BREAKING NEWS

১৫  আষাঢ়  ১৪২৯  শুক্রবার ১ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

দুনিয়া কাঁপাচ্ছে ইউরোপের পাওয়ার ফুটবল, ফের প্রমাণিত রাশিয়া বিশ্বকাপে

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 7, 2018 2:19 pm|    Updated: July 7, 2018 2:19 pm

European teams challenge Latin American hegemony in Football World cup

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইউরোপ এবং লাতিন আমেরিকা, দুই পৃথক ফুটবল ঘরানা৷ ফুটবলপ্রেমীদের কেউ কেউ বলে থাকেন ইউরোপের ফুটবল মানে পাওয়ার ফুটবল, শক্তি, গতি আর ক্ষীপ্রতার মেলবন্ধন৷ আর ল্যাটিন আমেরিকা অর্থাৎ ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা উরুগুয়ের ফুটবল মানে শিল্প, স্কিলের ফুলঝুরি, দুর্দান্ত ড্রিবলিং৷ ধারণাটা অনেকটাই বদলেছে, চেনা স্কিল যেন হারিয়ে ফেলছে লাতিন আমেরিকা৷ আর ইউরোপের পাওয়ার ফুটবলের সঙ্গে যোগ হয়েছে ড্রিবলিং দক্ষতাও৷ নেইমার, মেসিরা যেখানে পায়ের কাজ দেখিয়ে দু’জনকে ড্রিবল করেও প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডারের শক্তির কাছে হার মানছে৷ সেখানে ইডেন হ্যাজার্ড, রোনাল্ডো বা হ্যারি কেনরা দুর্দান্ত গতি, ড্রিবলিং স্কিল এবং শক্তির সংমিশ্রণে অবলীলায় পরাস্ত করছেন বিপক্ষকে৷ আর সম্ভবত সেকারণেই লাতিন আমেরিকাকে ক্রমাগত টেক্কা দিতে শুরু করেছে ইউরোপ৷ বিশ্বকাপের পরিসংখ্যান অন্তত সেকথাই বলছে৷

[নিজেদের দোষেই ডুবল ব্রাজিল, পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নদের হারিয়ে শেষ চারে বেলজিয়াম]

শেষবার ২০০২ সালে বিশ্বকাপ জিতেছিল ব্রাজিল৷ তারপর লাতিন আমেরিকার আর কোনও দেশ বিশ্বচ্যাম্পিয়নের খেতাব দখল করতে পারেনি৷ গত বিশ্বকাপে অবশ্য রানার্স-আপ হয়েছিল আর্জেন্টিনা৷ এর বাইরে সাফল্য বলতে শুধু উরুগুয়ের বার দুই সেমিফাইনালে ওঠা, আর গত বিশ্বকাপের সেমিতে ব্রাজিলের বিশ্রী হার৷ এবারের বিশ্বকাপেও নজিরবিহীনভাবে আধিপত্য দেখা গেল ইউরোপের দলগুলিরই৷ জার্মানি, স্পেনের মতো নামী ইউরোপীয় দলগুলি ছিটকে গেলেও বিশ্বকাপের আট কোয়ার্টার ফাইনালিস্টের মধ্যে ৬ টি দলই ছিল ইউরোপের৷ যে দুটি লাতিন আমেরিকার দল অবশিষ্ট ছিল তারাও ছিটকে গেল কোয়ার্টার থেকেই৷ ফলে পঞ্চমবারের মতো অল-ইউরোপ সেমিফাইনালের সাক্ষী থাকতে চলেছে ফুটবল বিশ্ব৷

[বিশ্বকাপে অব্যাহত ফরাসি বিপ্লব, মুসলেরার ভুলেই স্বপ্নভঙ্গ উরুগুয়ের]

এর আগে চারবার অল-ইউরোপ সেমিফাইনাল দেখেছে ফুটবলবিশ্ব৷ ১৯৩৪ সালে সেমিফাইনাল খেলেছিল ইটালি, জার্মানি, অস্ট্রিয়া, চোকোস্লোভাকিয়া৷ ১৯৬৬ সালে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটে৷ সেবার সেমিতে খেলেছিল ইটালি, জার্মানি, পর্তুগাল, সোভিয়েত ইউনিয়ন৷ ১৯৮২’ তেও অল ইউরোপ সেমিফাইনালের সাক্ষী ছিল বিশ্ব৷ এবার শেষচারের লড়াইয়ে ছিল ইটালি, জার্মানি, ফ্রান্স, পোল্যান্ড৷ সর্বশেষ অল-ইউরোপ সেমিফাইনাল হয়েছিল ২০০৬ সালে৷ সেবারে সেমিফাইনালে খেলে ইটালি, ফ্রান্স, জার্মানি, পর্তুগাল৷ প্রতিক্ষেত্রেই জার্মানি এবং ইটালির উজ্জ্বল উপস্থিতি লক্ষ্যনীয়৷ কিন্তু এবছর দু’দলের কোনওটিই নেই শেষ চারে৷ ফুটবল বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এবারের বিশ্বকাপে এখনও পর্যন্ত সারমর্ম একটাই, তথাকথিত বড় দলগুলির প্রাধান্য গুড়িয়ে দিয়ে উঠে আসছে ছোট দলগুলি৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে