Advertisement
Advertisement

Euro 2020: বেলজিয়ামের স্বপ্ন শেষ, সেমিফাইনালে ম্যানচিনির ইটালি

শেষ চারে ইটালির সামনে স্পেন।

Euro 2020: Italy wins against Belgium and through to the Semi Final | Sangbad Pratidin
Published by: Krishanu Mazumder
  • Posted:July 3, 2021 2:36 am
  • Updated:July 3, 2021 3:07 am

ইটালি- (বারেলা, ইনসিনিয়ে)
বেলজিয়াম (লুকাকু পেনাল্টি)

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইউরো কাপে (Euro Cup 2020) মেঘের উপর দিয়ে হাঁটছেন ইটালির কোচ রবার্তো ম্যানচিনি। যা ধরছেন, তাতেই সোনা ফলাচ্ছেন। কোয়ার্টার ফাইনালে ইটালির (Italy) অশ্বমেধের ঘোড়া থামাতে পারল না বেলজিয়ামও। ‘রেড ডেভিলস’দের ১-২ গোলে হারিয়ে সেমিফাইনালের টিকিট জোগাড় করে নিল ইটালি। শেষ চারে আজুরিদের সামনে এবার স্পেন। 

Advertisement

বেলজিয়াম-ইটালি ম্যাচের বল গড়ানোর আগে বিশেষজ্ঞরা বলছিলেন, এবার আসল পরীক্ষা ইটালির। বেলজিয়ামে (Belgium) রয়েছেন রোমেলু লুকাকু, ডি’ব্রুইনের মতো তারকা ফুটবলার। ফিফার বিচারে বেলজিয়াম একনম্বর দলও। এরকম দল যে কোনও মুহূর্তে ম্যাচের রং বদলে দিতে পারে। সেই বেলজিয়ামও ইটালির মায়াজালে ম্লান হয়ে গেল অ্যালিয়াঞ্জ এরেনায়। 

Advertisement

[আরও পড়ুন: ইনস্টাগ্রামে একটা পোস্ট থেকে উপার্জনে শীর্ষে রোনাল্ডো, প্রথম কুড়িতে কোহলিও! জানেন আয় কত?]

ইন্টার মিলানকে চ্যাম্পিয়ন করে ইউরো কাপ খেলতে এসেছিলেন লুকাকু। ইটালিতে খেলার সুবাদে প্রতিপক্ষকে খুব ভালই চেনেন তিনি। সেই লুকাকু পেনাল্টি থেকে গোল করলেও সহজ সুযোগ নষ্ট করলেন। দ্বিতীয়ার্ধে তাঁর পুশ ইটালির জালে জড়ানোর আগে ব্লক করে দলকে বাঁচান স্পিনাজোলা। ইটালি তখন এগিয়ে রয়েছে ২-১ গোলে। এই স্পিনাজোলাই অবশ্য পরে চোটের জন্য উঠে যান। শেষ চারে তাঁকে ম্যানচিনি পাবেন কিনা সন্দেহ। 

আজুরিদের এগিয়ে দিয়েছিলেন বারেলা। খেলার বয়স তখন ৩১ মিনিট। বেলজিয়ামের ডিফেন্সকে সম্মোহীত করে গোল করে যান তিনি। ইটালির দ্বিতীয় গোলটি আসে ইনসিনিয়ের পা থেকে। ওরকম গোল দেখার জন্য হাজার মাইল পথ হাঁটা যায়। তবে দুটো গোলের ক্ষেত্রেই বেলজিয়ামের রক্ষণভাগের দোষ রয়েছে। ইনসিনিয়ে অনেক সময় পেয়ে গিয়েছিলেন। প্রায় মাঝমাঠ থেকে বল নিয়ে দৌড়ে বেলজিয়ামের বক্সের উপর থেকে ডান পায়ের বাঁক খাওয়ানো শট নেন। কুর্তোয়া শরীর ছুড়ে দিয়েও সেই বল বাঁচাতে পারেনি। গোল করার পরে ইনসিনিয়ে যখন উৎসবে ব্যস্ত অন্য প্রান্তে দাঁড়িয়ে থাকা লুকাকুর চোখে শূন্যতা। তাঁর সতীর্থরা ইনসিনিয়েকে গোল করার সুযোগ করে দিলেন, সেটাই হয়তো বিশ্বাস করে উঠতে পারছিলেন না লুকাকু।  

বেলজিয়াম বিরতির ঠিক আগে ব্যবধান কমায়। পেনাল্টি বক্সের ভিতরে ডোকুকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেন ডি’ লোরেঞ্জো। পেনাল্টি দেন রেফারি। সেই পেনাল্টি থেকেই গোল করেন লুকাকু। বিরতির পর বেলজিয়াম সমতা ফেরানোর মরিয়া চেষ্টা করে। একাধিক বার ইটালির রক্ষণে কাঁপুনি ধরান ডি’ব্রুইন-লুকাকুরা। কিন্তু ইটালির ডিফেন্স ভাঙা সম্ভব হয়নি। গোলের দরজাও খুলতে পারেনি বেলজিয়াম। এই ইটালি যেমন আক্রমণে দক্ষ তেমনই পটু রক্ষণে। 

[আরও পড়ুন: Euro 2020: কাজে এল না সমারের মরিয়া লড়াই, টাইব্রেকারে ম্যাচ জিতে শেষ চারে স্পেন]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ