BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ধরমশালার বদলা, মোহালিতে বড় ব্যবধানে শ্রীলঙ্কাকে হারাল টিম ইন্ডিয়া

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 13, 2017 1:39 pm|    Updated: September 19, 2019 3:50 pm

An Images

ভারত- ৫০ ওভারে ৩৯২/৪ (রোহিত ২০৮*, শ্রেয়স ৮৮, পেরেরা ৮০/৩)

শ্রীলঙ্কা- ৫০ ওভারে ২৫১/৮ (ম্যাথেউজ ১১১*, চাহাল ৬০/৩)

ভারত ১৪১ রানে জয়ী।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ঠাণ্ডা আবহাওয়া, সবুজ পিচকে কাজে লাগিয়ে ধরমশালায় ভারতীয় ব্যাটিং লাইন আপে ধস নামিয়েছিল শ্রীলঙ্কা। কিন্তু এ যে আর আগের শ্রীলঙ্কা নেই, একটু ব্যাটিং সহায়ক পিচ হতেই সেটা টের পেয়ে গেল গোটা ক্রিকেটবিশ্ব। যে বোলাররা প্রথম ওয়ানডেতে টিম ইন্ডিয়ার ব্যাটিং লাইন আপে কাঁপুনি ধরিয়েছিল। মোহালিতে দ্বিতীয় ম্যাচে তাঁদের উপরেই স্টিম রোলার চালাল রোহিত-ধাওয়ান-শ্রেয়সরা। আর প্রথমে ব্যাট করে স্কোরবোর্ডে তুলল পাহাড় প্রমাণ রান। যার চাপে ধসে গেল শ্রীলঙ্কার ব্যাটিং। আর ধরমশালার বদলা নিয়ে তিন ম্যাচের সিরিজে সমতা ফেরাল টিম ইন্ডিয়া। জয় এল ১৪১ রানে।

[মোহালিতে মারকাটারি ইনিংস রোহিতের, পেলেন কেরিয়ারের তৃতীয় দ্বিশতরান]

বুধবার টস জিতে প্রথমে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল শ্রীলঙ্কা। কিন্তু অফিসে যেমন সব দিন সমান যায় না, তেমনি এদিন বাইশ গজে রাজত্ব করলেন ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা। শুরু থেকেই মারমুখী মেজাজে ছিলেন শিখর ধাওয়ান। তিনি ৬৮ রানে আউট হতে সেই ব্যাটনটি নিজের হাতে তুলে নেন বিরাট কোহলির অনুপস্থিতিতে টিম ইন্ডিয়ার নয়া অধিনায়ক রোহিত শর্মা। প্রথমে ১১৫ বলে নিজের সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন। কিন্তু দুরন্ত সেঞ্চুরির পরও থামেনি এই মুম্বইকরের ব্যাট। তিনি খুবই প্রতিভাবান। কেরিয়ারের শুরু থেকেই মুম্বইকরকে নিয়ে এ কথা চালু ছিল। কিন্তু টেস্ট হোক কিংবা ওয়ানডে তেমনভাবে ধারবাহিকতা দেখা যায়নি রোহিত শর্মার ব্যাটে। আবার যখন রান পেয়েছেন, চলে গিয়েছেন ধরা-ছোঁয়ার বাইরে। এদিন মোহালির মাঠে নিজের সেই প্রতিভাই ফের প্রমাণ করলেন রোহিত শর্মা। সেঞ্চুরির পর করে ফেললেন ওয়ানডে কেরিয়ারের তিন নম্বর দ্বিশতরানও। তাও পরের সেঞ্চুরিটি এসেছে মাত্র ৩৬ বলে। বলতে গেলে শ্রীলঙ্কান খেলোয়াড়দের নিয়ে রীতিমতো ছেলেখেলা করলেন তিনি। আর রোহিত বাদে ওয়ানডে কেরিয়ারে তিনটি দ্বিশতরান ক্রিকেট বিশ্বে আর কারও নেই। এমনকী রোহিতের কাছেই রয়েছে ওয়ানডে ক্রিকেটে এক ইনিংসে কোনও ব্যাটসম্যানের করা সর্বোচ্চ রানের রেকর্ডও। এর আগে ইডেনে ২৬৪ রান করেছিলেন তিনি।

[গুরুদের পারফেক্ট উপহার, ড্রেসিংরুমে দুই কোচের জন্মদিন পালন বাগান ফুটবলারদের]

এদিন ছিল রোহিতের বিবাহবার্ষিকী। বলতে গেলে, এদিনের দ্বিশতরান সেকারণেই আরও স্পেশাল হয়ে থাকল তাঁর কাছে। স্বামীর ব্যাটিং দেখে কেঁদেই ফেললেন স্ত্রী ঋতিকা সচদেও। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায় সেই ভিডিও। এছাড়া শচীন তেণ্ডুলকর, বীরেন্দ্র শেহওয়াগ মতো একাধিক প্রাক্তন ক্রিকেটার এবং অমিত মিশ্র, সুরেশ রায়নার মতো বর্তমান ক্রিকেটাররাও তাঁকে শুভেচ্ছা জানান। রোহিত-ধাওয়ান ছাড়াও এদিন রান পেয়েছেন তিন নম্বরে নামা শ্রেয়স আয়ারও(৮৮)। যদিও রান পাননি মহেন্দ্র সিং ধোনি(৭) এবং হার্দিক পাণ্ডিয়া(৮)। যদিও শেষপর্যন্ত অপরাজিতই থাকেন ‘হিটম্যান’ রোহিত। আর নির্ধারিত ৫০ ওভারের শেষে ভারত পৌঁছায় চার উইকেটে ৩৯২ রানে।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে নিয়মিত ব্যবধানে উইকেট হারাতে থাকে শ্রীলঙ্কা। লঙ্কার ব্যাটসম্যানদের মধ্যে অ্যাঞ্জেলো ম্যাথেউজ ছাড়া কেউ সেভাবে পালটা লড়াইটুকুও করতে পারেননি। একা তিনিই শতরান করে দলের মান রাখেন। ম্যাথেউজের সংগ্রহ অপরাজিত ১১১ রান। এছাড়া বাকি ব্যাটসম্যানদের মধ্যে গুণারত্নে (৩৪) কিছুটা চেষ্টা করলেও ভারতের পাহাড়প্রমাণ রানের কাছে সেটা কিছুই ছিল না। ভারতীয় বোলারদের মধ্যে এদিন সবচেয়ে সফল যুজবেন্দ্র চাহাল। তিনি তিন উইকেট পেয়েছেন। শেষ পর্যন্ত আট উইকেটে ২৫১ রানে থামে শ্রীলঙ্কা  প্রথম ম্যাচে মুখ থুবড়ে পড়ার পর এই ম্যাচে জয় নিঃসন্দেহে আত্মবিশ্বাস বাড়াবে টিম ইন্ডিয়ার।

ছবি সৌজন্যে: বিসিসিআই

[অভিনব উদ্যোগ, চ্যারিটির জন্য বিক্রি হতে চলেছে বিরুষ্কার বিয়ের ছবি]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement