১৪ মাঘ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২৮ জানুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মানুষ মাত্রই ভুল হয়। আর ক্রিকেট মাঠে আম্পায়ারদের ভুলের ফিরিস্তি লম্বা। আম্পায়ারদের সামান্য ভুল যে কোনও ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দিতে পারে। তাই এবার থেকে অন ফিল্ড আম্পায়ারদের উপর থেকে চাপ কমাতে উদ্যোগ নিচ্ছে আইসিসি। ফ্রন্ট ফুটের ‘নো বল’ নির্ধারণের দায়িত্ব মাঠের আম্পায়ারদের কাছ থেকে সরিয়ে টিভি আম্পায়ার অর্থাৎ থার্ড আম্পায়ারকে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট নিয়ামক সংস্থা।


‘নো বল’ চিরদিনই ম্যাচের ভাগ্য নির্ধারণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। বিশেষ করে ‘ফ্রি হিট’-এর নিয়ম আসার পর। তাছাড়া সীমিত ওভারের ক্রিকেটে যে কোনও ম্যাচের ভাগ্য নির্ধারণ করতে পারে নো বলই। তাই কোনও ঝুঁকি নিতে চাইছে না আইসিসি। এবার প্রযুক্তির মাধ্যমে নির্ধারিত হবে ‘নো বল’। বোলারদের পা পপিং ক্রিজের বাইরে পড়ছে কিনা, পপিং ক্রিজের ভিতরে অন্তত পায়ের কিছুটা অংশ আছে কিনা, এসব আর দেখতে হবে না অন ফিল্ড আম্পায়ারকে। এসব প্রযুক্তির মাধ্যমে নির্ধারণ করবেন থার্ড আম্পায়ার। যদি, কোনওটা ‘নো বল’ হয়, তাহলে সেটা থার্ড আম্পায়ার ‘অন ফিল্ড আম্পায়ার’কে জানিয়ে দেবেন। এরপর তিনি ‘নো বল’-এর ইশারা করবেন এবং ফ্রি হিট দেবেন। ওই বলটিতে যদি কোনও ব্যাটসম্যান আউট হয়ে থাকেন তাহলেও তিনি ছাড় পেয়ে যাবেন। বৃহস্পতিবার আইসিসির তরফে এই নিয়মের কথা ঘোষণা করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: বুমরাহ ‘বাচ্চা ছেলে’, হাস্যকর মন্তব্য করে নেটিজেনদের রোষের মুখে আব্দুল রাজ্জাক]


ভারত বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে পরীক্ষামূলকভাবে নয়া নিয়ম চালু করা হচ্ছে। যদি, এই পরীক্ষা সফল হয়, তাহলে আগামীদিনে সবরকমের ক্রিকেটেই এই নিয়ম চালু করতে চাইছে আইসিসি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট নিয়ামক সংস্থার ধারণা, এর ফলে যেমন একদিকে ‘নো বল’ নির্ধারণের প্রক্রিয়া স্বচ্ছ হবে, অন্যদিকে তেমনি চাপ কমবে মাঠের আম্পায়ারের উপর চাপও অনেকটা কমবে। অন্যান্য সব সিদ্ধান্ত আরও নির্ভুলভাবে নিতে পারবেন তিনি।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং