BREAKING NEWS

২  ভাদ্র  ১৪২৯  বুধবার ১৭ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

দুই টেস্টে কেন হার, সম্মানরক্ষার ম্যাচের আগে সাফাই দিলেন শাস্ত্রী

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 23, 2018 8:04 am|    Updated: January 23, 2018 8:04 am

India vs South Africa: Ravi Shastri explains why his team lost 2 tests

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মঙ্গলবারই প্রস্তুতির পালা শেষ। বুধবার ফের অ্যাসিড টেস্টের সামনে দাঁড়াতে হবে বিরাটবাহিনীকে। রবি শাস্ত্রী থেকে বিরাট কোহলি, সকলেই জানেন জোহানেসবার্গে হারলে কেউই তাঁদের ছেড়ে কথা বলবে না। বিদেশের মাটিতে হোয়াইটওয়াশ হলেই বিশ্বের এক নম্বর দলের কঙ্কালসার চেহারাটা সকলের সামনে বেরিয়ে আসবে।

[৬ এপ্রিল শুরু এবারের আইপিএল, ফাইনাল মুম্বইয়ে]

দল বাছাই থেকে ভারতের হতশ্রী ব্যাটিং, সবকিছুর জন্যই কাঠগড়ায় তোলা হয়েছে ক্যাপ্টেনকে। বিদেশে পারফরম্যান্সের গ্রাফ ভাল হওয়া সত্ত্বেও কেন রাহানেকে বসিয়ে রোহিত শর্মাকে খেলানো হল, এ প্রশ্ন বারবার উঠেছে। আর গত টেস্টে প্রথম একাদশ বাছাই নিয়ে বিরাটের সুরেই সুর মেলালেন শাস্ত্রী। সাংবাদিক সম্মেলনে বলে দিলেন, “রোহিতকে বসিয়ে রাহানেকে খেলালে ম্যাচের ফল যদি একই হত, তাহলে আপনারা উলটোটাই বলতেন। পুরো বিষয়টাই বাইশ গজে কে কেমন খেলল তার উপর নির্ভর করে।” যদিও টিম ইন্ডিয়ার প্র্যাকটিসে শেষ টেস্টে রাহানের অন্তর্ভুক্তির ইঙ্গিতই দিয়েছিলেন কোহলি। তাঁর সঙ্গে আলাদা করে নেট প্র্যাকটিস করতে, কথা বলতে দেখা গিয়েছিল রাহানেকে। তাছাড়া প্রথম দুটি ম্যাচে নজর কাড়তে ব্যর্থ দেশের মাটিতে ঝড় তোলা রোহিতও। তাই ফের দলে বদল দেখা গেলে অবাক হওয়ার কিছু নেই।

[ইস্টবেঙ্গলে ক্ষমতা হ্রাস খালিদের, প্লাজার পরিবর্তে আসছে নয়া বিদেশি]

শুধু রাহানেই নয়, দ্বিতীয় টেস্টে ভুবিকে না খেলানো নিয়েও বিরাটকে একহাত নিয়েছিলেন প্রাক্তনরা। তবে দু’ম্যাচে হারের জন্য অন্য বিষয়কে দায়ী করছেন শাস্ত্রী। দলের হেডস্যার জানিয়ে দিলেন, “দক্ষিণ আফ্রিকায় টেস্ট খেলতে নামার আগে কমপক্ষে আরও দশদিন প্র্যাকটিসের সুযোগ পাওয়া গেলে ভাল হত। এতে বাইরের পরিবেশের সঙ্গে মানিয়ে নিতে সুবিধা হত ক্রিকেটারদের। তবে এটা কোনও অজুহাত নয়। দুই দলের ক্ষেত্রে একই ভূমিকা নিয়েছে পিচ। তাই আমাদের ব্যাটিং ক্লিক করলেই শেষ টেস্টটা জমে যাবে।” অর্থাৎ হারের জন্য ঘুরিয়ে যেন বিসিসিআই-কেই খোঁচা দিয়ে রাখলেন শাস্ত্রী। কারণ শ্রীলঙ্কা সিরিজের জন্যই শেষ বেলায় দক্ষিণ আফ্রিকা পৌঁছেছিল দল। প্র্যাকটিস ম্যাচও যেমন খেলা হয়নি, তেমনই ক্রিকেটাররা বিশ্রামও পাননি। যদিও কেপটাউনে বিরাট জানিয়েছিলেন, তাঁরা যা প্রস্তুতি নিয়েছেন, সেটাই যথেষ্ট। তবে সিরিজ হাতছাড়া হওয়ার পর শাস্ত্রীর গলায় অন্য সুর। এরপর কিন্তু একটা প্রশ্ন উঠেই যাচ্ছে। সেঞ্চুরিয়নে হারের পরও কেন ভারতীয় দলকে তিনদিনের ছুটি দিয়ে দিলেন হেডস্যার? হারের হতাশা ভুলতে? নাকি তার চেয়ে ঢের বেশি জরুরি ছিল দলের অনুশীলন? জোহানেসবার্গে ব্যর্থ হলে এ প্রশ্নের মুখেও পড়তে হবে বিরাট কোহলির প্রিয় কোচকে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে