BREAKING NEWS

৯ বৈশাখ  ১৪২৮  শুক্রবার ২৩ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

নিউটাউনের বাজারকে প্লাস্টিকমুক্ত করার উদ্যোগ, খোঁজ চলছে বিকল্পের

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: April 2, 2021 4:25 pm|    Updated: April 2, 2021 4:25 pm

An Images

কলহার মুখোপাধ্যায়: নিউটাউনের (Newtown) আরও একটি বাজারকে প্লাস্টিকমুক্ত করার উদ্যোগ নিল এনকেডিএ। সিবি ব্লকের কমিউনিটি মার্কেটকে এই কাজের জন্য এবার বেছে নিল হিডকো। এর আগে নিউটাউনের সিই মার্কেটে এই কাজ করা হয়েছে। হিডকোর চেয়ারম্যান দেবাশিস সেন জানিয়েছেন, “চলতি মাসের মধ্যে প্লাস্টিকমুক্ত করার কাজ শুরুর পরিকল্পনা রয়েছে। দু’বছরের জন্য এই প্রজেক্ট নেওয়া হয়েছে।” নিউটাউন কর্তৃপক্ষ সূত্রে খবর, একটি বেসরকারি সংস্থাকে এই কাজের সঙ্গে যুক্ত করা হয়েছে। 

কলকাতা হেরিটেজ সূত্রে জানা গিয়েছে, চলতি বছরের জানুয়ারিতে সিবি মার্কেটের দোকান মালিকদের মধ্যে একটি সমীক্ষা চালানো হয়। সংস্থার সভাপতি সৌরভ মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, “দোকানগুলির অবস্থা নিয়ে সমীক্ষা চালানো হয়। প্রতিটি দোকান মালিকদের সঙ্গে মৌখিক আলোচনার ভিত্তিতে মাসিক পরিসংখ্যান গণনা করা হয়েছে। সিবি কমিউনিটি মার্কেট সংলগ্ন সিএ, সিবি, সিসি, সিডি ব্লক এবং সংকল্প ৩ ও ৪ আবাসনের বাসিন্দাদের এই প্রকল্পের আওতায় আনা হয়েছে। সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, এই অঞ্চলের ২,৩১৩ পরিবার বসবাস করছেন। এই প্রকল্পের সঙ্গে প্লাস্টিকের ক্যারিব্যাগের ব্যবহার বন্ধের বিষয়টি সম্পর্কে সচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে প্রতিটি পরিবারের পৌঁছনোর কাজ চলছে। তবে সবার আগে অবশ্য বাসিন্দাদের জন্য কম খরচের পরিবেশবান্ধব বিকল্পের সন্ধান দেওয়ার প্রয়োজন। সেই বিকল্প খোঁজার কাজও চলছে। এর পাশাপাশি কেএসসিএইচ-এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, প্লাস্টিকের ব্যবহার রোধ ও বিকল্প সরবরাহের জন্য এবং বাজারের তদারকি পরিচালনার জন্য কেএসসিএইচ সিবি মার্কেটে দুটি শিফটে ৬ জন স্বেচ্ছাসেবীকে নিয়ন্ত্রণ করবে।

[আরও পড়ুন: ভোটের মরশুমে আগ্নেয়াস্ত্র-সহ গ্রেপ্তার বজবজের বিজেপি নেতা, উদ্ধার প্রচুর তাজা বোমা]

এনকেডিএ এবং হিডকো-র তরফেও একটি কমিটি গঠন করার কাজ চলছে। যারা নিয়মিত পর্যবেক্ষণ করবেন এই প্রকল্পটিকে। কেএসসিএইচ-এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, যেহেতু প্লাস্টিকের সর্বব্যাপী ব্যবহার পরিবেশের উপর খুব খারাপ প্রভাব ফেলে চলেছে বহুদিন ধরে, তাই বিকল্প সন্ধান করা জরুরি ছিল। হিডকো উদ্ভিদজাত প্লাস্টিকের ব্যাগ সম্পর্কে খোঁজখবর চালিয়েছিল। কেএসসিএইচ কাগজের ঠোঙা, মাটির পাত্র এবং কাপড়ের ব্যাগ যোগানের পরিকল্পনা নেয়। এনকেডি-এর একটি দল প্লাস্টিকের বিকল্প অনুসন্ধান করতে হলদিয়ায় সেন্ট্রাল ইনস্টিটিউট অফ পেট্রোকেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজির সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। দু’পক্ষের বৈঠকও হয়েছে বিকল্প ব্যবস্থা সম্পর্কে। কেএসসিএইচ জানিয়েছে, প্লাস্টিকের বিকল্পগুলি অবশ্য প্লাস্টিকের তুলনায় সস্তা নয়। কিন্তু এই প্রকল্পের আওতাধীন দোকান মালিকরা ওই বিকল্পগুলি যাতে প্লাস্টিকের দামেই কিনতে পারেন এমন ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement