BREAKING NEWS

৪ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

দাদার স্মৃতি ফেরাতে লর্ডসে আজই সিরিজ জিততে চান বিরাটরা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 14, 2018 10:45 am|    Updated: July 14, 2018 10:46 am

India vs England, Virat & co looks to seal series

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটালে ডেস্ক: ১৩ জুলাই, ২০০২। লর্ডস। ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমীদের দিনটা নতুন করে মনে করিয়ে দেওয়ার কিছু নেই। বঙ্গ ক্রিকেটপ্রেমীদের তো আরওই নয়। নাসের হুসেনের ইংল্যান্ডকে হারিয়ে ওই দিনই ন্যাটওয়েস্ট ট্রফি জিতেছিল ভারত। যার পর লর্ডস ব্যালকনিতে জার্সি উড়িয়েছিলেন তৎকালীন ভারত অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সেই ঐতিহাসিক জয়, সৌরভের জার্সি ওড়ানো,
সেসব স্মৃতি আজও লোকের মুখে মুখে ঘোরে। কাকতালীয় মনে হতে পারে। কিন্তু বিরাট কোহলিরা সেই ঐতিহাসিক জয়ের একদিনের মধ্যেই ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজ জয়ের ম্যাচে নামছেন! নামছেন সেই লর্ডসেই। আজ, শনিবার কোহলিরা জিতে গেলে তিন ম্যাচের সিরিজ জিতে ফেলবে ভারত। টি-টোয়েন্টি সিরিজের পর তাহলে ওয়ানডে সিরিজটাও জেতা হয়ে
যাবে। পড়ে থাকবে টেস্ট সিরিজ।

[ঘোষিত কাতার বিশ্বকাপের দিনক্ষণ, প্রথমবার শীতকালে হবে টুর্নামেন্ট]

শুক্রবার ন্যাটওয়েস্টের সেই জয়ের ভিডিও নিজেদের ফেসবুক পেজে পোস্ট করল বিরাট কোহলির ভারত। কোহলিরা চাইছে লর্ডসেই সিরিজ জয়ের কাজটা সেরে রাখতে। ইংল্যান্ড আবার প্রবল চিন্তায় পড়েছে। চিন্তার কারণটা অবশ্যই কুলদীপ যাদব। যিনি বৃহস্পতিবার ট্রেন্টব্রিজে ২৫ রানে ছ’উইকেট তুলে বিশ্বরেকর্ড করেছেন। বাঁ-হাতি স্পিনারদের মধ্যে এক ওয়ানডে
ম্যাচে সর্বোচ্চ উইকেট নেওয়ার রেকর্ড ছিল এক ভারতীয়রই। তিনি মুরলী কার্তিক। কুলদীপের সঙ্গে তাঁর উইকেট সংখ্যা একই। শুধু কুলদীপ রানটা কম দিয়েছেন। তার উপর কুলদীপের অ্যান্টিডোট বের করার সময়টাও পাচ্ছে না ইংল্যান্ড।

কোহলিরাও স্পিন দিয়েই সিরিজ জয়ের কাজটা শেষ করে ফেলতে চাইছেন। বিরাট বলছেন, “মিডল ওভারে কুলদীপ, চাহাল দু’জনেই অত্যন্ত বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে বোলিং করছে। ওরা যত বেশি ওভার পাবে, তত ভয়ংকরই হবে। কুলদীপ তো অবিশ্বাস্য বোলিং করছে। জাস্ট সুপার্ব। ইদানীংকালে একদিনের ক্রিকেটে এর থেকে ভাল বোলিং দেখেছি বলে মনে পড়ছে না।”

[ভাল ইংরেজি বলতে পারেন না সোনার মেয়ে হিমা, ফেডারেশনের টুইট ঘিরে তুঙ্গে বিতর্ক]

শুধু ওয়ানডে বা টি-২০ নয়, টেস্টেও এবার রিস্ট স্পিন জুটিকে দেখা যেতে পারে। বিরাট সেরকম ইঙ্গিতই দিয়ে রেখেছেন। বলেছেন, “টেস্ট টিম নির্বাচনে সব কিছু হতেই পারে। কিছু চমক থাকতেই পারে। কুলদীপ যেভাবে বল করছে তাতে টেস্টে ওকে নিয়ে আলোচনা হবেই। চাহালও তাই। তাছাড়া ইংল্যান্ড ব্যাটসম্যানরা ওদের খেলতে বারবার সমস্যায় পড়ছে। সেই ব্যাপারটাও মাথায় রাখতে হবে।” তবে বিরাট পরিষ্কার করে বুঝিয়ে দিয়েছেন তিনি এখনই টেস্ট নিয়ে খুব একটা ভাবতে চান না। বরং পরের দুটো ম্যাচ জেতাই তাঁদের লক্ষ্য।

যা খবর, তাতে লর্ডসেও দলে খুব সম্ভবত কোনও পরিবর্তন হচ্ছে না। ট্রেন্ট ব্রিজে ভুবনেশ্বর কুমার নেটে বোলিং করলেও মনে হয় না টিম ম্যানেজমেন্ট তাঁকে খেলানোর ঝুঁকি নেবে। উমেশ যাদব আর সিদ্ধার্থ কউল দুই পেসারের থাকবেন কুলদীপ আর চাহাল।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে