BREAKING NEWS

১৩ কার্তিক  ১৪২৭  শুক্রবার ৩০ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

অ্যাকশনে ছাড়পত্র পেয়েও নারিনকে খেলাল না KKR, হায়দরাবাদকে লড়াকু টার্গেট দিল নাইটরা

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: October 18, 2020 5:22 pm|    Updated: October 18, 2020 5:31 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে নামার আগেই একটা বড়সড় সুখবর পেয়েছিল কেকেআর (KKR)। কিন্তু, সেই সুসংবাদের সুবিধা তাঁরা নিল না। হ্যাঁ, রবিবার হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে নবম ম্যাচর আগেই কেকেআরের অন্যতম সেরা বোলার সুনীল নারিনকে ক্লিনচিট দিয়ে দিয়েছিল আইপিএল কর্তৃপক্ষ। তাঁর অ্যাকশন নিয়ে যে প্রশ্ন উঠেছিল, তা খারিজ করে দেওয়া হয়। তাই আজকের ম্যাচে খেলতে নারিনের কোনও বাধা ছিল না। কিন্তু শেষপর্যন্ত নাইট শিবির আজকের ম্যাচে নারিনকে খেলায়নি। যা সমর্থকদের অবাক করেছে। নারিনকে ছাড়া নেমেও অবশ্য হায়দরাবাদকে ১৬৪ রানের ফাইটিং টার্গেট দিয়েছে কেকেআর। 

পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে ম্যাচের দিনই নারিনের অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিয়েছলেন দুই অনফিল্ড আম্পায়ার। নারিনের অ্যাকশন রিপোর্ট করা হয়। যদিও তারপরও সুনীলের (Sunil Narine) বল করাতে কোনও বাধা ছিল না। আরেকবার এভাবে রিপোর্ট করা হলে তিনি টুর্নামেন্টে আর বলই করতে পারতেন না। তাই আর ঝুঁকি না নিয়ে নারিনকে শেষ দুটি ম্যাচে বসিয়ে রাখা হয়। আর তাঁর অ্যাকশন নিয়ে যে প্রশ্ন তোলা হয়েছিল, তার পালটা আবেদন করে নাইটরা। কেকেআরের আবেদন মতো তাঁর অ্যাকশন রিভিউ করে কর্তৃপক্ষ। শেষপর্যন্ত সুনীলের অ্যাকশনে আপত্তিকর কিছু না পাওয়া যাওয়ায় তাঁকে সন্দেহজন অ্যাকশনের তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু তা সত্বেও নাইটরা নারিনকে খেলায়নি। আসলে, এই মুহূর্তে সুনীল পুরোপুরি ফিট নন। টস করতে এসে অধিনায়ক মর্গ্যানকে বলছিলেন, “সুনীল শারীরিকভাবে পুরো ফিট নয়। তাই আমরা ঝুঁকি নিতে ছাইছি না।”

[আরও পড়ুন: ধাওয়ানের দুরন্ত শতরান, পাঁচ উইকেটে ধোনির চেন্নাইকে হারাল দিল্লি]

এদিকে নারিনকে ছাড়াই এদিন খেলতে নেমে ফের নিজেদের মেলে ধরতে পারল না নাইটরা। প্রথমে ব্যাট করে নেমে নাইটদের ইনিংস শেষ হল মাত্র ১৬৩ রানে। যদিও শুরুটা অন্যদিনের তুলনায় ভাল করেছিল নাইটরা। গিল, রানা, ত্রিপাঠি সবাই শুরুটা ভাল করেছিলেন। কিন্তু সেভাবে বড় রান কেউই করতে পারলেন না। গিল ৩৬, রানা ২৯ এবং ত্রিপাঠি ২৩ রান করলেন। এদিন আরও একবার ব্যর্থ হলেন রাসেল। ১১ বলে করলেন মাত্র ৯ রান।  শেষবেলায় কার্তিক এবং মর্গ্যান জুটি নাইটদের স্কোর সম্মানজনক জায়গায় পৌঁছে দেয়। কার্তিক করলেন ১৪ বলে ২৯ রান। মর্গ্যান করলেন ২৩ বলে ৩৪। 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement