BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শনিবার ২৮ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

পাকিস্তানকে দেওয়া ‘MFN’ তকমা বজায় রাখুক ভারত, কেন এমন চাইছেন গম্ভীর

Published by: Sulaya Singha |    Posted: February 16, 2019 7:50 pm|    Updated: February 16, 2019 7:50 pm

Gautam Gambhir slams Pakistan

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পুলওয়ামায় জওয়ানদের উপর জঙ্গি হামলার পর পাকিস্তানের ‘সর্বাধিক সুবিধাপ্রাপ্ত দেশ’ (এমএফএন) তকমা কেড়ে নেওয়া হয়েছে। পাক হাইকমিশনারকে কড়া হুঁশিয়ারি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এমন পরিস্থিতিতে ভারতের প্রাক্তন ক্রিকেটার গৌতম গম্ভীরের গলায় শোনা গেল অন্য সুর। তিনি চান, পাকিস্তানের এমএফএন তকমা থাক।

[অ্যাওয়ে ম্যাচে আইজলকে হারিয়ে স্বস্তি ফিরল মোহনবাগানে]

পুলওয়ামার জঙ্গি হামলার পর থেকেই উত্তাল গোটা দেশ। ‘বদলা চাই’। এই স্লোগানেই গর্জে উঠেছে কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী। গোটা ঘটনার নিন্দা করে সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হয়েছিলেন গম্ভীরও। টুইটারে তিনি লিখেছিলেন, “আর কোনও আলোচনা নয়। আর বন্ধুত্বপূর্ণ আচরণ নয়। এবার সোজা যুদ্ধক্ষেত্রে জবাব দেওয়া হবে।” সেই সঙ্গে পুলওয়ামায় শহিদদের শ্রদ্ধা ও তাঁদের পরিবারদের সহানুভূতি জানান প্রাক্তন ভারতীয় ওপেনার। কিন্তু এখন তিনি এমন মন্তব্য কেন করছেন? আসলে তিনি চান পাকিস্তানকে এমএফএন তকমা দেওয়া হোক। তবে সেই ‘এফ’ অক্ষরের শব্দটি পালটে দিতে হবে। গম্ভীরের কথায়, মোস্ট ফেভারড নেশন নয়, এফ শব্দটির বিকল্প কী হবে তা এদেশের জনতা ঠিক করবে। গম্ভীরের ইঙ্গিতেই স্পষ্ট, গোটা দেশের মতো তিনিও কতটা ক্ষুব্ধ। পাকিস্তানকে যে কোনওভাবেই রেয়াত করা হবে না, সে কথাই কটাক্ষ করে বুঝিয়ে দিলেন গম্ভীর।

১৯৯৬ সালে মোস্ট ফেভারড নেশন-এর তকমা পেয়েছিল পাকিস্তান। আন্তর্জাতিক বাণিজ্য ক্ষেত্রে পারস্পারিক সহযোগিতার উদ্দেশ্যে কোনও একটি রাষ্ট্রকে সর্বাধিক সুবিধাপ্রাপ্ত দেশের তকমা দেওয়া হয়। বাংলাদেশ ও ভিয়েতনামকেও এই তকমা দিয়েছে ভারত। তবে পুলওয়ামার ঘটনার পর শুক্রবারই পাকিস্তানের থেকে এমএফএন তকমা কেড়ে নেওয়া হয়।

[‘আর কথা নয়, এবার জবাব যুদ্ধক্ষেত্রে’, শহিদ পরিবারের পাশে বিরাট-গম্ভীর]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে