০৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  বুধবার ২৫ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

Taliban Terror: মর্মান্তিক! কাবুলের সেই বিমান থেকে পড়ে মৃত্যু আফগান জাতীয় দলের ফুটবলারেরও

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: August 20, 2021 11:36 am|    Updated: August 20, 2021 2:22 pm

Taliban Terror: Afghan national football player dies in US transport plane | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গত সোমবার গোটা বিশ্ব শিউরে উঠেছিল দৃশ্যটি দেখে। মাঝ আকাশে বিমান থেকে খসে পড়ছে মানুষ। তালিবানি (Taliban) আতঙ্ক থেকে বাঁচতে যারা মার্কিন যুদ্ধবিমানের গায়ে নিজেদের বেঁধে নিয়েছিল, আশা ছিল কোনও রকমে আফগানিস্তান (Afghanistan) ছাড়তে পাড়লেই তালিবানের হাত থেকে অন্তত প্রাণটা বাঁচানো যাবে। সেদিন মার্কিন সেনার C-17 যুদ্ধবিমান থেকে খসে পড়েছিলেন তিনজন। তাঁদের মধ্যেই একজন জাকি আনওয়ারি (Jaki Anwari)। আফগানিস্তান জাতীয় দলের ফুটবলার। আফগান সরকারি সংবাদ সংস্থাই জাকির মৃত্যুর খবর জানিয়েছে।

Sad Story of Afghan brothers who fell from US plane

জাকি আনওয়ারি আসলে আফগানিস্তান যুব দলের ফুটবলার। সোমবার হাজারো আফগানের মতো তিনিও কাবুল বিমানবন্দরে (Kabul Airport) ভিড় করেছিলেন দেশ ছাড়ার জন্য। আফগানিস্তান থেকে কানাডায় পাঠানো হবে ২০ হাজার জনকে। সেখানেই আশ্রয় পাবেন তাঁরা। এই গুজব সম্ভবত তাঁর কানেও গিয়েছিল, সম্ভবত সেকারণেই কাবুল বিমানবন্দরে গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু আরও হাজার হাজার আফগানের মতো তিনিও বিমানে উঠতে পারেননি। কিন্তু দেশ ছাড়ার আশা ছাড়েননি। বসে পড়েন মার্কিন বিমানের চাকার উপর। বিমানটি টেক-অফ করার কিছুক্ষণ পরই মাঝ আকাশ থেকে খসে পড়তে দেখা যায় তাঁকে। তাঁর মতো আরও দুই তরুণ বসেছিলেন মার্কিন C-17 যুদ্ধবিমানের চাকার উপর। মাটিতে খসে পড়েন তাঁরাও।

[আরও পড়ুন: Afghanistan Crisis: পাক জেল থেকে মুক্ত শীর্ষনেতা, ঠাঁই মিলবে নয়া Taliban শিবিরে?]

বুধবার আফগানিস্তানের যুব দলেরই আরেক সদস্যের অর্থাৎ জাকিরের এক সতীর্থের ফেসবুক পোস্ট থেকে তাঁর মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়। বৃহস্পতিবার আফগানিস্তানের সরকারি সংবাদ সংস্থা তাঁর মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে। আফগান ফুটবল সংস্থার তরফেও তাঁর মৃত্যুর খবর জানানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন: Taliban Terror: অবশেষে ‘বোধোদয়’, যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তানে অস্ত্র বিক্রি বন্ধ করল আমেরিকা]

প্রসঙ্গত, ওই বিমান থেকে মোট তিন জনকে খসে পড়তে হয়েছিল মৃত্যুর অনিবার্যতায়। বাকি দু’জনেই কিশোর। তারা সহোদর। ওই দুই ভাইয়ের মধ্যে একজনের দেহ কাবুল বিমানবন্দর থেকে কিছু দূরে মিলেছে পা ও হাত ছিন্ন অবস্থায়। এখনও মেলেনি অপরজনের দেহাবশেষের সন্ধান। আপাতত তাকেই খুঁজে চলেছে পরিবার।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে