১৭  আষাঢ়  ১৪২৯  রবিবার ৩ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

আজ ইডেনে মহারণ, বিশ্বকাপের আগে টি-২০ সিরিজই প্রস্তুতি মঞ্চ রোহিতদের

Published by: Sulaya Singha |    Posted: November 4, 2018 9:06 am|    Updated: November 4, 2018 9:06 am

India to face West Indies in 1st T-20

স্টাফ রিপোর্টার: শুধুমাত্র নিছক টি-টোয়েন্টি সিরিজ হিসেবে নয়, ভারতের অস্থায়ী অধিনায়ক রোহিত শর্মা ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে আসন্ন টি-টোয়েন্টি যুদ্ধকে দেখতে চান একটু অন্যভাবে। ২০১৯ বিশ্বকাপ প্রস্তুতি হিসেবে!

“বিশ্বকাপে সীমিত সামর্থ্য নিয়ে যাওয়ার মানে হয় না। টিমে ভাল বিকল্প থাকা দরকার। আর এই টি-টোয়েন্টি সিরিজটা নতুনদের দেখে নেওয়ার সবচেয়ে ভাল মঞ্চ। এখানে দেখে নেওয়া যাবে, কে কেমন করছে।” শনিবার সাংবাদিক সম্মেলনে বসে বলছিলেন রোহিত। সঙ্গে যোগ করলেন, “এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। আসলে আমরা এতটাই বেশি ক্রিকেট খেলি যে, ভাল বেঞ্চস্ট্রেংথ থাকাটা খুব দরকার। আমাদের দেখে নিতে হবে, কারা পারবে। তারা টিমকে কী দিতে পারবে। আমাদের হাতে যে পনেরো জন ক্রিকেটার আছে তারা নয়। দেখতে হবে পরের পনেরো জন কারা আছে।”

[কোহলিকে বিরাট সম্মান, পাঁচ হাজার প্রদীপ দিয়ে তৈরি হল অধিনায়কের মুখ]

দেশের অধিনায়কত্ব করা নিয়েও জিজ্ঞাসা করা হয় রোহিতকে। জবাবে ভারতীয় ক্রিকেটের ‘হিটম্যান’ বলে দেন, “অধিনায়কত্ব আমাকে সাহায্যই করেছে দেখতে গেলে। যখনই আমি অধিনায়কত্ব করার সুযোগ পেয়েছি, সেটাকে উপভোগ করেছি। কিন্তু কী জানেন, আমি প্রথমে প্লেয়ার। তারপরে অধিনায়ক। আমার প্রথম কাজ হল মাঠে নেমে টিমের হয়ে পারফর্ম করা। তারপর অধিনায়কত্ব। তাছাড়া আমি এখনও অস্থায়ী অধিনায়ক। এটা ঠিক যে, যখনই আমি আইপিএলে অধিনায়কত্ব করেছি, সময়টাকে উপভোগ করেছি। অধিনায়কত্ব করতে গিয়ে নিজের খেলাটাকে যেমন আরও ভাল বুঝতে পেরেছি, তেমনই সতীর্থদের বুঝতে সুবিধে হয়েছে।”

একইসঙ্গে প্রতিপক্ষ হিসেবে ওয়েস্ট ইন্ডিজকেও প্রবল সম্মান দিয়ে রেখেছেন রোহিত। বলে দিয়েছেন, “ওরা ভয়ানক টিম। টি-টোয়েন্টিতে ওরা বিশ্বের অন্যতম সেরা টিম। আমরা সেটা অতীতে দেখেওছি।” কিন্তু ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক কার্লোস ব্রেথওয়েট মানতে চান না যে, তাঁর টিম ইডেনে ফেভরিট হিসেবে শুরু করবে। বললেন, “আমার সেটা মনে হয় না। ভারত নিজেদের মাঠে যে কোনও ফরম্যাটে দুর্ধর্ষ টিম। বিশেষ করে আইপিএল আসার পর টি-টোয়েন্টিতে ফেভারিট ওরাই।”

ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ককে জিজ্ঞাসা করা হয়, ইডেনে তাঁর চার ছক্কায় শেষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ের স্মৃতি নিয়ে। শুনে হাসতে হাসতে ব্রেথওয়েট বললেন, “ওই চার ছক্কায় বিশ্বকাপ জয়, একটা স্মরণীয় রাত ছিল। কিন্তু সেটা অতীত। আমাদের যে টিমটা টি-টোয়েন্টি খেলবে, একেবারে নতুন। তবে এরা প্রত্যেকে দারুণ খেলার ক্ষমতা রাখে। অধিকাংশই ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে খেলা ক্রিকেটার। আমরা টি-টোয়েন্টিতে আরও বড় চমক দিতে চাই।”

[উৎসবের কলকাতায় হিটম্যানও ইডেনে লোক টানতে পারছেন না]

মজার ব্যাপার হল, রবিবাসরীয় ইডেনের যুদ্ধে ভারতকে ফেভরিট ঘোষণা করে দিতে পারেন ব্রেথওয়েট। কিন্তু ইডেনের কাছে তিনি ও তাঁর টিম সম্ভবত চিরকালীন ফেভরিট হয়ে গেলেন শনিবার। শোনা গেল, ইডেনের মাঠকর্মী, সাফাইকর্মী সবাইকে নিজেদের প্রাপ্য ম্যাচ টিকিট দিয়ে গিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। যাঁরা ব্রেথওয়েটদের লাঞ্চ বা ডিনার সার্ভ করেছেন, যাঁরা ড্রেসিংরুম পরিষ্কার করেছেন, প্রত্যেককে। সাধারণত আন্তর্জাতিক ম্যাচ-ট্যাচ থাকলে গোটা চারেক করে টিকিট পেয়ে থাকেন প্লেয়াররা। ওয়েস্ট ইন্ডিজ নাকি তার পুরোটাই ইডেন কর্মীদের মধ্যে বিতরণ করে চলে গিয়েছে! আতিথেয়তার পুরস্কার হিসেবে। যা ইডেনে ম্যাচ খেলতে আসা অতিথি টিম কখনও কোনও দিন করেছে বলে শোনা যায়নি।

ম্যাচ শুরু সন্ধে ৭টায়।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে