BREAKING NEWS

১৫ মাঘ  ১৪২৯  বুধবার ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

সিরিজ জয়ের বিরাট সেলিব্রেশন, সিডনিতে ভাংড়া নাচলেন কোহলিরা

Published by: Utsab Roy Chowdhury |    Posted: January 7, 2019 3:51 pm|    Updated: January 7, 2019 3:56 pm

Team India celebrates winning moment

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সকাল থেকে বৃষ্টি। শুরু হয়নি খেলা। ড্রেসিংরুমে জয়ের প্রহর গুণছিল টিম ইন্ডিয়া। টেস্ট ড্র ঘোষণা করার পরেই উচ্ছ্বাস শুরু হয়ে যায়। ড্রেসিংরুমে বেঞ্চ বাজিয়ে জয়ের সেলিব্রেশন শুরু করে ভারতীয় দল। হিপ হিপ হুররে বলে চিৎকার করেন হার্দিক পান্ডিয়া। শুরু হয়  ‘দেশ কি ধরতি’, ‘ইয়ে মেরা দিল’-র মতো গান। গলা মেলান বাকি ক্রিকেটাররাও। বাজানো হয় শাঁখ। ইশান্ত শর্মাকে দেখা যায় ড্রেসিংরুম থেকে বেরিয়ে আসতে। দেখা যায় কোচ রবি শাস্ত্রী, অজিঙ্কা রাহানেকে। এরপরই সামনে আসেন অধিনায়ক বিরাট। মাঠে নামতে শুরু করে পুরো টিম। বিরাটদের হাতে কাপ তুলে দেওয়ার পরই শুরু হয়ে যায় নাচ।  

[এই জয় ১৯৮৩ বিশ্বকাপের থেকেও বড় সাফল্য, দাবি রবি শাস্ত্রীর]

তবে জয়ের পর যখন গোটা টিম নাচছে, তখন তফাতে পূজারা। আইপিএল থেকে সরিয়ে রাখেন নিজেকে। তার একমাত্র লক্ষ্য টেস্ট ক্রিকেট। ৭১ বছর অপেক্ষার পর প্রথম অস্ট্রেলিয়ায় সিরিজ জিতল ভারত। আর সেই জয়ে সিরিজ সেরা হলেন চেতেশ্বর পূজারা। টেস্ট ক্রিকেট প্রথমবার এই খেতাব। অধিনায়ক বিরাট জানালেন, ভাল ব্যাট করতে পারেন। কিন্তু নাচতেই পারেন না পূজারা। সাংবাদিক বৈঠকে এই অদ্ভুত সেলিব্রেশন কীভাবে এল, তা নিয়ে প্রশ্ন করা হয়, বিরাটকে। ভারত অধিনায়ক জানান, ঋষভ পন্থ হঠাৎ এসে এরকম নাচতে শুরু করে। ওই বলতে পারবে, এই সেলিব্রেশনের অর্থ কী। তারপরই পূজারাকে নাচ নিয়ে খোঁচা দিলেন শাস্ত্রী। জানান, পূজারাকে নাচানোর চেষ্টা করছিল সবাই। বিরাট জানান, এত সহজ নাচেও তাল মেলাতে পারেন না পূজারা। ওকে জোর করে নাচানো হয়েছে।  

[এই জয় সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি, অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে তৃপ্ত বিরাট]

অ্যাডিলেডে পূজারার ব্যাট থেকে এসেছে ১২৩ রানের ইনিংস। মেলবোর্নের বক্সিং ডে টেস্টে পূজারা করেন ১০৬ রান। সিডনিতে ১৯৩ রানের ইনিংসে ৬০০ রানের গণ্ডি পেরোয় ভারত। সিরিজে ৫২১ রান তুলে সিরিজ সেরা হলেন। এই ঐতিহাসিক টেস্টে প্রথমবার সিরিজের সেরা ক্রিকেটার নির্বাচিত হলেন তিনি। জয়ের পর পূজারা বলেন, “আমি সাদা বলে খেলার জন্য আরও পরিশ্রম করব। কিন্তু প্রাধান্য আমার টেস্ট ক্রিকেটই। সেটা সব সময় থাকবে।” অস্ট্রেলিয়ায় ১৮ নম্বর সেঞ্চুরি করে ফেললেন পূজারা। রাহুল দ্রাবিড়ের অবসরের পর টিমে এসেছেন। ক্রিকেট বিশেষজ্ঞদের মতে, রাহুলের খেলার সঙ্গে সাদৃশ্য আছে পূজারার। টিমে মিস্টার ওয়ালের শূন্যস্থান পূরণ করে পূজারা হয়ে উঠেছেন ‘মিস্টার পেশেন্স’। পূজারা জানান, এটাই তাঁর খেলা সেরা টিম।

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে