BREAKING NEWS

১৭  মাঘ  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

সৌরভের জন্য এখনও খোলা আইসিসি চেয়ারম্যান হওয়ার রাস্তা! সিদ্ধান্ত বোর্ডের বার্ষিক সভায়

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: October 16, 2022 10:30 am|    Updated: October 16, 2022 10:36 am

Sourav Ganguly can still become ICC president, all depends on BCCI | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তিনি সিএবি সভাপতি পদের জন্য নির্বাচনে লড়বেন। শনিবার ক্রিকেট মহলকে কার্যত চমকে দিয়ে এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় (Sourav Ganguly)। বিসিসিআই থেকে রাজ্য ক্রিকেট সংস্থায় প্রত্যাবর্তনের সিদ্ধান্ত অনেককে অবাকও করেছিল। কিন্তু এখন শোনা যাচ্ছে, বিসিসিআইয়ের বিদায়ী সভাপতির আইসিসিতে (ICC) যাওয়ার রাস্তা এখনও পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায়নি। শেষ মুহূর্তে ভারতীয় বোর্ডের তরফে আইসিসিতে প্রার্থী হয়ে যেতে পারেন সৌরভ।

আগামী ১৮ অক্টোবর বোর্ডের বার্ষিক সাধারণ সভা (BCCI AGM)। সেদিন যেমন সরকারিভাবে বোর্ডে সৌরভের মেয়াদ শেষ হয়ে যাবে, তেমনি ঠিক হয়ে যাবে আইসিসির নির্বাচনে ভারতীয় বোর্ডের তরফে কাউকে প্রার্থী করা হবে কিনা। আর করা হলেও সেই প্রার্থী কে হবেন। বোর্ড (BCCI) মহল সূত্রে খবর, সৌরভের আইসিসি চেয়ারম্যান হওয়ার সম্ভাবনা এখনও আছে। আগামী ২০ অক্টোবর আইসিসির নির্বাচনের মনোনয়ন দেওয়ার শেষ দিন। আর সিএবি’র (CAB) মনোনয়ন দেওয়ার শেষদিন ২২ অক্টোবর। অর্থাৎ বোর্ডের বার্ষিক সাধারণ সভায় যদি বিদায়ী বোর্ড প্রেসিডেন্ট বিসিসিআইয়ের তরফে প্রার্থী হিসাবে নিজের নামটি নিশ্চিত করে নিতে পারেন, তাহলে হয়তো সিএবিতে মনোনয়ন না দিয়ে আইসিসিতে মনোনয়ন দেবেন তিনি।

[আরও পড়ুন: মাছ নয়, বাড়ির পুকুরে সাঁতরে বেড়াচ্ছে ৮ ফুট লম্বা কুমির, ত্রস্ত রায়দিঘি]

যদিও সবটাই নির্ভর করছে বিসিসিআইয়ের ক্ষমতাসীন গোষ্ঠীর উপর। জয় শাহরা (Jay Shah) কী চাইছেন, তার উপর নির্ভর করছে বিসিসিআই আদৌ আইসিসি নির্বাচনে নিজেদের তরফে প্রার্থী দেবে কিনা। আর দিলেও সেটা সৌরভ হবেন কিনা। কারণ আইসিসিতে প্রার্থী হওয়ার দৌড়ে রয়েছেন অনুরাগ ঠাকুরের (Anurag Thakur) মতো হেভিওয়েট কেন্দ্রীয় মন্ত্রীও। তবে শোনা যাচ্ছে, ১১ তারিখ বোর্ডের বৈঠকের পর যা পরিস্থিতি ছিল, সেটা এখন আর নেই। খানিকটা হলেও পরিস্থিতি সৌরভের অনুকূলে এসেছে। এর মধ্যে আবার বোর্ডের বিদায়ী কোষাধ্যক্ষ অরুণ ধুমল (Arun Dhumal) দাবি করেছেন, বোর্ডের বৈঠকে সৌরভকে কেউ কোনও কটু কথা শোনায়নি। সেটাও বেশ তাৎপর্যপূর্ণ।

[আরও পড়ুন: মুখ্যমন্ত্রীর অভিযোগেই সিলমোহর! বিহার থেকে বাংলায় ঢোকার আগে গরুবোঝাই গাড়ি আটক]

সব মিলিয়ে যা পরিস্থিতি রবিবার থেকে ২২ অক্টোবর পর্যন্ত সময়টা সৌরভের জন্য ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ। আগামী দু’দিনে বোর্ড রাজনীতিতে অনেক পটপরিবর্তন হতে পারে। আর সেটা সৌরভের অনুকূলে গেলে তিনি আইসিসির চেয়ারম্যান পদের জন্য ২০ তারিখ মনোনয়ন দিতে পারেন। আর না গেলে সিএবি সভাপতি হওয়ার রাস্তা তো খোলাই রয়েছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে