Advertisement
Advertisement

Breaking News

ICC ODI World Cup 2023

ICC ODI World Cup 2023: চার বছর পর মধুর প্রতিশোধ, উদ্বোধনী ম্যাচে ইংল্যান্ডকে উড়িয়ে দিল নিউজিল্যান্ড

রবীন্দ্র-কনওয়ের জোড়া শতরানে দাপুটে জয়।

Twin century of Devon Conway and Rachin Ravindra helped New Zealand beat England। Sangbad Pratidin

জয়ের দুই নায়ক। দুই অপরাজিত শতরানকারী। ডেভন কনওয়ে ও রাচীন রবীন্দ্র।

Published by: Sabyasachi Bagchi
  • Posted:October 5, 2023 8:41 pm
  • Updated:October 6, 2023 4:10 pm

ইংল্যান্ড: ২৮২/৯ (জো রুট ৭৭, জস বাটলার ৪৩, ম্যাট হেনরি ৩/৪৮)
নিউজিল্যান্ড: ২৮৩/১ (ডেভন কনওয়ে ১৫২*, রাচীন রবীন্দ্র ১২৩*)
নিউজিল্যান্ড ৯ উইকেটে জয়ী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একেই বলে বদলা নেওয়া। চার বছর আগে লর্ডসে আয়োজিত বিশ্বকাপ ফাইনালে (ICC ODI World Cup 2019) নিউজিল্যান্ড (New Zealand) কীভাবে হেরে গিয়েছিল সেটা ক্রিকেট দুনিয়া জানে। ঠিক চার বছর পর এবারের বিশ্বকাপের (ICC ODI World Cup 2023) উদ্বোধনী ম্যাচ। আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে গতবারের চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ডের (England) গর্ব-দর্প সব চূর্ণ করে দিল কিউইরা। ডেভন কনওয়ে (Davon Conway) এবং রাচীন রবীন্দ্রর (Rachin Ravindra) অপরাজিত ২৭৩ রানের জুটির উপর ভর করে জস বাটলারের (Jos Buttler) দলকে ৯ উইকেটে হারিয়ে দিল গতবারের রানার্স দল। কনওয়ে ১২১ বলে ১৫২ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন। তাঁর ইনিংস ১৯ টি চার ও ৩ টি ছক্কা দিয়ে সাজানো ছিল। তরুণ রবীন্দ্র ৯৬ বলে ১২৩ রানে অপরাজিত ছিলেন। তিনি মারেন ১১টি চার ও ৫ছক্কা। 

Advertisement

বৃহস্পতিবার অর্থাৎ ৫ অক্টোবর টসে জিতে বল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন কিউই অধিনায়ক টম ল্যাথাম (Tom Latham)। ইংল্যান্ডের তারকাখচিত ব্যাটিং লাইন আপ সামনে ছিল। অনেকেই মনে করেছিলেন কেন উইলিয়ামসন-বিহীন (Kane Williamson) কিউই ব্যাটিং রান চেজ করতে গিয়ে চাপে পড়ে যাবে। দুই ইংরেজ ওপেনার জনি বেয়ারস্টো ও ডাউইদ মালান মারকুটে মেজাজে শুরুটা করলেও, ম্যাট হেনরি ও মিচেল স্যান্টনারের দাপটে নিয়মিত ব্যবধানে উইকেট হারাতে থাকে ইংল্যান্ড। ফলে একটা সময় ১১৮ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ব্যাকফুটে চলে যায় সাহেবরা।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ফাঁকা স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচ, গ্যালারি ভরাতে টোটকা বীরুর]

সেখান থেকে জো রুট ও জস বাটলারের ব্যাটের উপর ভর করে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করে গতবারের চ্যাম্পিয়নরা। তবে পঞ্চম উইকেটে দু’জন ৭০ রান যোগ করার পরেই, আউট হয়ে যান ইংল্যান্ডের অধিনায়ক বাটলার। তিনি ৪২ বলে ৪৩ রানে ফিরে যান। রুট ৮৬ বলে ৭৭ রানে আউট হন। এরপর আর কোনও ব্যাটার বড় রান তুলতে পারেনি। ফলে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেটে ২৮২ রানে আটকে যায় ইংল্যান্ড।

রান তাড়া করতে নেমে মাত্র ১০ রানের মাথায় খালি হাতে ফিরে যান ওপেনার উইল ইয়ং। তবে দ্রুত ধাক্কা দিলেও সফল হয়নি ইংল্যান্ড। কারণ দ্বিতীয় উইকেটে ডেভন কনওয়ে ও রবীন্দ্রর অবিচ্ছেদ্য ২৭৩ রানের জুটি ম্যাচের ভাগ্য বদলে দেয়। দুই বাঁ হাতিই শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ইংরেজ বোলারদের মহড়া নেয়। একদিকে কনওয়ে দীর্ঘ অনেক বছর ধরে আইপিএল-এ চেন্নাই সুপার কিংসে খেলার সুবাদে ভারতের পিচকে খুব ভালোভাবে চেনেন। পিছিয়ে ছিলেন না রবীন্দ্র। ছোটবেলা থেকে ভারতের মাটিতে বয়স ভিত্তিক ক্রিকেট খেলেছেন। আর তাই সেই অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে বিশ্বকাপে নিজের প্রথম ম্যাচেই দাপটের সঙ্গে শতরান সেরে নিলেন। ফলে ১৪.৪ ওভার অর্থাৎ ৮২ বল বাকি থাকতেই ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ৯ উইকেটে বদলার জয় ছিনিয়ে নিল নিউজিল্যান্ড। 

[আরও পড়ুন: বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচেই ফাঁকা স্টেডিয়াম, উন্মাদনা কি কমছে?]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ