৭ ভাদ্র  ১৪২৬  রবিবার ২৫ আগস্ট ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দিনের পর দিন বিদ্যুৎ চুরির অপরাধে, এক ব্যক্তিকে নজিরবিহীন শাস্তি দিল দিল্লি হাই কোর্ট৷ এক মাসের মধ্যে ওই অপরাধীকে ৫০টি গাছ লাগানোর নির্দেশ দিলেন বিচারপতি৷ জানালেন, নয়াদিল্লির বন্দেমাতরম মার্গে অবস্থিত বুদ্ধ জয়ন্তী পার্কের রিজার্ভ ফরেস্টে এই ৫০টি গাছ লাগাতে হবে ওই অভিযুক্তকে৷ গোটা বিষয়টা পর্যবেক্ষণ করতে হবে বন বিভাগের ডেপুটি কমিশনারকে৷

[ আরও পড়ুন: ভরসা উপগ্রহের মাধ্যাকর্ষণ, ইসরোর চন্দ্রযানকে নিজেই কাছে টেনে নিয়ে যাচ্ছে চাঁদ ]

রায় ঘোষণার সময় দিল্লি হাই কোর্টের বিচারপতি সঞ্জীব সচদেব বলেন, ‘‘খুব চারা গাছ পুঁতলে হবে না৷ গাছগুলিকে অবশ্যই সাড়ে তিন বছরের হতে হবে৷ উচ্চতা কমপক্ষে ছ’ফুটের হতে হবে৷ তবে মাটি ও আবহাওয়ার প্রকৃতি অনুযায়ী গাছ নির্বাচন করবে বনবিভাগ৷’’ এখানেই শেষ নয় বনবিভাগের ডেপুটি কমিশনারকে পুরো কার্য পরিচালনার ভারও দিয়েছেন বিচারপতি৷ বলা হয়েছে, গাছ লাগানো থেকে শুরু করে তারপরের অবস্থা, সমস্ত ছবি ও ভিডিও সংগ্রহে রাখতে হবে৷ এবং নির্দিষ্ট সময়ে তা পেশ করতে হবে আদালতের কাছে৷

[ আরও পড়ুন: রক্তাভ প্রবাল প্রাচীরের কঙ্কালসার চেহারা, উষ্ণায়নের প্রভাবে ধ্বংসের মুখে সামুদ্রিক জীবন ]

জানা গিয়েছে, দোকানের সামনে থাকা লাইট পোস্ট থেকে বিদ্যুৎ চুরির অভিযোগ উঠেছে ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে৷ তার নামে দিল্লি হাই কোর্টে মামলা দায়ের করে বিদ্যুৎ দপ্তর৷ আদালত সূত্রে খবর, দীর্ঘদিন বাদী-বিবাদী পক্ষের মধ্যে লড়াই চলে৷ দোষ মানতে অস্বীকার করেন অভিযুক্ত ব্যক্তি৷ বলেন, দোকানটি একজনকে ভাড়ায় দিয়েছিলেন তিনি৷ এবং সেই ব্যক্তিই সামনের লাইট পোস্ট থেকে বিদ্যুৎ চুরি করতেন৷ এই বিষয়ে কিছুই জানতেন না৷ অবশেষে বিচারপতি জানান, এই মামলার সুষ্ঠু নিষ্পত্তি প্রয়োজন৷ এবং সেই কারণেই ওই ভাড়াটে দোকানদারকে গ্রেপ্তারির ও আর্থিক জরিমানার নির্দেশ দেন তিনি৷ পাশাপাশি, দোকানের আসল মালিককে সেজন্যই অভিযুক্তকে ৫০টি গাছ লাগানোর এবং বিদ্যুৎ দপ্তরকে ১৮,২৬৭ টাকা জরিমানা দেওয়ার নির্দেশ দেন বিচারপতি৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং