Advertisement
Advertisement
শিল্টন

আমফান বিধ্বস্ত সুন্দরবনের পাশে সস্ত্রীক শিল্টন, দুর্গতদের হাতে তুলে দিলেন খাবার ও পোশাক

মেডিক্যাল ক্যাম্প করারও ইচ্ছাপ্রকাশ করেন সবুজ-মেরুনের বাজপাখি।

Mohun Bagan goalkeeper Shilton heped Amphan effected people
Published by: Sulaya Singha
  • Posted:June 7, 2020 6:28 pm
  • Updated:June 7, 2020 6:32 pm

সুরজিৎ দেব, ডায়মন্ডহারবার: পরিকল্পনা অনেকদিন ধরেই ছিল। সেই মতো কাজও শুরু করে দিয়েছিলেন। অবশেষে তাঁর উদ্যোগ বাস্তবায়িত হল। আমফান বিধ্বস্ত সুন্দরবনের মানুষের পাশে দাঁড়ালেন মোহনবাগানের গোলরক্ষক শিল্টন পাল। গত দু’দিন ধরে নামখানা ও পাথরপ্রতিমার বিভিন্ন এলাকায় দুর্গতদের হাতে খাদ্য সামগ্রী, শাড়ি, জামা-প্যান্ট-সহ নিত্যপ্রয়োজনীয় নানা জিনিস তুলে দেন তিনি। তবে তিনি একা নয়, সমাজসেবায় তাঁর সঙ্গে ব্রতী হয়েছেন স্ত্রী সায়না এবং বাগুইআটির দশ বন্ধুও।

রবিবার পাথরপ্রতিমার শ্রীধরনগর গ্রাম পঞ্চায়েতের ২৫০টি পরিবারের সদস্যদের হাতে ত্রাণসামগ্রী তুলে দেন শিল্টন। চাল, ডাল, আলু, তেল, নুন, শিশুদের জন্য গুঁড়ো দুধ, জলের বোতল, বিস্কুট, বাতাসা, চিঁড়ে, মুড়ি, ছাতু, সাবান, মাস্ক-সহ সমস্ত প্রয়োজনীয় জিনিসই দেওয়া হয়। পাশাপাশি বিভিন্ন বয়সের পুরুষদের জন্য পোশাক ও মহিলাদের জন্য শাড়িও দেন। এই মহৎ কাজে হাত মেলান স্ত্রী ও বন্ধুরা।

Advertisement

[আরও পড়ুন: বিজেপিতে যাচ্ছেন জ্যোতির্ময়ী শিকদার! দিলীপের সঙ্গে ‘চায়ে-পে-চর্চা’ ঘিরে জল্পনা তুঙ্গে]

শনিবার নামখানার পাতিবুনিয়া ও দাশনগরে ৩০০টি দুর্গত পরিবারের হাতে একইভাবে ত্রাণ সামগ্রী তুলে দিয়েছিলেন তাঁরা। শিল্টন বলেন, ‘ভয়ংকর আমফান সাইক্লোনে বিধ্বস্ত এখানকার মানুষ। বিপদের দিনে তাঁদের পাশে দাঁড়াতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছি। এইসময় যদি সাধারণের সাহায্যে না এগিয়ে আসি, তবে আর কখন আসব? এটা আমাদের সকলের সামাজিক কর্তব্যের মধ্যেই পড়ে।’ আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই সুন্দরবনের এই দুর্গত এলাকায় চিকিৎসকদের নিয়ে এসে একটি মেডিক্যাল ক্যাম্প করারও ইচ্ছাপ্রকাশ করেন সবুজ-মেরুনের বাজপাখি।

Advertisement

Shilton

বিধ্বংসী আমফানে বিপুল ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে সুন্দরবনের একাধিক এলাকার। অনেকেই মাথার উপরের ছাদ হারিয়ে ঠাঁই নিয়েছেন নৌকায়। অনেকে আবার পেটের জ্বালা সহ্য করছেন দিনের পর দিন। দুঃসময়ে যেভাবে এই সর্বহারাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন সস্ত্রীক শিল্টন, তাতে কৃতজ্ঞ শ্রীধরনগর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান প্রদ্যোৎ বর্মন। এই পরিকল্পনাকে বাস্তবায়িত করতে সাহায্য করায় পঞ্চায়েত প্রধানকে ধন্যবাদ জানান শিল্টন-সায়না ও তাঁর বন্ধুরা।

[আরও পড়ুন: ‘এবার বুঝলাম, আইপিএলে বর্ণবিদ্বেষের শিকার হয়েছি’, ক্ষোভ উগরে দিলেন ড্যারেন স্যামি]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ