BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বর্ষবরণে চমক, বন্ধুদের জন্যে ‘শেফ’ হয়ে গেলেন শচীন

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 2, 2018 8:11 am|    Updated: September 18, 2019 12:30 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কারও কাছে তিনি মাস্টারব্লাস্টার, কারও মতে ক্রিকেটের ঈশ্বর কিংবা বাইশ গজের রাজা। ক্রিকেট ছেড়ে দেওয়ার পর শচীন তেণ্ডুলকরকে নিয়ে ভক্তদের কৌতূহলের শেষ নেই। বর্ষবরণের রাতে বন্ধুদের রেঁধে-বেড়ে খাইয়েছিলেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক। সোশ্যাল মিডিয়ায় রাঁধুনি শচীনকে নিয়ে সেই ভিডিও এখন হট কেক।

[নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে ২০১৮ বার ঠান্ডা জলে ডুব যুবকের]

ভিডিওতে দেখা যায় কাবাব রাঁধছেন শচীন। ধোঁয়া এবং তীব্র আঁচে কিছুটা অস্বস্তি হলেও মুখে সেই শিশুসুলভ হাসি। রান্নার ফাঁকেই তিনি জানিয়ে দিলেন নিউ ইয়ার ইভে বন্ধুদের জন্যে রান্না করতে তিনি বেজায় খুশি। শুধু রান্না করেই থামা নয়, তৃপ্তির ঢেকুর তুলে শচীন টুইটারে লেখেন বন্ধুরাও চেটেপুটে খেয়েছেন। টুইটারে তাঁর ওই ভিডিও দ্রুত সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর অনুরাগীদের মন ভরিয়ে দেয়। নতুন বছরের শুরুতে শেফ-রূপী শচীনের ওই পোস্ট দেখে অনেকেই ধন্য ধন্য রব তোলেন।

[বরফের চাদরে ঢেকেছে সুবিশাল নায়াগ্রা ফলস, দেখুন ভিডিও]

কেউ লেখেন আক্ষরিক অর্থে লুকনো প্রতিভা। কারও মতে শচীন সব্যসাচী। কেউ টুইট করেন, ডান হাতে যেন বাইশ গজ শাসন করেছেন সেভাবে বাম হাতেও দাপট দেখাচ্ছেন। আরও একজনের টুইট ছিল ক্রিকেটের মতো হেঁশেলেও তিনি মাস্টারব্লাস্টার। কেউ লেখেন তাকে যদি এভাবে কেউ রান্না শিখিয়ে দিত তাহলে বর্তে যেতেন। কোনও শচীনভক্ত একধাপ এগিয়ে লেখেন তিনি শচীনের হাতের রান্নাই শুধু খাবেন। আর রান্না এবার আর মুখে তুলবেন না। এর মধ্যে কেউ কেউ পরামর্শের ঢঙে জানান, শচীনপাজির হেলমেট থাকলে ভাল হত। যদি কোনওভাবে মশলা ছিটকে ক্রিকেট ঈশ্বরের চোখে লাগে তাহলে খারাপ হত। যারা খাদ্যরসিক তাদের টুইটেও ছিল কৌতুকে ভরা। একজন লেখেন চোখের খিদে মিটল। শচীনের এই আমিষ পদ রান্না দেখে কেউ কেউ আবার দুঃখও পেয়েছেন। টুইটারে তাদের আবদার ছিল পরের বার নিশ্চয়ই ক্রিকেটের ঈশ্বর জমিয়ে আমিষ রান্না করবেন। মাস্টারব্লাস্টার থেকে মাস্টারশেফ। সোশ্যাল মিডিয়া এখন শচীন নিয়েই মশগুল।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement