BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘ব্যাট বল কিছুই পারত না’, আফ্রিদিকে তীব্র কটাক্ষ পাকিস্তানেরই প্রাক্তন অধিনায়কের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: July 23, 2020 4:42 pm|    Updated: July 23, 2020 6:42 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তিনি শাহিদ আফ্রিদি (Shahid Afridi)। একটা সময় বিশ্বের দ্রুততম শতরানের মালিক ছিলেন। বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ের জন্য অনুরাগীরা তাঁকে ডাকেন ‘বুম বুম’ আফ্রিদি বলে। বল হাতেও সাফল্য কম নেই। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পাঁচশোর বেশি উইকেট আছে তাঁর। কিন্তু এ হেন শাহিদ আফ্রিদিকে এবার নিজের দেশেই তীব্র কটাক্ষের শিকার হতে হল। তাও আবার প্রাক্তন পাকিস্তানি অধিনায়ক আমির সোহেলের (Aamer Sohail) কাছে। ১৯৯৯ বিশ্বকাপের কথা মনে করিয়ে সোহেল বললেন, সেসময় আফ্রিদি না ভাল বল করতে পারতেন। আর না ভাল ব্যাট করতে পারতেন।

Sohail

নিজের ইউটিউব চ্যানেলে এক ভিডিও বার্তায় আমির সোহেল বলছিলেন,”আমি যদি অধিনায়ক হতাম তাহলে ১৯৯৯-এর বিশ্বকাপে আফ্রিদিকে দলে নিতাম না। বরং মহম্মদ ইউসুফকে নিতাম।” সোহেলের মতে ভুল দল নির্বাচন এবং পরিকল্পনার অভাবের জন্যই পাকিস্তান ৯৯-এর বিশ্বকাপের ফাইনালে অস্ট্রেলিয়াকে হারাতে পারেনি। তিনি বলছিলেন,”৯৮-এ আমি যখন অধিনায়ক ছিলাম তখন ঠিক হয় আমরা এমন একজন ওপেনারকে সুযোগ দেব যে নতুন বলে টিকে খেলতে পারবে। আবার রানও করতে পারবে। আমার ইচ্ছে ছিল মহম্মদ ইউসুফকে বেছে নেওয়ার। বিশ্বকাপে আক্রামের বদলে আমি অধিনায়ক হলে ইউসুফকেই নিতাম।”

[আরও পড়ুন: IPL নয়, পাকিস্তান সুপার লিগের জন্য বিশ্বকাপ পিছিয়েছে ICC! প্রকাশ্যে চাঞ্চল্যকর তথ্য]

এরপরই আফ্রিদির দুর্বলতার কথা তুলে ধরেন সোহেল। তিনি বলেন,”কিন্তু সেসময় আফ্রিদিকে বেছে নেওয়া হয়। লো বাউন্সের উইকেটে ও ভালই খেলত। কিন্তু পরিস্থিতি যখন প্রতিকূল থাকে তখন সে না পারে ব্যাটিং করতে, না পারে বোলিং বোলিং।” সোহেলের মতে এই ভুল দল নির্বাচন এবং ফাইনালে টসে জিতে ব্যাটিং নেওয়ার ভুল সিদ্ধান্তের জন্যই পাকিস্তান সেবার বিশ্বকাপ জিততে পারেনি। অর্থাৎ আফ্রিদির পাশাপাশি সেসময়ের অধিনায়ক আক্রমকেও ছাড়লেন না সোহেল। উল্লেখ্য, ওয়াসিম আক্রমের নেতৃত্বে ৯৯-এর বিশ্বকাপের ফাইনালে ওঠে পাকিস্তান। কিন্তু ফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথমে ব্যাট করে মাত্র ১৩২ রানে অল-আউট হয়ে যায় পাক দল। যা ২১ অভারেই তুলে দেয় অজিরা। বিশ্বকাপের ৭ ম্যাচ মিলিয়ে মাত্র ৯৩ রান করেন আফ্রিদি।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement