৫ আশ্বিন  ১৪২৬  সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মিশন চন্দ্রযান ২-র পর এবার লক্ষ্য মিশন গগনযান। মহাকাশে প্রথমবার মানব স্পেস ফ্লাইট পাঠানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে ইসরো। ধীরে ধীরে মিশন গগনযানের প্রস্তুতিও শুরু হয়ে গিয়েছে। ইতিমধ্যে প্রাথমিক বাছাই পর্বে ১২জন পাইলট বা বিমানচালককে বাছাই করেছে ইসরো।

[আরও পড়ুন: ল্যান্ডার বিক্রম নিখোঁজ হওয়ার পর কী জানিয়েছিলেন ইসরো প্রধান?]

২০১৮ সালের ১৫ আগস্ট লালকেল্লায় বক্তৃতা দেওয়ার সময় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিই জানিয়েছিলেন গগনযানের কথা। তিনি জানিয়েছিলেন, সব ঠিক থাকলে আগামী ২০২২ সালে মহাকাশে প্রথম মানব স্পেস ফ্লাইট পাঠাবে ভারত। চূড়ান্ত অভিযানে মহাকাশে যাবেন চারজন মহাকাশচারী। সেই মতো গগনযান মিশনের প্রস্তুতিতে কোমর বেঁধে নেমেছেন মহাকাশ বিজ্ঞানীরা। ঘোষণার বছরখানেকের মধ্যেই প্রথম দফায় বাছাই পর্ব সেরে ফেললেন ইসরোর বিজ্ঞানীরা। বেঙ্গালুরুর ভারতীয় বায়ুসেনার ইনস্টিটিউট অফ এরোস্পেস মেডিসিনে চলে বাছাই পর্ব। মূলত শারীরিক এবং মানসিক মূল্যায়নই করা হয়।

[আরও পড়ুন: ‘আপনারা সফল’, ইসরোর হতাশ বিজ্ঞানীদের নিয়ে গর্বিত গোটা দেশ]

বায়ুসেনা সূত্রে খবর, পাইলটদের এক্সারসাইজ টেস্ট, রেডিওলজিক্যাল, ক্লিনিক্যাল পরীক্ষা, ল্যাব পরীক্ষা এবং মানসিক স্থিতির পরীক্ষা নেওয়া হয়। তার মাধ্যমেই প্রথম পর্বে ১২জন পুরুষ পাইলটকে বাছাই করা হয়েছে। তবে তাঁদের নাম এখনও জানানো হয়নি। যদিও প্রথমে মহিলাদেরও গগনযান মিশনে পাঠানোর কথাই ভাবা হয়েছিল। তবে এখনও পর্যন্ত ভারতের কোনও মহিলা টেস্ট পাইলট নেই। তাই এই ১২জনের তালিকায় কোনও মহিলা পাইলট স্থান পাননি।

[আরও পড়ুন: ‘চলার পথে বাধা আসেই, তবে চাঁদকে ছোঁয়ার ইচ্ছা আরও বাড়ল’, বিজ্ঞানীদের পাশে মোদি]

প্রথম দফায় উত্তীর্ণ ১২ জন পাইলটকে আরও কঠিন পরীক্ষা দিতে হবে। দ্বিতীয় দফার বাছাই পর্ব চলবে ৭৫ থেকে ৯০ দিন। এই দফায় ৪ জন উত্তীর্ণকে বাছাই করে নেওয়া হবে। তাঁদের প্রশিক্ষণের জন্য পাঠানো হবে রাশিয়ায়। সেখানে প্রশিক্ষণের পরই তাঁদের পাঠানো হবে মহাকাশে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং