলে জানান রেড্ডি।

[আরও পড়ুন: সাক্ষাতের পরই করোনা পজিটিভ কংগ্রেস বিধায়ক, সংক্রমণের আশঙ্কা গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রীর]

এই কাজের জন্য কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক তথ্য সংগ্রহের কাজ করছে বলে তিনি জানান। লকডাউনের দিন বৃদ্ধির পক্ষে সওয়াল করেই রেড্ডি বলেন, “চেন পুরো ভাঙা সম্ভব না হলেও অন্তত ভাইরাস ট্রান্সমিশনের গতি কমিয়ে দিতে সক্ষম হয়েছে লকডাউন। আসলে লকডাউন স্বাস্থ্য ও নানা সামাজিক পরিকাঠামো প্রস্তুত করার জন্য সরকারের হাতে মূল্যবান সময় তুলে দিচ্ছে। যা মহামারির বিরুদ্ধে লড়তে গেলে একান্তই প্রয়োজন। এবার পরিস্থিতি অনুযায়ী কৌশল বদলে বদলে জয়ের পথে এগিয়ে যেতে হবে আমাদের।

[আরও পড়ুন: যত্রতত্র থুতু ঠেকাতে রাজ্যগুলিকে গুটখা-খৈনি-পানমশলা নিষিদ্ধ করতে নির্দেশ কেন্দ্রের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement