৬ শ্রাবণ  ১৪২৬  সোমবার ২২ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিশ্বকাপে ভারত-পাক ম্যাচে হারের পর পাক ক্রিকেটারদের জীবন যেন নরকে পরিণত হয়েছে। একদিকে সমর্থকদের রোষ, দেশীয় সংবাদমাধ্যমের কটাক্ষ, অন্যদিকে ক্রিকেট বিশেষজ্ঞদের বাক্যবাণ, সব মিলিয়ে নাস্তানাবুদ পরিস্থিতি পাকিস্তান ক্রিকেটারদের। এর সঙ্গে রয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ার বাক্যবাণ। অবশেষে সহ্যের বাঁধ ভাঙল সরফরাজের। নেটদুনিয়ার যাবতীয় কটাক্ষ এবং বিশেষজ্ঞদের সমালোচনার জবাব দিলেন তিনি।

[আরও পড়ুন: বিশ্বকাপের মধ্যেই ক্রিকেটপ্রেমীদের জন্য দুঃসংবাদ, নির্বাসিত জিম্বাবোয়ে]

ভারতের বিরুদ্ধে হারের পর সরফরাজের হাই তোলা নিয়ে বিস্তর ‘মিম’ ছড়িয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। পাক অধিনায়ককে আনফিট বলে দাবি করছেন অনেকেই। শুধু নেটিজেনরা নন, বিশেষজ্ঞরাও কটাক্ষ করতে ছাড়ছেন না। এ বিষয়ে সরফরাজের সাফাই, “হাই তোলাটা স্বাভাবিক বিষয়। এটা কোনও পাপ নয়। আমি হাই তুলে কোনও পাপ করিনি। আর হ্যাঁ আমার হাই তোলাকে কাজে লাগিয়ে, যদি কেউ পয়সা রোজগার করে, তাহলে তো আমি বলব এটা ভাল কাজ।”

[আরও পড়ুন: ভারত-পাক ম্যাচে গ্যালারিতেই প্রেম নিবেদন যুবকের, ভাইরাল চুম্বনের ভিডিও]

উল্লেখ্য, ভারতের বিরুদ্ধে হারের পর সরফরাজকে ব্যক্তিগতভাবে হেনস্তারও শিকার হতে হয়েছে। এক সমর্থক তাঁর পিছনে ধাওয়া করে রীতিমতো কটাক্ষও করেন পাক অধিনায়ককে। তবে, এসবের থেকে সরফরাজ বেশি আঘাত পেয়েছেন বিশেষজ্ঞদের মন্তব্যে। ভারতের বিরুদ্ধে হারের পর শোয়েব আখতার সরফরাজকে ‘মস্তিষ্কহীন অধিনায়ক’ বলে কটাক্ষও করেছিলেন। অনেকে বলছেন, এদিন তারই জবাব দিয়েছেন পাক অধিনায়ক। তিনি বলেছেন, “কেউ কেউ টেলিভিশনে বসে নিজেদের ভগবান ভাবতে শুরু করেছে। ওরা আমাদের ক্রিকেটারই মনে করেন না।” ভারতের বিরুদ্ধে হার প্রসঙ্গে পাক অধিনায়ক আগেই বলেছিলেন, পাকিস্তান বিশ্বকাপে ভারতের বিরুদ্ধে এই প্রথমবার হারলো না। সুতরাং, এটা নতুন কিছু নয়। এ নিয়ে এত আলোড়নেরও কিছু নেই বলে মত পাক অধিনায়কের।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং