BREAKING NEWS

১২  আষাঢ়  ১৪২৯  সোমবার ২৭ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

আসন্ন বিশ্বকাপে মুখোমুখি ভারত-পাক, টক্কর ১৬ জুন

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: April 25, 2018 9:19 am|    Updated: October 27, 2018 5:53 pm

2019 ICC World Cup: India to face Pakistan on June 16

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী বছর ক্রিকেট বিশ্বকাপে ১৬ জুন ফের মুখোমুখি হবে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত-পাকিস্তান। তবে গত বিশ্বকাপের মতো এবার পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বিরাট কোহলিদের কাপ অভিযান শুরু হচ্ছে না। শুরু হচ্ছে, দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচ দিয়ে।

২০১৯ সালের জুন মাসে ইংল্যান্ডে বসছে বিশ্বকাপের মহাযজ্ঞ। যা খবর, ৫ জুন দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে কাপ অভিযান শুরু করবে টিম ইন্ডিয়া। আর টুর্নামেন্টের সবচেয়ে উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচ ১৬ জুন। যার কেন্দ্র ওল্ড ট্র্যাফোর্ড। গত কয়েকবারের মতো গ্রুপ ফরম্যাটে এবার বিশ্বকাপ হচ্ছে না। বিশ্বকাপ এ বার হবে রাউন্ড রবিন পদ্ধতিতে। যেখানে প্রত্যেকে খেলবে প্রত্যেকের বিরুদ্ধে।

[অসুস্থ কিংবদন্তি পাক হকি তারকা, ভারতের শরণাপন্ন]

মঙ্গলবার শহরে আইসিসির বৈঠকে বিভিন্ন দেশের সিইওরা হাজির ছিলেন। সেখানেই বিশ্বকাপের খসড়া তৈরি হয়ে হয়েছে। যা অনুমোদনের অপেক্ষায়। শোনা গেল, আগামী মে মাসের প্রথম বা দ্বিতীয় সপ্তাহে টুর্নামেন্টের পূর্ণ সূচি ঘোষণা করে দেবে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ামক সংস্থা। তবে তাৎপর্যপূর্ণ হল, বিশ্বকাপে ভারতের সূচি ঠিক হয়েছে সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত প্রশাসক প্যানেলের (সিওএ) প্রধান বিনোদ রাইয়ের সুপারিশ মেনে। ভারতকে পরপর সিরিজ খেলতে হচ্ছে, প্রস্তুতির যথেষ্ট সময়ই পাচ্ছে না দল। এই দুই অভিযোগ নিয়ে গত দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের আগে সিওএ প্রধানের সঙ্গে দেখা করেছিলেন অধিনায়ক বিরাট এবং কোচ রবি শাস্ত্রী। যার পর সিওএ ঘোষণা করে যে, দু’টো সিরিজের মধ্যে ক্রিকেটারদের জন্য পনেরো দিনের সময় ব্যবধান রাখতেই হবে। শোনা গেল, প্রথমে ঠিক ছিল আসন্ন ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে ভারত অভিযান শুরু করবে ২ জুন। কিন্তু হিসেব করে দেখা যায় যে, আগামী বছর আইপিএল শেষ হবে ১৯ মে। ২ জুন শুরু করলে সিওএ নির্দেশিত পনেরো দিনের সময় ব্যবধান থাকছে না। শেষ পর্যন্ত তাই ঠিক হয়, ভারত বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ খেলবে ৫ জুন।

[জন্মদিনে মাস্টার ব্লাস্টারকে ‘অপমান’ অজি ক্রিকেট বোর্ডের, ক্ষুব্ধ নেটিজেনরা]

আরও কয়েকটা ব্যাপার এ দিনের বৈঠকে মোটামুটি ঠিক হয়েছে। যেমন, আগামী পাঁচ বছরের ক্রিকেট সূচিতে (২০১৯ থেকে ২০২৩) ৯২ দিন কম খেলতে হবে ভারতকে। শেষ সূচিতে গত পাঁচ বছরে ভারতকে ক্রিকেট খেলতে হয়েছে ৪০১ দিন। এ বার তা কমে দাঁড়াচ্ছে ৩০৯ দিন। তবে একটা ব্যাপার নিয়ে জট থেকেই গেল। ভারতের দিন-রাতের টেস্ট ম্যাচ খেলা নিয়ে। বোর্ড সচিব বলছিলেন দিন-রাতের টেস্ট খেলার কথা অবশ্যই ভাবা হবে। কিন্তু গতকাল সিইও বৈঠক শেষে আবার বলা হল, আইসিসির বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে দিন-রাতের টেস্টের কোনও ব্যাপার নেই। তাহলে ভারত খামোখা খেলতে যাবে কেন? বলে দেওয়া হল, বৈঠকে এটাই বলা হয়েছে যে দিন-রাতের টেস্ট খেলতে রাজি নয় ভারত। দেশে, বাইরে কোথাওই নয়। অর্থাৎ? অর্থাৎ, বোর্ড সেই দু’ভাগ। একদিকে সিওএ ও সিইও রাহুল জোহরি। অন্য দিকে ভারতীয় বোর্ড কর্তারা। যে দ্বন্দ্ব আইসিসি বৈঠকেও মিটল না।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে