BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‌অবসর নিলেও এখনই ICC’র ‘হল অফ ফেমে’ জায়গা হচ্ছে না ধোনির, কিন্তু কেন?‌

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: August 27, 2020 4:41 pm|    Updated: August 28, 2020 3:48 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি (Mahendra Singh Dhoni)। কিন্তু সেটা যেন এখনও মন থেকে মানতে পারছেন না তাঁর ভক্তরা। এর মধ্যেই আবার ধোনির অবসরের এক সপ্তাহ পরেই জ্যাক কালিস, জাহির আব্বাস এবং লিজা স্থালেকারকে ‘‌হল অব ফেম’–এ যুক্ত করে ICC। আর এরপরই অনেক ধোনি ভক্তের মনে প্রশ্ন জাগতে শুরু করেছে, কেন ধোনিকে ‘‌আইসিসি হল অব ফেম’–এ (ICC Hall of Fame) যুক্ত করল না ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা?‌ সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকেই এই বিষয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। সত্যিই তো কেন ধোনিকে দেওয়া হল না এই সম্মান?‌

[আরও পড়ুন: মা হতে চলেছেন অনুষ্কা শর্মা, ইনস্টাগ্রামে ছবি পোস্ট করে সুখবর জানালেন বিরাট কোহলি]

আসলে নিয়মানুযায়ী, কোনও ক্রিকেটার অবসর নেওয়ার পাঁচ বছর পরই তাঁকে ‘‌হল অব ফেম’–এ অন্তর্ভুক্ত করবে আইসিসি। বহুদিন ধরেই এই নিয়ম চলে আসছে। ঠিক যেমন হয়েছিল রাহুল দ্রাবিড় (Rahul Dravid), অনিল কুম্বলে (Anil Kumble) কিংবা শচীন তেণ্ডুলকরের (Sachin Tendulkar) ক্ষেত্রে। ২০১২ সালে অবসর নিয়েছিলেন ‘‌দ্য ওয়াল’ দ্রাবিড়। ২০১৮ সালে তিনি জায়গা পান আইসিসির ‘‌হল অব ফেমে’‌। তেমনই ২০১৩ সালের নভেম্বরে অবসর নিয়েছিলেন শচীন। তাঁকে হল অব ফেমে অন্তর্ভুক্ত করা হয় ২০১৯ সালের বিশ্বকাপ ফাইনালের ঠিক আগে। ধোনির ক্ষেত্রেও সেই নিয়ম প্রযোজ্য। তাঁকে অপেক্ষা করতে হবে ২০২৬ সালের জুন মাস পর্যন্ত।

[আরও পড়ুন: ঘোষিত এবারের IPL-এর সূচি, জেনে নিন কেকেআরের ম্যাচ কোন কোন দিন]

এদিকে, ভারতীয় ক্রিকেটের এক নম্বর খেলোয়াড়কে?‌ হ্যাঁ, দেশের খ্যাতনামা ক্রিকেটারদের মধ্যে কেবলমাত্র একজনকে বেছে নেওয়াটা সত্যিই খুব কঠিন!‌ কিন্তু সেটাই এবার করার সাহস দেখালেন সুনীল গাভাসকর (Sunil Gavaskar)। জানালেন, তাঁর কাছে দেশের ১ নং ক্রিকেটার ‌কে?‌ না ধোনি, বিরাট তো দূর, গাভাসকরের কাছে দেশের সেরা খেলোয়াড় কপিল দেব (Kapil Dev)। একটি সাক্ষাৎকারে এই সংক্রান্ত প্রশ্নের উত্তরে সানি স্পষ্ট বলেন, ‘‌‘‌সবার উপরে অবশ্যই কপিল দেব। আমার কাছে ও এক নম্বর। কপিল সেরা। তাই আমার কাছে সবসময় ওঁর নামই এক নম্বরে থাকবে।’‌’ ওই সাক্ষাৎকারে ‘‌হরিয়ানা হ্যারিকেনে’র ভূয়সী প্রশংসাও করেন গাভাসকর।‌‌

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement