BREAKING NEWS

১ কার্তিক  ১৪২৮  মঙ্গলবার ১৯ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মাঠে অভব্য আচরণ, আইসিসি-র কড়া শাস্তির মুখে শাকিব ও নুরুল

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: March 17, 2018 6:42 pm|    Updated: August 16, 2019 2:44 pm

Bangladesh cricketers Shakib Al Hasan, Nurul Hasan punished for breaching ICC Code of Conduct

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: খেলার মাঠে অভব্য আচরণের জন্য আইসিসি-র শাস্তির মুখে পড়লেন বাংলাদেশ অধিনায়ক শাকিব আল-হাসান। শাস্তি পেলেন দলের আরেক ক্রিকেটার নুরুল হাসানও।

চলতি নিদাহাস ট্রফিতে ঘরের দল শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে ফাইনালে পৌঁছে গিয়েছে বাংলাদেশ। যে দেশে খেলা, ফাইনালে নেই সেই লঙ্কাবাহিনীই। আর শুক্রবার বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কার সেই খেলাকে ঘিরেই উত্তপ্ত হয় পরিবেশ। যার জেরে শাস্তি পেলেন দুই বাংলাদেশি ক্রিকেটার। শনিবার বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ামক সংস্থার তরফে জানিয়ে দেওয়া হল, মাঠে অখেলোয়াড়োচিত আচরণের জন্য শাকিব ও নুরুলের ২৫ শতাংশ ম্যাচ ফি কেটে নেওয়া হল। সেই সঙ্গে আইসিসি-র কোড অফ কনডাক্টের লেভেল ওয়ান নিয়ম ভাঙায় এক ডেমিরিট পয়েন্ট যোগ হল তাঁদের।

[শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে মাঠেই নাগিন ডান্স বাংলাদেশের, ভাঙল ড্রেসিংরুমের কাচ]

ঘটনার সূত্রপাত শেষ ওভারে আম্পায়ারের নো বল না দেওয়ার সিদ্ধান্তের পরই। ম্যাচ জিততে বাংলাদেশের শেষ ওভারে ১২ রান বাকি। শ্রীলঙ্কান পেসার উদানা পরপর দুটো বাউন্সার দিলেন। কোনও নো বল দিলেন না আম্পায়ার। দ্বিতীয় বলে আবার মুস্তাফিজুর রহমান রান আউট। এরপরই প্রবল উত্তেজিত হয়ে পড়েন বাংলাদেশ অধিনায়ক শাকিব। মাঠেও আম্পায়ারের সঙ্গে চড়া গলাতেই কথা বলেন মাহমুদুল্লাহ। রিজার্ভ বেঞ্চে ক্রিকেটার নুরুল হাসান আবার শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক থিসারা পেরেরার দিকে আঙুল তুলে কথা বলতে থাকেন। মিনিট খানেক পর উত্তেজনা আরও বাড়ে, যখন শাকিব মাঠের বাইরে থেকে ক্রিকেটারদের বেরিয়ে আসার ইঙ্গিত দেন! শেষমেশ অবশ্য খেলা চালিয়ে যান মাহমুদুল্লাহ। নিজের ভুল আগেই বুঝেছিলেন অধিনায়ক। ম্যাচ শেষে শাকিব বলেছিলেন, “দিনের শেষে আমরা সবাই বন্ধু। মাঠে আবেগপ্রবণ হয়ে পড়ি। যাই হোক পরেরবার আমাকে আরও সতর্ক হতে হবে।”

খেলার মাঠের পরিবেশ নষ্ট করে আইসিসি-র কোড অফ কনডাক্টের ২.১.১ ধারায় নিয়মভঙ্গ করেছেন শাকিব। অন্যদিকে, ২.১.২ ধারায় ক্রিকেটকে কালিমালিপ্ত করে মাঠের নিয়ম লঙ্ঘন করেছেন নরুল। আইসিসি-র ম্যাচ রেফারি প্যানেলের ক্রিস ব্রড বলেন, “প্রেমদাসার এমন ঘটনা অত্যন্ত হতাশাজনক। কোনও ক্রিকেট মাঠেই এমন দৃশ্য প্রত্যাশা করা যায় না। নিঃসন্দেহে দুই দলের জন্যই এই ম্যাচ ছিল অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ফলে ম্যাচ ঘিরে উত্তেজনা ছিলই। কিন্তু শাকিব ও নুরুলের আচরণ কোনওভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। আম্পায়াররা পরিস্থিতি না সামলালে বিষয়টি আরও খারাপ দিকে যেতে পারত।”

[ফের বিতর্কে বোলিং অ্যাকশন, সুনীল নারিনের আইপিএল ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement