৩১ ভাদ্র  ১৪২৬  বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ৩২১-৮ (হোপ ৯৬, লুইস ৭০)

বাংলাদেশ: ৩২২-৩ (শাকিব ১২৪, লিটন দাস ৯৪)

বাংলাদেশ ৭ উইকেটে জয়ী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তিনি বিশ্বের অন্যতম সেরা অল-রাউন্ডার। দীর্ঘদিন ধরে বাংলাদেশ ক্রিকেটের অন্যতম নক্ষত্রও বটে। কথা হচ্ছে শাকিব আল হাসানের। ২০১৯ বিশ্বকাটা যার জন্য স্বপ্নের মতো। এই ম্যাচে নামার আগে একটি সেঞ্চুরি এবং দুটি হাফ সেঞ্চুরি করে ফেলেছিলেন শাকিব। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে করে ফেললেন কেরিয়ারের নবম এবং এই বিশ্বকাপের দ্বিতীয় শতরান। শাকিবের এই দুর্দান্ত সেঞ্চুরি এবং সেই সঙ্গে লিটন দাসের অপরাজিত অর্ধশতরান, এই দুইয়ের সৌজন্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে অনায়াসে হারিয়ে দিল বাংলাদেশ। এবং সেই সঙ্গে বুঝিয়ে দিল, বাংলার বাঘেদের হালকাভাবে নিলে ভুল করবে তথাকথিত বড় দলগুলি।

[আরও পড়ুন: পাকিস্তানের হারে কাঠগড়ায় ডাকওয়ার্থ লুইস নিয়ম, ক্ষুব্ধ বিশেষজ্ঞরা]

টুর্নামেন্টের শুরু থেকেই পারফরম্যান্সে নজর কাড়ছিল বাংলাদেশ। কিন্তু কখনও বৃষ্টি আর কখনও অল্পের জন্য হারের জেরে এই ম্যাচটি কার্যত মরণ-বাঁচন ম্যাচে পরিণত হয়েছিল বেঙ্গল টাইগারদের জন্য। সেমিফাইনালের লড়াইয়ে টিকে থাকতে হলে এদিন জিততেই হত। কিন্তু, ম্যাচের শুরুটা ভাল হয়নি বাংলাদেশের। এদিন টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ। মোর্তাজার সেই সিদ্ধান্তকে ভুল প্রমাণিত করে ক্যারিবিয়ানরা। গেইল শূন্য রানে প্যাভিলিয়নে ফিরে গেলেও, লুইস-হোপ এবং হেটমেয়েরের অর্ধশতরানের ইনিংসে ভর করে ৩২১ রানের বিশাল স্কোর খাড়া করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। হোপ করেন ৯৬ রান। লুইস ৭০ এবং হেটমেয়ের ৫০ রানে আউট হন। বাংলাদেশের হয়ে ৩টি করে উইকেট নেন সৈফুদ্দিন এবং মুস্তাফিজুর।

[আরও পড়ুন: এবারেও ‘মওকা’ পেল না পাকিস্তান, বিরাট-রোহিতের রেকর্ডের দিনে সহজ জয় ভারতের]

৩২২ রানের বিশাল টার্গেট নিয়ে খেলতে নেমে শুরুটা ভালই করে বাংলাদেশ। দলগত ৫২ রানের মাথায় সৌম্য সরকার আউট হলে ক্রিজে আসন শাকিব। এবং তারপর থেকেই শুরু হয় সুপার শাকিব শো। একের পর চার-ছক্কায় ক্যারিবিয়ান বোলারদের কার্যত ধূলিস্যাত করে দেন বিশ্বের এক নম্বর অল-রাউন্ডার। পূর্ণ করেন নিজের কেরিয়ারের নবম শতরান। এবারের বিশ্বকাপেই যার মধ্যে রয়েছে ২টি। এত বড় রান তাড়া করে ধীরস্থির মস্তিষ্ক আর নিয়ন্ত্রিত আগ্রাসনের পরিচয় দিয়ে শাকিব বাংলাদেশকে জয় এনে দেন। সেই সঙ্গে দ্বিতীয় বাংলাদেশি ব্যাটসম্যান হিসেবে ৬ হাজার রানের গণ্ডিও পেরিয়ে যান তিনি। শাকিবকে তাঁকে যোগ্য সঙ্গত করেন লিটন দাস। তাঁর সংগ্রহ অপরাজিত ৯৪ রান। দুই অনবদ্য ইনিংসের সুবাদে ৫১ বল বাকি থাকতেই নির্ধারিত লক্ষ্যে পৌঁছে যায় বাংলাদেশ। এটিই বিশ্বকাপের ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান চেজ। এবং এই বিশ্বকাপে প্রথমবার কোনও দল আড়াইশোর বেশি রান তাড়া করে জিতল। এই জয়ের ফলে পাঁচ ম্যাচে ৫ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকায় পঞ্চম স্থানে উঠে এল টাইগাররা।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং