BREAKING NEWS

২৭ আষাঢ়  ১৪২৭  রবিবার ১২ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

গোলাপি ইতিহাসের সামনে ইডেন, সাক্ষী হতে কলকাতায় আসছেন শচীন

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: November 21, 2019 4:08 pm|    Updated: November 21, 2019 5:14 pm

An Images

অভিজ্ঞান সাহা: মুশকিলে পড়েছেন বোর্ড সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। শুক্রবার সকাল সাড়ে দশটায় বাংলাদেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কলকাতা আসছেন। তাঁকে ইডেনে আনতে সকালে এয়ারপোর্ট থাকবেন সৌরভ। এখানেই সব শেষ হয়ে গেলে কথা ছিল না। কিন্তু সকালে শহরে আসছেন শচীন তেণ্ডুলকর। তাঁকেও নিয়ে আসার কথা সৌরভের। মাস্টার-ব্লাস্টার ক’টায় আসছেন? সেটা সিএবি জানাচ্ছে না। তা হলে! দু’য়ের মাঝে দাঁড়িয়ে স্বয়ং বোর্ড সভাপতি। ওঁরা আসছেন শুক্রবার দুপুর একটায় ইডেনে নতুন ইতিহাসের সাক্ষী থাকতে।

১৯৩২-এ ইডেনে প্রথম টেস্টের বল গড়িয়েছিল। তা ইতিহাসে লেখাও আছে। এবার আবার এক ইতিহাস। গোলাপি বলে ভারতে প্রথম টেস্ট ম্যাচ। সেই ইতিহাসের পাতায় থাকবেন এঁরা সবাই। ঐতিহাসিক ম্যাচে ক্রিকেটের সঙ্গে থাকছে নানা অনুষ্ঠান। রুনা লায়লা, জিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের গান। বাচ্চাদের ফান ক্রিকেট। রাহুল, লক্ষণদের ২০০১ টেস্ট ম্যাচের স্মৃতিচারণ। খেলার শেষে বিশিষ্টজনদের ভাষণও থাকছে। এমন দিনে শচীন কথা না বললে হয়। তাই শচীনের নোটবুকে এখনই তিনটি নাম উঠে এসেছে। তা হল- ইডেন, গোলাপি বল এবং সৌরভ। তিন, চার মিনিটের বেশি কথা বলার সুযোগ থাকবে না। খেলার শেষে টানা কথা শুনতে কার ভাল লাগে। শচীন তো এই তিনটি নাম নিয়ে অনেক কথাই বলে দিতে পারেন। তাঁর পক্ষে কঠিন হবে ভাষণ সংক্ষিপ্ত করা।

[আরও পড়ুন: গোলাপি বলে খেলা চ্যালেঞ্জের, ঐতিহাসিক টেস্টের আগে শিশির নিয়ে চিন্তায় বিরাট]

এই ইডেনে কত স্মরণীয় ম্যাচ খেলেছেন। হিরো কাপ শুরুতে আনলেও তালিকা ছোট হবে না। এরপর থাকবে বিশ্বকাপ, অস্ট্রেলিয়া সিরিজ। আরও কত ম্যাচ ও তাঁর ইনিংস। এরপর গোলাপি বল। গোলাপি বল নিয়ে ইতিমধ্যে ১১টি টেস্ট ম্যাচ খেলা হয়ে গিয়েছে। ১২ নম্বর টেস্টে লেখা থাকবে ইডেনের নাম। সৌরভের সঙ্গে গোলাপি বল নিয়ে তিনিও কি একমত? না, এ নিয়ে এখনই শেষ কথা বলতে পারছেন না শচীন। তাঁর ধারণা, আগে সব দেখে নিয়ে কথা বলা ভাল। এই ম্যাচ কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেটা দেখে নিতে হবে। তারপর কথা বলা ভাল। আগের ১১টি টেস্ট এই বল নিয়ে নানা কথা শুনেছেন। মাঠে বসে সে সব দেখা হয়নি। ইডেনে প্রথমদিন হাজির থেকে সব দেখবেন।

দিনরাতের এই টেস্টে শুরুতে ব্যাটসম্যানরা কতটা চ্যালেঞ্জে পড়বে। সেই চ্যালেঞ্জ সামলে কেমন তাঁরা পারফর্ম করেন। টোয়ালাইটে বল কতটা ঝামেলায় ফেলে। এ সব দেখে নিজের কথা বলবেন। এবং সব শেষে সৌরভ। বর্তমান বোর্ড প্রেসিডেন্টকে নিয়ে কথা বলতে শুরু করলে শেষ করতে পারবেন না। অনুর্ধ্ব ১৫ থেকে তাঁদের দু’জনের একসঙ্গে পথ চলা শুরু। তারপর ক্রিকেট মাঠে ও মাঠের বাইরে কত কিছু ঘটেছে। এত কিছু বলাও সম্ভব নয়। সৌরভ নতুন দায়িত্ব নিয়ে দেশের মাঠে গোলাপি বলের টেস্ট ম্যাচ শুরু করে দিলেন। এটাই বলবেন শচীন। তাই অনেক কিছু নিয়ে কথা বলার থাকলেও শচীনের নোটবুকে আপাতত তিনটি নাম। ইডেন, গোলাপি বল এবং সৌরভ…।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement