BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

ধাওয়ানের সেঞ্চুরিতে হাসতে হাসতে সিরিজ জয় টিম ইন্ডিয়ার

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 17, 2017 2:12 pm|    Updated: September 19, 2019 11:27 am

An Images

শ্রীলঙ্কা – ৫০ ওভারে ২১৫ অলআউট (থারাঙ্গা ৯৫, কুলদীপ ৩/৪২, চাহাল ৩/৪৬)

ভারত-  ৩২.১ ওভারে ২১৯/২ (ধাওয়ান ১০০*, শ্রেয়স ৬৫, পেরেরা ২৫/১)

ভারত আট উইকেটে জয়ী।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রান মেশিন বিরাট কোহলি নেই। কিন্তু তাতে কী! রোহিত শর্মা, শিখর ধাওয়ান, শ্রেয়স আয়ার, যুজবেন্দ্র চাহাল, কুলদীপ যাদব এবং সর্বোপরি মহেন্দ্র সিং ধোনি তো রয়েছেন। আর যে শ্রীলঙ্কায় আগের ছায়া পর্যন্ত নেই, তাঁরা আর এই ভারতীয় দলকে কী টক্কর দেবে। যতই ধরমশালায় ধস নামুক ভারতীয় দলের ব্যাটিংয়ে। সেটা যে কেবল একটি অঘটন, বিশাখাপত্তনমে তৃতীয় ওয়ানডে সেটা প্রমাণ করে দিল। হাসতে হাসতেই ম্যাচ ও সিরিজ পকেটে পুরে নিল রোহিত শর্মার টিম ইন্ডিয়া। সিরিজের শেষ ও নির্ণায়ক ম্যাচে ব্যাট-বল উভয় বিভাগেই হারল শ্রীলঙ্কা। ২১৬ রান তাড়া করতে নেমে ৮ উইকেটে জয় পেল ভারত। এই নিয়ে পরপর আটটি দ্বিপাক্ষিক ওয়ানডে সিরিজ জিতল ভারত।

[কার্ট রেসিংয়ে মুখোমুখি শচীন এবং ব্রেট লি, জানেন কে জিতলেন?]

এদিন টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় ভারত। তবে মাত্র ২১৫ রানেই অলআউট হয়ে যায় শ্রীলঙ্কা। গত ম্যাচের হিসেবে যা কিনা ভারতের কাছে জলভাত। কারণ দ্বিতীয় ওয়ানডেতে একা রোহিত শর্মাই করেছিলেন ২০৮ রান। যদিও রবিবার আর ভারতীয় অধিনায়কের ব্যাট চলেনি। তবে আরেক ওপেনার শিখর ধাওয়ান এবং তিন নম্বরে নামা শ্রেয়স আয়ার দলের রান এগিয়ে নিয়ে যান। শ্রেয়স ৬৩ বলে ৬৫ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন। উলটোদিকে অবশ্য নিজস্ব মেজাজেই ব্যাট করেন ‘গব্বর’। তাঁর সংগ্রহ অপরাজিত ১০০ রান। এটি তাঁর কেরিয়ারের ১২তম সেঞ্চুরি। শেষপর্যন্ত ধাওয়ান এবং দীনেশ কার্তিক (২৬) জুটি ভারতকে নির্দিষ্ট লক্ষ্যমাত্রায় পৌঁছে দেন। ভারতীয় বোলাররা যে পিচে দুর্দান্ত বোলিং করেছেন, সেখানে শ্রীলঙ্কান বোলারদের সঙ্গে রীতিমতো ছেলেখেলা করেছেন ধাওয়ানরা। তার উপর রয়েছে বাজে ফিল্ডিং। যা কিনা শ্রীলঙ্কাকে ম্যাচ জেতা থেকে দূরে ঠেলতে যথেষ্ট ছিল।

[এক ক্যালেন্ডারে ১৮ জন ক্রীড়াবিদের নগ্ন ছবি! এমন জিনিসের মালিক হতে চান?]

দিনের শেষটা যদি ধাওয়ান-শ্রেয়সের হয়, তবে দিনের শুরুটা ছিল চাহাল-কুলদীপ জুটির। দু’জনেই তিনটি করে উইকেট পেয়েছেন। পাশাপাশি দু’টি উইকেট পেয়েছেন হার্দিক পাণ্ডিয়া। এছাড়া ভুবনেশ্বর কুমার এবং জসপ্রীত বুমরাহ একটি করে উইকেট পেয়েছেন। এদিন মূলত ভারতীয় স্পিন যুগলের কাছে রীতিমতো আত্মসমর্পণ করেন শ্রীলঙ্কান ব্যাটসম্যানরা। একমাত্র উপুল থারাঙ্গা (৯৫) এবং সমরবিক্রামা (৪২)-র জুটি কিছুটা প্রতিরোধ গড়ে তোলেন। কিন্তু দলের ১৬০ রানের মাথায় কুলদীপের বলে ধোনির অসাধারণ স্টাম্পিংয়ে আউট হন থারাঙ্গা। আর তারপর ভারতীয় বোলারদের দাপটে ২১৫ রানেই শেষ হয় শ্রীলঙ্কার ইনিংস।

[চোরদের হাত থেকে রেহাই পেলেন না নেইমারও, খোয়া গেল জার্সি]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement