১০ ফাল্গুন  ১৪২৬  রবিবার ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

স্টাফ রিপোর্টার: রবি শাস্ত্রী বলছেন, দলে এমন লড়াই ভাল। একটা জায়গায় অনেকের ভিড়। কাকে বাদ দিয়ে কাকে খেলানো হবে, তা নিয়ে কিছুই বলা যাচ্ছে না। এই ধরণের সুস্থ লড়াই দলের পক্ষে সব সময় ভাল। বিরাট কোহলিকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলছেন, ‘স্পাইসি প্রশ্ন’। বৃহস্পতিবার অকল্যান্ডে ফোন করে জানা গেল, প্রথম একাদশ নিয়ে ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট অস্বস্তিতে। কাকে খেলানো হবে? এটা বিকেলে পরিস্কার হল না। প্র্যাকটিসে যে ছবি মিলেছে, তা দেখে লিখে দেওয়া যায় কোহলি দলে একজন পেসার অলরাউন্ডার দলে চান। শামি, বুমরাহর সঙ্গে তাঁকে দিয়ে তিন নম্বর পেসারের কাজ করানো যাবে। সিমিং উইকেটে চার পেসার থাকলে অসুবিধা নেই। সঙ্গে দুই স্পিনার।

শিখর দল থেকে সরে দাঁড়ানোয় একটা ব্যাপার নিশ্চিত হয়ে গিয়েছে যে রোহিতের সঙ্গে ওপেন করবেন কেএল রাহুল। তারপর কোহলি, শ্রেয়াস, মনীশ।। পাঁচ নম্বর পর্যন্ত ব্যাটিং নিয়ে ভাবনা নেই। তারপর? ছ’নম্বর নিয়ে যত কথা। সাত থেকে রাস্তা সহজ। জাদেজা, কুলদীপ, শামি, সাইনি এবং বুমরাহ। লোয়ার অর্ডারে রান তোলার কথা ভাবা হলে সাইনির সঙ্গে লড়াই শার্দূলের। তবে এই লড়াইয়ে সাইনির কথাই ভাবা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে কোহলিদের অতীত পরিসংখ্যান শোচনীয়, চিন্তায় ক্রিকেটপ্রেমীরা]

ছয় নিয়ে কী হবে? ইডেন পার্কের ছবি যাঁরা দেখেছেন, তাঁরা জানেন মাঠের চেহারা কেমন। এমনিতে নিউজিল্যান্ডের মাঠ বেশি বড় নয়। তার উপর ইডেন পার্কের উইকেটের পিছনের জায়গা অনেকটাই ছোট। তাই বোলারকে স্ট্রেট ড্রাইভে মাঠের বাইরে পাঠানো কঠিন নয়। এ কথা ভেবে ঋষভের নাম আসছে। পেসার বা স্পিনারকে মাথার উপর দিয়ে মাঠের বাইরে ফেলতে পারেন ঋষভ। তাঁর কিপিংয়ের থেকে ব্যাটিংকে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। তবে ঋষভ খেললে রাহুলকে কিপ করতে দেখা যাবে না। পাঁচ বোলার নিয়ে এই কম্বিনেশনে যেতে পারেন কোহলি। কিন্তু কোহলির মাথায় অন্য ভাবনা ঘুরছে। তিনি সিমার অলরাউন্ডার দলে চান। কপিল দেব জমানা থেকে শুরু হয়ে পাণ্ডিয়া পর্যন্ত এলে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে, সাত নম্বর জায়গায় একজন সিমার অলরাউন্ডার আসছেন। বোলিংয়ের সঙ্গে তাঁর ব্যাটের হাত ভাল হতে হবে। কোহলি চান ব্যাটিং যেন ভাল হয়। এই স্ট্র্যাটেজিতে খেলতে গেলে আলোচনায় শিবম দুবের নাম আসছে।

এদিকে, দেশের মাটিতে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ওয়ানডে সিরিজ শেষের পাঁচ দিনের মধ‌্যে নিউজিল‌্যান্ডের বিরুদ্ধে তাদের দেশে নেমে পড়তে হচ্ছে বিরাট কোহলির ভারতকে। সম্পূর্ণ অন‌্য পরিবেশে। যা নিয়ে খুব একটা খুশি নন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। বরং ঠাসা ক্রিকেটসূচিকে খোঁচা দিয়ে রাখলেন তিনি। নিউজিল‌্যান্ডের বিরুদ্ধে পাঁচটা টি-টোয়েন্টি, তিনটে ওয়ান ডে এবং দু’টো টেস্ট খেলবে ভারতীয় টিম। শুক্রবার প্রথম টি-টোয়েন্টি। ‘‘এমন দিন আসছে যখন ফ্লাইট থেকে সোজা স্টেডিয়ামে নেমে খেলা শুরু করে দিতে হবে! ক্রিকেট ঠিক এতটাই ঠাসা হয়ে যাচ্ছে দিন দিন। একটা সম্পূর্ণ অন‌্য জায়গায় এসে, ভারতীয় সময়ের সঙ্গে যে দেশের সময়ের তফাত সাত ঘণ্টার, মানিয়ে নেওয়া সহজ নয়,’’ বলে দিয়েছেন কোহলি।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং