১১ ফাল্গুন  ১৪২৬  সোমবার ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১১ ফাল্গুন  ১৪২৬  সোমবার ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তুষারধসের ফলে মৃত্যুর খবর প্রায়ই প্রকাশ্যে আসে। আজ, মঙ্গলবারই কাশ্মীরের ভয়াবহ তুষারধস প্রাণ কেড়ে নিয়েছে প্রায় ১০ জন ভারতীয় জওয়ানের। কিছুদিন আগে সিয়াচেনেও হয়েছিল তুষারধস। তখনও প্রাণ গিয়েছিল জওয়ানদের। পর্বতারোহীরা তো প্রকৃতির এই ভয়াবহতাকে মাঝেমধ্যেই প্রত্যক্ষ করেন। পর্যটকরাও কখনওসখনও তুষারধসের কবলে পড়ে যান। কিন্তু কেমন হয় এই তুষারধস? সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে তারই একটি ফুটেজ।

যদিও তুষারধসের সম্পূর্ণ রূপ ধরা পড়েনি ভিডিওয়। কিন্তু কীভাবে বরফের চাঁই এগিয়ে আসে, তার এক ঝলক দেখা গিয়েছে এখানে। হিমাচল প্রদেশের পুহের কাছে টিঙ্কু নাল্লায় এই ভিডিওটি শুট করা হয়। জানুয়ারির গোড়ার দিকে ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়ে নেটদুনিয়ায়। আইআরএস অফিসার নাভেদ ট্রুম্বো সোমবার এটি পোস্ট করেছেন। সঙ্গে লিখেছেন, ‘গতিময় হিমবাহ কখনও দেখেছেন?’

[ আরও পড়ুন: উদ্দাম যৌনতাই বাঁচিয়ে দিল প্রজাতিকে, ‘হিরো’ দিয়েগো এবার অবসরের পথে ]

glacier-1

ভিডিওয় দেখা গিয়েছে হিমবাহটি পাকা রাস্তা বরাবর এগিয়ে আসছে। কয়েকজন উৎসাহী পর্যটক সেই দৃশ্যের ভিডিও তুলতে ব্যস্ত। আর যিনি ভিডিওটি শুট করছেন, তিনি বারবার সবাইকে সাবধান করছেন। ভিডিওতেও বারবার শোনা যাচ্ছে পর্যটকদের ‘গো ব্যাক’ বলছেন তিনি। এই গতিশীল হিমবাহ যে কতটা ভয়ানক, তা ভিডিওতেই স্পষ্ট। ওই হিমবাহের আঘাতে একটি টেম্পো নষ্ট হয় পর্যটকদের চোখের সামনে। ভিডিওতে তা দেখাও গিয়েছে।

ট্রুম্বোর এই ভিডিওটি প্রায় ৭৬ হাজার বার দেখা হয়েছে। প্রচুর কমেন্ট ও শেয়ার হয়েছে ভিডিওটির। তবে অনেকে ট্রুম্বোর সঙ্গে অনেকে একমত নন। কেউ লিখেছেন, এটি হিমবাহ নয়। কারণ হিমবাহ খুব ধীরে এগোয়। কিন্তু এক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে খুব দ্রুত এগোচ্ছে বরফের চাঁই। এটি কোনওভাবেই হিমবাহ হতে পারে না। কেউ আবার বলেছেন, এটি তুষারধসের একটি অংশ।

[ আরও পড়ুন: উষ্ণায়নের আশীর্বাদ! হিমালয় অঞ্চলে নতুন গজানো লতাগুল্ম দেখে তাজ্জব বিজ্ঞানীরা ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং