৩১ ভাদ্র  ১৪২৬  বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দীর্ঘ জল্পনার পর শুক্রবার ঘোষিত হয়েছে ভারতীয় দলের কোচের নাম। কপিল দেবের নেতৃত্বাধীন উপদেষ্টা কমিটি রবি শাস্ত্রীকেই বেছে নিয়েছে কোচ হিসেবে। এতদূর পর্যন্ত সব ঠিকঠাকই ছিল। কিন্তু গোল বাঁধল কপিল দেবদের রিপোর্ট কার্ড প্রকাশ্যে আসতে। তিন সদস্যের প্যানেলের থেকে এমন মারাত্মক ভুল প্রত্যাশা করেনি নেটদুনিয়ার বাসিন্দারা। আর সেই কারণেই হেসে খুন তারা।

কী ভুল করল কপিল দেব অ্যান্ড কোং? সাংবাদিক সম্মেলন করে রবি শাস্ত্রীকে কোহলিদের কোচ ঘোষণা করেন কপিল দেব। তাঁর সঙ্গে হাজির ছিলেন কমিটির বাকি দুই সদস্য অংশুমান গায়কোয়াড় এবং শান্থা রঙ্গস্বামী। তাঁরাই লিখিতভাবে জানান যে পছন্দের তালিকার পরপর কাদের নাম ছিল। সেখানেই দেখা যায়, তালিকার শীর্ষে রয়েছেন শাস্ত্রী। দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে রয়েছেন যথাক্রমে নিউজিল্যান্ডের প্রাক্তন কোচ মাইক হেসন এবং শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন কোচ টম মুডি। কপিল জানান, এই তিনজনের মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়েছে। কিন্তু সেই নামের মধ্যেই লুকিয়ে ছিল ভুলটি। মাইক হেসনের নামের বানানটিই ভুল লিখেছিলেন কপিল দেবরা। Hesson-এর পরিবর্তে রিপোর্টে লেখা Hassen। অফিসিয়াল নথিতে কীভাবে কপিল দেবরা একজন কোচের নামের বানান ভুল লিখলেন, তা নিয়েই উঠেছে প্রশ্ন।

[আরও পড়ুন: এই পাঁচটি কারণেই ফের কোহলিদের কোচ হলেন রবি শাস্ত্রী]

অনেকে লিখেছেন, মাইক হেসনের নামের বানান দেখেই কোচ বাছাইয়ের প্রক্রিয়া কীভাবে হয়েছে, তা বোঝা যাচ্ছে। আবার কেউ লিখেছেন, হেসনের নামটা গুগলে সার্চ করে দেখারও প্রয়োজন মনে করেনি প্যানেল। কয়েকজনের দাবি, হেসনের ভুল বানানের মতোই কোচ নিয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কপিল দেবরা। যদিও এনিয়ে এখনও পর্যন্ত মুখ খোলেনি বিসিসিআইয়ের উপদেষ্টা কমিটি।

[আরও পড়ুন: জল্পনার অবসান, ঘোষিত টিম ইন্ডিয়ার নয়া কোচ]

টিম ইন্ডিয়ার কোচ হওয়ার জন্য ইন্টারভিউ দিয়েছিলেন দুই প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার রবিন সিং এবং লালচাঁদ রাজপুতও। তবে ব্যক্তিগত কারণে ইন্টারভিউ দিতে পারেননি প্রাক্তন ক্যারিবিয়ান তারকা ফিল সিমনস।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং