BREAKING NEWS

৭ মাঘ  ১৪২৮  শুক্রবার ২১ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

কলকাতা লিগের আগেই বড়সড় পরিবর্তন ইস্টবেঙ্গলে, বদলে যেতে পারে নামও

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 29, 2018 9:05 am|    Updated: May 29, 2018 11:51 am

East Bengal snaps ties with UB Group

ফাইল ছবি

সংবাদ প্রতিদিন, ডিজিটাল ডেস্ক : ইউবির সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার জন্য কর্তাদের অনুমতি দিল ইস্টবেঙ্গলের কার্যকরী কমিটি। ফলে দীর্ঘ ২০ বছরের স্পনসরের সঙ্গে সম্পর্ক শেষ হতে চলেছে লাল-হলুদের।

[এভাবেও ফিরে আসা যায়! বোঝালেন ধোনি, বোঝাল চেন্নাই]

সোমবার সন্ধ্যায় ক্লাবে আলোচনায় বসেছিলেন লাল-হলুদের কার্যকরী সমিতির সদস্যরা।স্পনসরশিপের জন্য ইউবির তরফে কি কি শর্ত দেওয়া হয়েছে, তা জানানো হয় কমিটির সদস্যদের। এরপর সদস্যরা বলেন যে, ইউবি যে টাকা স্পনসরশিপ বাবদ দেওয়ার কথা বলছে, তাতে ইস্টবেঙ্গলের মতো বড় ও ঐতিহ্যশালী ক্লাবের টাইটেল স্পনসর থাকা যায় না। ঠিক হয় যত দ্রুত সম্ভব এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দেওয়া হবে ইউবি-কে। এবং বিচ্ছেদ সংক্রান্ত আইনী কাজও শুরু করে দেওয়া হবে।

[তোমার মেয়েকে খুন করব, চ্যাম্পিয়ন্স লিগে হারের পর হুমকির মুখে লিভারপুল গোলকিপার]

ইস্টবেঙ্গলকে এই সিদ্ধান্ত নিতে অবশ্য সাহায্য করেছে ইউবি কর্তাদের অনড় মনোভাব। কলকাতায় হওয়া শেষ মিটিংয়ের পর ইস্টবেঙ্গল ইউবি-কে জানায় হয় তারা বাজেট বাড়াক, নাহলে সরে দাঁড়াক। উত্তরে ইউবির তরফে সাফ জানানো হয়, বাজেট বাড়ানো সম্ভব নয়। তবে ইস্টবেঙ্গল যদি টাইটেল স্পনসর হিসাবে তাদের রাখতে রাজি না থাকে, সেক্ষেত্রে তারা অন্যভাবেও স্পনসর করতে রাজি। এদিনের বৈঠক প্রসঙ্গে সচিব কল্যাণ মজুমদার বলেন, “শেষ বোর্ড মিটিংয়ে ইউবি তাদের বাজেট জানিয়ে স্পষ্ট বলে দিয়েছিল তার বেশি টাকা দেওয়া সম্ভব নয়। পরে এও বলে যে টাইটেল স্পনসর না হলেও তারা স্পনসর হিসাবে থাকতে চায়। কিন্তু আজ আমরা সিদ্ধান্ত নিলাম যে, আর ওদের সঙ্গে থাকা হবে না।”

[চেন্নাইকে জেতানোর পরেও ধোনিকে ছাপিয়ে প্রচারের সব আলো কেড়ে নিল এরাই]

আপাতত বেশ কয়েকটি সংস্থার সঙ্গেই নাকি কথাবার্তা অনেকটা এগিয়েছে। যতদিন তা না হচ্ছে, ততদিন কী হবে? উত্তরে সচিব বলেন, “স্পনসর আসে। স্পনসর যায়। প্রতিষ্ঠান একইরকম থাকে। আপাতত ব্যক্তিগত উদ্যোগেই অর্থের সংস্থান করা হবে। কলকাতা লিগ বা শিল্ড খেলতে তেমন সমস্যা নেই। আই লিগের আগে স্পনসর চূড়ান্ত করে নতুন কোম্পানি গঠন করতে হবে। সেই কাজও দ্রুত শুরু হয়ে যাবে। ততদিন স্পনসরের নাম ছাড়া ইস্টবেঙ্গল ফুটবল ক্লাব নামেই আমরা খেলব।” আইএফএ শিল্ড এখন বয়সভিত্তিক। সেখানে নতুন স্পনসর এনে কড়াকড়ির ব্যাপার নেই। তাছাড়া জুনিয়র দলে বাজেটেরও তত চাপ নেই। তাই বেশ কয়েকটি সংস্থার সঙ্গে কথাবার্তা অনেকদুর এগিয়ে গেলেও সময় থাকায় ধীরেসুস্থে স্পনসর সংক্রান্ত বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে চাইছে ইস্টবেঙ্গল।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে