BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মুম্বইকে হারিয়ে মরশুমের প্রথম জয় পেল এটিকে

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 17, 2017 4:13 pm|    Updated: September 18, 2019 5:42 pm

An Images

মুম্বই সিটি এফসি: ০

এটিকে: ১ (রবিন সিং)

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দু’টো ড্র, দু’টো হার, পয়েন্ট দুই, লিগ টেবিলে জায়গা বলতে একদম শেষ স্থান। মুম্বই সিটি এফসির বিরুদ্ধে আইএসএলের পঞ্চম ম্যাচে খেলতে নামার আগে এই ছিল দু’বারের চ্যাম্পিয়ন অ্যাটলেটিকো দি কলকাতার পরিসংখ্যান। যা শেষপর্যন্ত বদলাল। রবিন সিং-এর করা একমাত্র গোলে স্বস্তির জয় পেল কলকাতার দলটি।

[ধাওয়ানের সেঞ্চুরিতে হাসতে হাসতে সিরিজ জয় টিম ইন্ডিয়ার]

জমকালো উদ্বোধন, একগুচ্ছ স্পনসর, বিদেশি মার্কি তারকা এনেও আই লিগকে যেন মাত দিতে পারছে না এবারের আইএসএল। আর আই লিগে যখন কলকাতার দুই প্রধান প্রথম তিনে, তখন কোনও ম্যাচ না জিতে কেবল দু’টি ড্র করে সম্বল করে লিগ টেবিলের একদম শেষে ছিল এটিকে। অ্যান্তেনিও লোপেজ হাবাস এবং পরবর্তী কালে মোলিনার জুতোয় পা গলিয়ে দলকে জয় এনে দিতে ব্যর্থ এটিকে কোচ টেডি শেরিংহ্যাম। বলিউড অভিনেতা রণবীর কাপুরের মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে এদিনও খেলার প্রথমার্ধ ছিল গোলশূন্য। কেবল এদিক-ওদিক আক্রমণই হয়ে গিয়েছে বারবার। কিন্তু কোনও দলই গোলের মুখ খুলতে পারেনি। দু’দলের খেলোয়াড়রাই নষ্ট করেন বেশ কয়েকটি গোলের সুযোগ। এর মধ্যে রবি কিনের কাছ থেকে দু’টি নিশ্চিত গোল বাঁচান মুম্বইয়ের গোলরক্ষক অমরিন্দর সিং।

[ফের একবার মাঠেই মৃত্যু, খেলতে খেলতে প্রাণ হারালেন এক ক্রিকেটার]

তবে দ্বিতীয়ার্ধে আরও আত্মবিশ্বাসী ফুটবল খেলতে দেখা যায় কলকাতার দলটিকে। মার্কি ফুটবলার রবি কিনের নেতৃত্বে একের পর এক আক্রমণে উঠে আসতে থাকে তাঁরা। শেষ পর্যন্ত ৫৪ মিনিটে রবি কিনের পাস থেকে জাকুইনাহ-র সেন্টারে পা ছুঁইয়ে দলকে গোল এনে দেন রবিন সিং। এরপরও বেশ কয়েকবার আক্রমণে গিয়েছিল তাঁরা। কিন্তু গোল করার লোকের অভাবে এবং মুম্বই রক্ষণের দৌলতে আর গোল আসেনি। তবে একদম অন্তিম সময়ে দেখা যায় পুরোপুরি রক্ষণাত্মক হয়ে গিয়েছে সঞ্জীব গোয়েঙ্কার দল। এই সময় বেশ কয়েকটি দুরন্ত আক্রমণ তুলে এনেছিল রণবীর কাপুরের দল। খেলা শেষ হওয়ার দশ মিনিট আগে থেকে শুরু করে অতিরিক্ত সময়ে যদি প্রাক্তন মোহনবাগানী দেবজিৎ যদি ‘সেভজিৎ’ না হয়ে উঠতেন তাহলে দু’পয়েন্ট মাঠেই ফেলে আসতে হত এটিকে-কে। এদিন মাঠে দলকে উৎসাহ দিতে উপস্থিত ছিলেন রণবীর কাপুর। কিন্তু শেষপর্যন্ত দল তাঁকে জয় উপহার দিতে পারল না। উলটোদিকে এই ম্যাচে জয় পেয়ে কিছুটা হলেও যেন স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলল টেডি শেরিংহ্যামের ছেলেরা। লিগ টেবিলে দশ দলের মধ্যে পাঁচ পয়েন্ট নিয়ে আপাতত আট নম্বরে উঠল অ্যাটলেটিকো দি কলকাতা।

[ফের তীরে এসে তরী ডুবল সিন্ধুর, ওয়ার্ল্ড সুপার সিরিজের ফাইনালে হার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement