Advertisement
Advertisement

Harmanpreet Kaur: ‘যা করেছি, বেশ করেছি! মোটেও অনুতপ্ত নই’, নিজের কৃতকর্ম নিয়ে মুখ খুললেন হরমন

হরমনের মনে বিন্দুমাত্র অনুশোচনা নেই।

Harmanpreet Kaur defends herself for her outburst during ODI against Bangladesh। Sangbad Pratidin

নিজের কৃতকর্মে অনুতপ্ত নন হরমনপ্রীত কৌর। ফাইল ছবি

Published by: Sabyasachi Bagchi
  • Posted:August 21, 2023 9:52 am
  • Updated:August 21, 2023 9:52 am

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাংলাদেশ মহিলা দলের (Bangladesh Womens Cricket Team) বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে অশালীন মন্তব্য করেছিলেন। এমন কাজের জন্য হরমনপ্রীত কৌরকে (Harmanpreet Kaur) দুই ম্যাচের নির্বাসিত করেছে আইসিসি (ICC)। এমনকি বিসিসিআই (BCCI) পর্যন্ত তাঁকে কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছে। নির্বাসিত হওয়ার জন্য আসন্ন এশিয়ান গেমসে (Asian Games 2023) প্রথম দুটি ম্যাচে ভারতের মহিলা দলের (Indian Womens Cricket Team) অধিনায়কের সার্ভিস পাওয়া যাবে না। তবুও হরমনের মনে বিন্দুমাত্র অনুশোচনা নেই। সেটা এবার স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন এই মারকুটে ব্যাটার।

মহিলাদের হান্ড্রেড টুর্নামেন্ট খেলার ফাঁকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে হরমনপ্রীত বলেছেন, ‘সেই ইস্যু নিয়ে আমার মনের মধ্যে কোনও অনুশোচনা নেই। কারণ ক্রিকেটার হিসাবে দিনের শেষে সকলেই দেখতে চায় পরিচ্ছন্নতা, স্বচ্ছতা। খেলোয়াড় হিসাবে নিজেদের অভিব্যক্তি প্রকাশ করার স্বাধীনতা রয়েছে। নিজেরা কী অনুভব করছি, সেটা প্রকাশ করাও খুব জরুরি। আমার মনে হয় না, আমি ভুল কিছু বলেছি। তাছাড়া আমি তো কোনও ক্রিকেটার কিংবা বিশেষ ব্যক্তিকে টার্গেট করে কিছু বলিনি। সেদিন মাঠে কী ঘটেছিল সবাই দেখেছে। আমি শুধু সেই ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়েছিলাম। আর তাই আমার কোনও অনুশোচনা নেই।” ফলে এখানে দিনের আলোর মতো স্পষ্ট, বাংলাদেশের বিরুদ্ধে একদিনের সিরিজের শেষ ম্যাচে আম্পায়ারিং নিয়ে রাগ দেখিয়ে আইসিসি-র শাস্তির কোপে পড়লেও, হরমন এতটুকু বদলাননি।

Advertisement

[আরও পড়ুন: রাজার মতো কামব্যাক! দরাজ সার্টিফিকেট পেলেন ‘বুম বুম বুমরাহ’]

সেই ম্যাচে কী ঘটেছিল?

ভারত বনাম বাংলাদেশের তিন ম্যাচের সিরিজ ১-১ অবস্থায় ছিল। নির্ণায়ক ম্যাচটি টাই হওয়ার ফলে সিরিজ অমীমাংসিত থাকে। কিন্তু হরমনপ্রীত অভিযোগ করেন, আম্পায়াররা বাংলাদেশের পক্ষপাতিত্ব করেছেন। বলে দেন, “পরের বার বাংলাদেশে আসার আগে আম্পায়ারিংয়ের মোকাবিলা করার জন্যে তৈরি থাকতে হবে। সেই মতো আমাদের প্রস্তুত হতে হবে।” এই মন্তব্যের জেরেই আইসিসির নজরদারির তালিকায় ঢুকে পড়েন হরমনপ্রীত।

সেখানেই না থেমে বিতর্ককে আরও টেনে নিয়ে যান ভারত অধিনায়ক। সিরিজ জয়ের পরে ভারত ও বাংলাদেশ দুই দলের খেলোয়াড়দের নিয়ে ছবি তোলার কথা ছিল। কিন্তু সেই সময়েও ফের বিতর্ক বাঁধান হরমনপ্রীত। বাংলাদেশের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যায় হরমন বলেছেন, “শুধু তোমরা কেন ছবি তুলবে? তোমরা তো ম্যাচটা টাই করতে পারোনি। তোমাদের হয়ে আম্পায়াররা করেছেন। তাই আম্পায়ারদেরও ডেকে নাও। একসঙ্গেই ছবি তুলব।” এহেন মন্তব্যের পর অপমানিত হয়ে ছবি না তুলেই চলে যায় গোটা বাংলাদেশ দল।

 

হরমনপ্রীতের সেই আচরণের কড়া সমালোচনা শুরু হয় ক্রিকেট মহলে। অনেক ক্রিকেট পণ্ডিতদের দাবি, অহেতুক উত্তেজনা করেছিলেন ভারত অধিনায়ক। তাঁর আউট নিয়ে বিশেষ বিতর্ক ছিল না বলেও মত অনেকের। পরে সহ-অধিনায়ক স্মৃতি মন্ধানাও বলে যান, মুহূর্তের উত্তাপে এই আচরণ করে ফেলেছেন হরমন। মুহূর্তের উত্তেজনায় ভারত অধিনায়ক ভুল করে দেশজ ক্রিকেটের বদনাম করলেন। আগামী প্রতিযোগিতায় দলের সমস্যা বাড়ালেন।

এদিকে ভারতের মহিলা দলের পরবর্তী খেলা এশিয়ান গেমসে। ২৩ সেপ্টেম্বর থেকে চিনের হ্যাংঝৌতে শুরু হবে এশিয়ান গেমস। আইসিসি ক্রমতালিকা অনুযায়ী সরাসরি কোয়ার্টার ফাইনালে খেলবে ভারত। অর্থাৎ, হরমন দুই ম্যাচ নির্বাসিত হওয়ার জন্য কোয়ার্টার ফাইনাল ও সেমি ফাইনালে খেলতে পারবেন না। তবে ভারত যদি ফাইনালে ওঠে তা হলে সরাসরি তিনি সেই ম্যাচ খেলতে পারবেন। হরমনের বদলে এশিয়ান গেমসে দলকে নেতৃত্ব দেবেন স্মৃতি মান্ধানা।

[আরও পড়ুন: ৪২ বছরেও ‘বাহুবলী’! ধোনির নতুন লুক ভাইরাল হতেই তোলপাড় নেটদুনিয়া]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ