BREAKING NEWS

১৫  আষাঢ়  ১৪২৯  শুক্রবার ১ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‌রায়নাকে পুরোপুরি ছেঁটে ফেলতে চলেছে চেন্নাই সুপার কিংস!‌ বাড়ছে জল্পনা

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: August 31, 2020 7:11 pm|    Updated: August 31, 2020 7:11 pm

Suresh Raina unlikely to play for Chennai Super Kings again: Report

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ করোনা আবহেই শুরু হতে চলেছে IPL। তবে বাকি সাতটি দল বাদ দিয়ে সবার নজর এখন চেন্নাই সুপার কিংসের (Chennai Super Kings) দিকেই। দলের দুই ক্রিকেটার করোনা আক্রান্ত। এছাড়া একাধিক সাপোর্ট স্টাফের রিপোর্টও পজিটিভ। গোটা দল ৬ সেপ্টম্বর পর্যন্ত আইসোলেশনে। এই পরিস্থিতিতেও সবার মুখে প্রশ্ন সুরেশ রায়নাকে নিয়েই। কেন হঠাৎ করে দেশে ফিরে গেলেন রায়না?‌ উঠে আসছে তিনটে কারণ। আর এরপরই রায়নাকে দল থেকে বাদ দেওয়া নিয়েও নাকি আলোচনা শুরু হয়েছে। অর্থাৎ আর হয়তো হলুদ জার্সিতে দেখা যাবে বাঁ–হাতি এই ব্যাটসম্যানকে।

[আরও পড়ুন: রোহিত বনাম ধোনি নয়, আইপিএলের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি মুম্বই-আরসিবি?‌]

রায়নার দেশে ফিরে আসার পিছনে যে তিনটি কারণ উঠে আসছে, সেগুলি হল– ১.‌ দুষ্কৃতীদের হানায় পিসেমশায়ের মৃত্যু, ২.‌ দলের সহ–খেলোয়াড়দের করোনা আক্রান্তের খবরে ভয় পাওয়া এবং ৩.‌ হোটেলে যে রুমটি দেওয়া হয়েছিল সেটি পছন্দ না হওয়া। একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে চেন্নাই দলের এক কর্মী জানিয়েছেন, দলের নিয়মই হচ্ছে কোচ, অধিনায়ক এবং ম্যানেজার হোটেলে স্যুট পাবেন। তবে রায়নাও বরাবরই একটি স্যুট পেয়ে থাকেন। তবে এবারের রুমে কোনও ব্যালকনি ছিল না। আর সেটাই নাকি বাঁ–হাতি এই ক্রিকেটারের রাগের কারণ। এর উপর দলের খেলোয়াড়দের করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর শাপে বর হিসেবে দেখা দেয়। আর তাই টিম ম্যানেজমেন্ট এবং স্বয়ং ধোনি (Mahendra Singh Dhoni) বোঝালেও শোনেননি তিনি। আর এরপরই রায়নাকে পুরোপুরি দল থেকে বাদ দেওয়ার কথা ভাবছে টিম ম্যানেজমেন্ট। সিএসকের ওই আধিকারিক এই প্রসঙ্গে জানান, এমনিতেও এবারের আইপিএলে রায়নাকে পাওয়া যাবে না। পরের বারও হয়তো ওঁকে আর দলে রাখা হবে না। কারণ এবারের ঘটনায় অনেকেই ক্ষুব্ধ হয়েছেন। সেক্ষেত্রে নিলামে উঠবে রায়নার নাম। সেখান থেকে কোনও ফ্র‌্যাঞ্চাইজি চাইলে তাঁকে দলে নিতে পারবে।

[আরও পড়ুন: ব্যাট হাতে বাজিমাত বাবরের, কোহলিকে পিছনে ফেলে নয়া রেকর্ড গড়লেন পাক অধিনায়ক]

এদিকে, উলটোদিকে কেদার যাদবের (Kedar Jadav) একটি টুইট ঘিরে দেখা দিয়েছে বিতর্ক। এদিন টুইটারে কেদার লেখেন, ‘‌‘কোনও কিছুতে সেরা হতে গেলে সেটি না করার ১০০টি কারণ সামনে আসবে, আর কেবল একটি কারণ বলবে কেন তোমাকে ওই কাজটি করতেই হবে। এবার তোমার পছন্দ!‌‌’‌’‌ আর এটি দেখেই অনেকেই বলছেন, নাম না করে রায়নাকেই যেন কটাক্ষ করলেন কেদার!

‌On the path of excellence – you find 1000 excuses to let go, but only 1 reason to hold on. 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে