BREAKING NEWS

২০ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  বুধবার ৩ জুন ২০২০ 

Advertisement

বিদায় আসন্ন? দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজেও বাদ পড়ছেন ধোনি!

Published by: Sulaya Singha |    Posted: August 28, 2019 8:13 pm|    Updated: August 28, 2019 8:13 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এযেন ঘুরিয়ে নাক দেখানো। সরাসরি ধোনিকে বিদায় নেওয়ার কথা বলা যাচ্ছে না। তাই তাঁকে বাদ দিয়ে দল গড়ার কথা ভেবে বুঝিয়ে দেওয়ার চেষ্টা হচ্ছে, আপনার প্রয়োজন ফুরিয়েছে। টিম ইন্ডিয়ার ক্যারিবিয়ান সফরের মাঝেই তাই ফের মহেন্দ্র সিং ধোনির ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্ন উঠে গেল। শোনা যাচ্ছে, দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজেও নাকি ধোনিকে ছাড়াই দল সাজানোর পরিকল্পনা করছেন জাতীয় নির্বাচক কমিটি।

[আরও পড়ুন: বয়স ৮৫, কুড়ি লক্ষ ম্যাচ খেলে অবসর নিচ্ছেন এই ফাস্ট বোলার]

বিশ্বকাপের পর মাস দুয়েক ক্রিকেট থেকে বিরতি নিয়েছিলেন মাহি। চলতি মাসের গোড়ায় কাশ্মীরে সেনা প্রশিক্ষণ নিয়েছেন তিনি। অন্যান্য জওয়ানদের সঙ্গে সীমান্তে টহলও দিয়েছেন। অন্যদিকে সেসময় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে সীমিত ওভারের সিরিজ খেলছিল বিরাট কোহলির ভারত। সেই সিরিজের দল বাছাইয়ের সময়ও ধোনিকে দলে না রাখারই চিন্তাভাবনা ছিল নির্বাচকদের। বরং ঋষভ পন্থই ছিল এমএসকে প্রসাদের কমিটির প্রথম পছন্দ। যদিও দল বাছাইয়ের আগেই ধোনি বিরতির সিদ্ধান্ত নেওয়ায় আর কোনও প্রশ্ন ওঠেনি। তবে এবার তো বিরতি থেকে বাইশ গজে ফেরার পালা ধোনির। কিন্তু নির্বাচকরা কি তা হতে দেবেন? এনিয়ে ইতিমধ্যেই সন্দেহ দানা বেঁধেছে। কারণ শোনা যাচ্ছে, প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধেও নাকি ঋষভকেই সুযোগ দিতে আগ্রহী বোর্ড। আগামী বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে তাঁকেই বেশি করে খেলাতে চাইছেন নির্বাচকরা। আর তাই হয়তো ঠাঁই হবে না প্রাক্তন ভারত অধিনায়কের।

[আরও পড়ুন: স্টোকসের প্রশংসা করতে গিয়ে শচীনকে ফের ‘অপমান’, সমর্থকদের রোষানলে আইসিসি]

আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর ধরমতলায় প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। তিন ম্যাচের সিরিজের জন্য সম্ভবত দল বাছাই ৪ সেপ্টেম্বর। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে তিনটি টেস্টও খেলবে ভারত। ছোট ফরম্যাটের বিশ্বকাপের আগে ভারত আর ২২টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে। সেই কারণে খুব বুঝে-সুঝে পা ফেলতে চাইছেন নির্বাচকরা। ধোনিহীন বিশ্বকাপের ভাবনায় তাই উত্তরসূরি ঋষভই তাঁদের প্রথম পছন্দ। এছাড়াও দ্বিতীয় ও তৃতীয় উইকেটকিপার হিসেবে তাঁদের তালিকায় রয়েছেন সঞ্জু স্যামসং এবং ইশান কিষাণ।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement