BREAKING NEWS

২৬ শ্রাবণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১৩ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

ব্যাটে-বলে দুর্দান্ত টিম ইন্ডিয়া, বাংলার বাঘ বধ করে বিশ্বকাপের শেষ চারে কোহলিরা

Published by: Sulaya Singha |    Posted: July 2, 2019 11:15 pm|    Updated: July 2, 2019 11:25 pm

An Images

ভারত: ৩১৪/৯ (রাহুল-৭৭, রোহিত-১০৪)
বাংলাদেশ: ২৮৬/১০ (শাকিব-৬৬, সৌম্য-৩৩)
২৮ রানে জয়ী ভারত

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রথম একাদশ হোক কিংবা রিজার্ভ বেঞ্চ। অথবা দেশ থেকে উড়ে যাওয়া কোনও পরিবর্ত। ভারতীয় দলের যে প্রত্যেকটি ক্রিকেটারই তৈরি, একটা সুযোগ পেলেই যে তাঁরা জ্বলে উঠতে পারেন, সেটাই এজবাস্টনে মঙ্গলবার প্রমাণ দিলেন ঋষভ পন্থ, মহম্মদ শামিরা। ইংল্যান্ড ম্যাচে যা ভুলত্রুতি হয়েছে, বাংলাদেশ ম্যাচে আর না। কারণ এই ম্যাচে জয়ই সেমিফাইনালে পৌঁছনোর চাবিকাঠি। সেই লক্ষ্যে মাঠে নামা কোহলি অ্যান্ড কোং ফিরল জয়ের সরণিতে। আর সেই সঙ্গে বিশ্বকাপের শেষ চারে পৌঁছনোর স্বপ্নভঙ্গ হল বাংলাদেশের।

[আরও পড়ুন: ‘শামি মুসলিম, তাই ভাল খেলেছে’, প্রশংসা করতে গিয়েও ধর্ম টানলেন পাক তারকা]

চলতি বিশ্বকাপটা যেন নিজের নামেই করে ফেলেছেন রোহিত শর্মা। একটা করে ম্যাচ আর একটা করে সেঞ্চুরির সংখ্যা বৃদ্ধি। নিজের নামের পাশে শতরান লিখে ফেলাকে রীতিমতো অভ্যাসে পরিণত করেছেন তিনি। এদিন চলতি টুর্নামেন্টে চতুর্থ শতরান করতেই প্রাক্তন লঙ্কা অধিনায়ক সঙ্গকারার সেঞ্চুরির রেকর্ড ছুঁয়ে ফেললেন তিনি। সেই সঙ্গে শচীন তেণ্ডুলকরের মতো এক বিশ্বকাপে পাঁচশো রানের গণ্ডিও পেরিয়ে গেলেন ভারতীয় ওপেনার। তাঁর প্রশংসা যতই করা যায়, ততই যেন কম পড়ে। ঠান্ডা মাথায় এদিনও দলকে বড় লক্ষ্যে পৌঁছে দেওয়ার প্রাথমিক কাজটা করে গেলেন হিটম্যান। ফর্মে ফিরে যোগ্য সঙ্গ দিলেন লোকেশ রাহুল। বিরাট (২৬) ব্যর্থ হলেও এদিন চার নম্বর জায়গাটিকে প্রকৃত সম্মান দিলেন পন্থ। ৪৮ রানের মূল্যবান ইনিংস খেলে ফেরেন তিনি। তবে মিডল অর্ডার আর টেল এন্ডাররা আরও খানিকটা শক্ত হাতে হাল ধরলে স্কোরবোর্ডে আরও বেশ কিছু রান যোগ হতেই পারত। তবে ভারতীয় ব্যাটিংয়ে ধস নামানোর কৃতিত্ব অবশ্যই দিতে হবে মুশতাফিজুরকে। দুর্দান্ত বোলিং করে পাঁচটি উইকেট তুলে নেন একাই।

ব্যাট হাতে হার্দিক নিরাশ করলেও তিনটি উইকেট নিয়ে সেই হতাশা পুষিয়ে দিলেন। আর অন্যদিনের মতো এদিন বুমরাহ শুধু রানই বাঁচালেন না, নিলেন চারটি উইকেটও। বিশ্বকাপের শেষ চারে যাওয়ার স্বপ্ন টিকিয়ে রাখার আপ্রাণ চেষ্টা করেছিলেন বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানরা। কিন্তু যে দলে বিশ্বের তাবড় তাবড় বোলার রয়েছেন, তাঁদের চোখ রাঙানি এড়ানো তো সহজ কাজ নয়। 

বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান যদি হয় শত্রুতার ম্যাচ, তবে বাঙালিদের কাছে ভারত-বাংলাদেশ ম্যাচ আবেগের। যে আবেগে গা ভাসিয়ে প্রতিবেশী দেশ ভাল পারফর্ম করলেও মন্দ লাগে না। তবে দিনের শেষে নিজের দলের জয়ই বেশি স্বস্তি দেয়। আর এদিন এজবাস্টনে এই দুটি বিষয়ই উপভোগ করলেন ভারতীয় সমর্থকরা। 

[আরও পড়ুন: গেরুয়া জার্সির জন্যই হেরেছে ভারত! নেটিজেনদের সঙ্গে সুর মেলালেন মেহবুবা মুফতিও]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement