Advertisement
Advertisement

MS Dhoni: ছক্কা হাঁকিয়ে বিশ্বকাপ জেতানো ধোনির ব্যাটের দাম কত? জানলে মাথা ঘুরে যাবে

একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ধোনির বিশ্বকাপ জেতা ব্যাটটিকে নিলামে তোলে।

Mahendra Singh Dhoni bat used in 2011 World Cup final sold for massive price। Sangbad Pratidin

ধোনির ছক্কা মারার সেই ঐতিহাসিক মুহূর্ত।

Published by: Sabyasachi Bagchi
  • Posted:August 10, 2023 4:31 pm
  • Updated:August 11, 2023 9:00 am

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মহেন্দ্র সিং ধোনির (Mahendra Singh Dhoni) নেতৃত্বে জোড়া বিশ্বকাপ (World Cup) জিতেছে টিম ইন্ডিয়া (Team India)। ২০০৭ সালের পর ২০১১ সালে বিশ্বকাপ ঘরে এসেছিল। অবশ্য ২০১১ সালে বিশ্বকাপ (ICC World Cup 2011) জয় ছিল বিশেষ কারণে মনে রাখার মতো। কারণ ২ এপ্রিল ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামের বাইশ গজে শ্রীলঙ্কাকে (Sri Lanka) ৬ উইকেটে হারিয়ে কাপ জিতেছিল ‘মেন ইন ব্লু’ ব্রিগেড। সেই মেগা ফাইনালে গৌতম গম্ভীর (Gautam Gambhir) ১২২ বলে ৯৭ রান করলেও, সবার মনে গেঁথে রয়েছে ‘ক্যাপ্টেন কুল’-এর (Captain Cool) ৭৯ বলে ৯১ রানের অপরাজিত ইনিংস। এবং ৪৮.২ ওভারের মাথায় নুয়ান কুলাশেখরার ডেলিভারিকে লং অনের উপর গ্যালারি ফেলে ছক্কা সবার মনে রয়ে গিয়েছে। আর তাই ধোনির সেই ব্যাট সব রেকর্ড ভেঙে দিল।

ফাইনালে যেই ব্যাট নিয়ে ধোনি খেলতে নেমেছিলেন সেটা হয়েছে সবথেকে দামি ব্যাট। আর ব্যাটটির দাম ৮৩ লাখ টাকা। তবে ধোনি কিন্তু এই দাম দিয়ে ব্যাট কেনেননি। ২০১১ সালের সময় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রতিটি ব্যাটের দাম ছিল চার থেকে ১০ হাজার টাকার মধ্যে। ধোনির ব্যাটের দামও এরমধ্যেই ছিল। তবে সেটা এখন বিশ্বের সবথেকে দামি। সৌজন্যে সেই ছক্কা। ধোনির ব্যাটের আগে বিশ্ব ক্রিকেটে সবথেকে দমি ব্যাট ছিল গ্যারি নিকোলসের। বিশেষ ইংলিশ উইলো কাঠ দিয়ে তৈরি সেই ব্যাটের দাম ছিল ১ লাখ টাকার কাছাকাছি। এবার ধোনির ব্যাটের দাম টপকে গেল।

Advertisement

 [আরও পড়ুন: IND vs PAK: বিরাট-রোহিতদের জার্সিতে লেখা ‘পকিস্তান’! কিন্তু কেন? দেখুন ভাইরাল ছবি]

একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ধোনির বিশ্বকাপ জেতা ব্যাটটিকে নিলামে তোলে। যেটির দাম সর্বোচ্চ ৮৩ লাখ টাকা স্পর্শ করে। এরপর এটি সবথেকে দামি ব্যাট হিসেবে গিনেস বুকে জায়গা করে নেয়। তবে এই ব্যাটটা ধোনি আগেও ব্যবহার করেছিলেন, এটির দাম আকাশ ছুঁল বিশ্বকাপ ফাইনালের জন্য। কেরিয়ারের শুরুর দিকে ধোনি তাঁর ব্যাটের স্পনসর পেতে সমস্যায় পড়েছিলেন। এরকপর রিবক তাঁকে স্পনসর করে, এরপর আর তাঁকে পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি। ধোনির ব্যাট তরুণ প্রজন্মের কাছে হয়ে গিয়েছিল অনুপ্রেরণা।

Advertisement

[আরও পড়ুন: বিশ্বকাপের প্রস্তুতির মাঝেই ইডেনের ড্রেসিংরুমে আগুন, ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ