BREAKING NEWS

২৪  মাঘ  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

FIFA WC 2022: পেনাল্টি আদায়ে জিনিয়াস রোনাল্ডো! প্রশংসায় স্বয়ং ফিফা কর্তারাই

Published by: Sulaya Singha |    Posted: November 27, 2022 2:44 pm|    Updated: November 27, 2022 2:44 pm

FIFA official praising Cristiano Ronaldo's way to get penalty in World Cup | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ঘানা ম্যাচের পর তখনও সাংবাদিক সম্মেলনে আসেননি ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। তার আগেই সাংবাদিক সম্মেলনে এসে পেনাল্টি থেকে করা রোনাল্ডোর গোল নিয়ে একের পর এক বিদ্রুপাত্মক মন্তব্য করে যাচ্ছিলেন ঘানার কোচ অটো আডো। পেনাল্টি থেকে গোল করে পর পর পাঁচটা বিশ্বকাপে গোল করার অনন্য রেকর্ড করেছেন রোনাল্ডো। আর তখনই পেনাল্টি ইস্যুতে রেফারির উদ্দেশে একের পর এক তির্যক মন্তব্য করে যাচ্ছিলেন ঘানার কোচ। রোনাল্ডোর রেকর্ড প্রসঙ্গে জিজ্ঞাসা করলেই বলে উঠেছিলেন, “ধন্যবাদটা রোনাল্ডোকে না দিয়ে বরং রেফারিকে দিন। উনিই রোনাল্ডোকে আজ গোলটা পাইয়ে দিলেন।”

ঘানা কোচের এহেন মন্তব্যের পর বিশ্বকাপ (FIFA World Cup 2022) জুড়ে রোনাল্ডোর সেই পেনাল্টি নিয়ে বিতর্ক হয়েই চলেছে। অন্যান্য ক্ষেত্রে ভারের সুবিধা নিলে, সেদিন কেন তাহলে ভারের সুবিধা নিলেন না রেফারি? এবার খোদ ফিফার টেকনিক্যাল স্টাডি গ্রুপের সদস্য সানডে ওলিস পেনাল্টি পাওয়ার প্রসঙ্গে রোনাল্ডোর (Cristiano Ronaldo) বুদ্ধিমত্তার প্রশংসা করে বসলেন।

সেদিন ঘানার ফুটবলার মোহামেদ সালিসুর পায়ের সঙ্গে পা লেগে বক্সের ভিতর পড়ে যান সিআর সেভেন। আর তা নিয়েই বিতর্ক। কিন্তু এদিন খোদ ফিফা (FIFA) কর্তা প্রশংসা করে বসলেন রোনাল্ডোর! এমনকী পেনাল্টি আদায়ের ক্ষেত্রে সিআর সেভেনকে (CR7) জিনিয়াসও বলে ফেলেন তিনি। ফিফার টেকনিক্যাল স্টাডি গ্রুপের সদস্য সানডে ওলিসে ’৯৮-এর বিশ্বকাপে খেলেছিলেন নাইজরিয়ার হয়ে। দোহাতে পর্তুগিজ তারকার প্রশংসা করে বলেন, “পেনাল্টি আদায় করাটাও একটা আর্ট। আর কীভাবে পেনাল্টি আদায় করতে হয় সবার থেকে রোনাল্ডো একটু বেশিই ভাল জানে। তবে সব মিলিয়েই প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে পেনাল্টি আদায়ের ক্ষেত্রে স্ট্রাইকাররা এখন অনেক বেশি স্মার্ট হচ্ছে।”

পেনাল্টি পাওয়ার ক্ষেত্রে রোনাল্ডোর বারবার সুবিধে পাওয়া নিয়ে ফুটবল সমর্থকরা সমালোচনা করতেও ছাড়েন না। সেই সম্পর্কেও মন্তব্য করেছেন সানডে। বলেছেন, “রোনাল্ডোর পেনাল্টি পাওয়া নিয়ে সমর্থকরা যা খুশি বলতেই পারেন। কিন্তু ওই অল্প সময়ের মধ্যে বক্সের ভিতরে পৌঁছে যাওয়া, বল স্পর্শ করা আর তারপরই প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডারের সঙ্গে পায়ে পা লাগিয়ে পড়ে যাওয়া- এইসব কিছুই একসঙ্গে করা জিনিয়াস ছাড়া সম্ভব নয়। তবে শুধু রোনাল্ডো নয়। আমার মূল্যায়ন হল, পেনাল্টি পাওয়ার ক্ষেত্রে এখন স্ট্রাইকাররা অনেক বেশি চতুর হয়ে গিয়েছে।”

সারা পৃথিবীতেই বিভিন্ন ফুটবল প্রতিযোগিতায় এখন পেনাল্টির সংখ্যা বেড়ে যাওয়ার কারণ হিসেবে ফিফা স্টাডি গ্রুপের এই সদস্য বলেন, “ভিআর সিস্টেম (VAR) চালু হওয়ার পরেই রেফারিদের পেনাল্টি দেওয়ার সিদ্ধান্তর সংখ্যাটা আরও বেড়ে গিয়েছে। কারণ, একটা সিদ্ধান্ত নিখুঁত ভাবে নেওয়ার জন্য রেফারিরা বেশ কয়েকবার বক্সের মধ্যে ঘটে যাওয়া ঘটনাটা দেখার সুযোগ পাচ্ছেন। তবে পাশাপাশি স্ট্রাইকারদেরও প্রশংসা করতে হবে। কীভাবে ভারের সুবিধা নেওয়া যায়, সেটাও এখনকার স্ট্রাইকাররা ভালভাবে রপ্ত করেছে। আর এদের মাঝে রোনাল্ডো হচ্ছে জিনিয়াস।”

এখনও পর্যন্ত কাতারে প্রথম ২১ টি ম্যাচের মধ্যে পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দেওয়া হয়েছে ১০টি। গত রাশিয়া বিশ্বকাপে রেফারিরা মোট পেনাল্টি দিয়েছিলেন ২০টি। ফলে যেভাবে পেনাল্টির সংখ্যা বাড়ছে, তাতে বিশ্বকাপ জুড়ে আলোচনা শুরু হয়ে গিয়েছে। আর্সেনালের প্রাক্তন কোচ আর্সেন ওয়েঙ্গার এই মুহূর্তে ফিফার টেকনিক্যাল স্টাডি গ্রুপের চেয়ারম্যান। আর তাতেই সাধারণ সদস্য হিসেবে রয়েছেন সানডে ওলিসে। পেনাল্টি পাওয়া নিয়ে তাঁর রোনাল্ডোকে সমর্থনের ফলে পর্তুগিজ তারকাকে নিয়ে ফুটবল ফ্যানদের সমালোচনা একটু কমলেও কমতে পারে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে