BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

জাতীয় দলে সিকিমের চাষির মেয়ে করিশমা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: August 28, 2016 2:41 pm|    Updated: August 28, 2016 2:41 pm

An Images

স্টাফ রিপোর্টার, শিলিগুড়ি: ফের জাতীয় ফুটবল দলে সিকিমের মেয়ে৷ এবার সিকিমের রাবাংলার চাষি পরিবারের মেয়ে করিশমা রাই অনূর্ধ্ব ১৬ জাতীয় দলের হয়ে এএফসি কাপ খেলতে এখন চিনে৷ রবিবার থেকে চিনের ওয়াইফাংয়ে শুরু হচ্ছে এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশনের যোগ্যতা নির্ণায়ক পর্বের খেলা৷

এর আগে অনূর্ধ্ব ১৪ পর্যায়েও জাতীয় দলে খেলেছে করিশমা৷ আরও একবার জাতীয় শিবিরে সুযোগ পাওয়ায় খুশি তার পরিবার ও সিকিম ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যরা৷ উচ্ছ্বসিত ভারতীয় ফুটবলের আইকন প্রাক্তন অধিনায়ক বাইচুং ভুটিয়া৷ তিনি বলেন, “আমি নিজে সিকিমের ছেলে বলে জানি, সিকিমের ক্রীড়াকর্তারা খেলোয়াড়দের পিছনে কী অসম্ভব পরিশ্রম করেন৷ ফলে করিশমার মতো তারকা আগামী দিনেও এই এলাকা থেকে উঠে আসবে, এটা হলফ করে বলতে পারি৷” বাইচুং উত্তরবঙ্গ ক্রীড়া উন্নয়ন পর্ষদের চেয়ারম্যান পদেও রয়েছেন৷ ফলে এখান থেকেও যাতে জাতীয় পর্যায়ের খেলোয়াড় তুলে আনা যায় তিনি সেই চেষ্টা করবেন বলে জানিয়েছেন৷

এর আগে সিকিম থেকে লাখোফুটি ভুটিয়া মেয়েদের সিনিয়র জাতীয় দলে খেলেছেন৷ তারপর বহুদিন সিকিম থেকে মেয়েদের দলে কোনও প্রতিনিধি ছিল না৷ ফলে করিশমাকে ঘিরে খুশি সিকিম ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যরা৷ সংগঠনের সম্পাদক মেনলা এথেংপা বলেন, “এর আগে সিকিম থেকে বাইচুং ভুটিয়া, নির্মল ছেত্রী, সঞ্জু প্রধানরা জাতীয় ও আন্তর্জাতিক স্তরে দাপিয়ে খেলেছেন৷ তুলনায় মেয়েদের সাফল্য কম৷ এর আগে লাখোফুটিই একমাত্র প্রতিনিধি ছিলেন৷ সেদিক থেকে করিশমা নতুন মেয়েদের কাছে আদর্শ৷”

সাধারণ কৃষক পরিবারের মেয়ে করিশমা৷ বাবা এলবি রাই পাহাড়ি জমিতে সবজি ফলিয়ে বিক্রি করে যে আয় হয়, তা দিয়েই কোনওমতে চলে সংসার৷ মা সুখামায়াদেবী মাঠে চাষের কাজ করেন৷ তাঁর দাবি, “করিশমা যে কাজই করে, মন দিয়ে করে৷ প্র্যাকটিসে যাওয়ার আগে বাড়ির কাজ, নিজের স্কুলের পড়া, হোমটাস্ক শেষ করে তারপর ফুটবল মাঠে যায়৷” ভারতের মহিলা ফুটবল দলের অধিনায়ক হতে চান করিশমা৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement