৫ মাঘ  ১৪২৫  রবিবার ২০ জানুয়ারি ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফিরে দেখা ২০১৮ ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ১৯৮৩ বিশ্বকাপের থেকেও বড় প্রাপ্তি অস্ট্রেলিয়া সিরিজ জয়। এশিয়ার প্রথম টিম হিসেবে এই বিরল রেকর্ড বিরাট ব্রিগেডের। ৭১ বছর পর অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টেস্ট সিরিজ জয় ভারতের। দেশের প্রথম বিশ্বকাপের থেকেও এই জয়কে এগিয়ে রাখলেন টিম ইন্ডিয়ার কোচ রবি শাস্ত্রী। তা নিয়েই শুরু হয়েছে বিতর্ক।

[ডনের দেশে ইতিহাস, অস্ট্রেলিয়ায় ঐতিহাসিক টেস্ট সিরিজ জয় ভারতের]

রবিবার ছিল কপিল দেবের জন্মদিন। ১৯৮৩ সালে দেশকে প্রথম বিশ্বকাপ এনে দিয়েছেন কপিল। তারপর ২৮ বছরের অপেক্ষা। ২০১১ সালে ওয়াংখেড়েতে মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বে বিশ্বকাপ জেতে ভারত। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর ১৯৪৭ সালে প্রথম অস্ট্রেলিয়া সফরে গিয়েছিল ভারত। এরপর ১১টি সফর করেছে টিম ইন্ডিয়া। ১৯৮০, ১৯৮৫-৮৬ ও ২০০৩-০৪, এই তিন সফরে ড্র করে ফিরেছিল ভারত। বাকি সব সিরিজেই জয়ী অস্ট্রেলিয়া। ২০১৮-১৯ সফরে বিরাটের নেতৃত্বে ৭১ বছরের অপেক্ষার অবসান ঘটল। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে প্রথম টেস্ট সিরিজ জিতেছে ভারত। এদিন সাংবাদিক বৈঠকে এসে রবি শাস্ত্রী বলেন, “এই জয় অনেকটা তৃপ্তির। ১৯৮৩ বিশ্বকাপ, ১৯৮৫ বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপেরও আগে এই সাফল্যকে রাখব। কারণ টেস্ট ফরম্যাটে এসেছে এই সাফল্য।”

[এই জয় সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি, অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে তৃপ্ত বিরাট]

পরিসংখ্যানের দিক থেকে এটি ছিল অস্ট্রেলিয়ার কাছে শতাব্দীর সবচেয়ে লজ্জাজনক সিরিজ। এই সিরিজে কোনও টেস্টেই সেঞ্চুরি করতে পারেননি অস্ট্রেলিয়ার কোনও ব্যাটসম্যান। গত ১০০ বছরে কোনও দলের বিরুদ্ধে এত খারাপ পারফরম্যান্স করেনি অজিরা। এর আগে চারটি টিম অস্ট্রেলিয়া সফরে সিরিজ জিতে ফিরেছে। ভারত পাঁচ নম্বর। ১৮৮২-৮৩ সালের অস্ট্রেলিয়া সফরে প্রথম জয় পায় ইংল্যান্ড। এরপর ৯৭ বছর অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে কোনও টিম জেতেনি। ১৯৭৯-৮০ সালে অস্ট্রেলিয়া সফরে গিয়ে সিরিজ জেতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ১৯৮৫-৮৬ সালে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে সিরিজ জেতে নিউজিল্যান্ড। ২০০৮-০৯ সালে অস্ট্রেলিয়ার ঘরের মাঠে প্রথম সিরিজ জেতে দক্ষিণ আফ্রিকা। উপমহাদেশের কোনও টিম অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে সেভাবে পারফরম্যান্স করতে পারেনি কখনও। ভারতকে এই সাফল্যের জন্য ৭১ বছর অপেক্ষা করতে হয়েছে। ২০১৮-১৯ সালে এসে বিরাটের নেতৃত্বে এই সাফল্য পেল দেশ।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং