BREAKING NEWS

১৫ মাঘ  ১৪২৯  বুধবার ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

ক্রিকেটের সেরা ছবি ফ্রেমবন্দি করে নজির কাশ্মীরি যুবকের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 6, 2017 6:30 am|    Updated: May 6, 2017 6:30 am

Kashmiri youth bags Wisden-MCC cricket photograph of the year award

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বহুদিন ধরেই অশান্ত কাশ্মীর। বারবার সেনা-পুলিশের সংঘর্ষে জড়াচ্ছে কাশ্মীরি যুবকদের নাম। কিন্তু এর মধ্যেই এক কাশ্মীরি যুবকের কীর্তি গোটা বিশ্বের কাছে ভারতের নাম উজ্জ্বল করল। শ্রীনগরের বাসিন্দা সাকিব মাজিদ পেশায় ইঞ্জিনিয়ার। কিন্তু এর পাশাপাশি ছবিও তোলেন তিনি। আর তাঁরই তোলা একটি ছবি ‘২০১৬ উইজডেন-এমসিসি ক্রিকেট ফটোগ্রাফ অব দ্য ইয়ার’ পুরস্কার জিতে নিল। সাকিবের এই কীর্তি ফের একবার প্রমাণ করে দিল শুধু সেনা এবং পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ বা পাথর ছোঁড়া নয়। অন্যান্য ক্ষেত্রেও কাশ্মীরি যুবকরা দেশের নাম উজ্জ্বল করতে পারে। অতুল কাম্বলের পর দ্বিতীয় এশীয় এবং প্রথম কাশ্মীরি হিসেবে এই কৃতিত্ব অর্জন করল সে।

[জানেন, নির্ভয়ার নাবালক ধর্ষক এখন কী করছে?]

প্রতিবছরই ‘উইজডেন ক্রিকেটার অ্যালমনাক’ নামে একটি বই প্রকাশ করে মেলবোর্ন ক্রিকেট কাউন্সিল। বইটিতে সারা বিশ্ব থেকে ক্রিকেট সংক্রান্ত সেরা ছবিগুলি স্থান পায়। আর এবছর সেখানেই স্থান পেয়েছে মাজিদের ছবিটি। জানা গিয়েছে, মাজিদের ছবিটি শ্রীনগরের নিশান্ত গার্ডেনে তোলা। বাগানটিতে তখন কয়েকজন কাশ্মীরি যুবক ক্রিকেট খেলছিলেন। তখনই দুর্দান্ত এই ছবিটি তুলেছেন মাজিদ।

[অসম এখনও ‘অশান্ত’, আরও তিন মাস জারি থাকবে আফস্পা]

এই পুরস্কার পেয়ে স্বভাবতই খুশি সাকিব মাজিদ। প্রায় ৪৫০ জন প্রতিযোগীর মধ্যে এই পুরস্কার পেয়েছেন তিনি। মাজিদের মতে, ‘ঐতিহাসিক লর্ডসে আগামী এক বছর ধরে আমার ছবিটি দেখানো হবে।’ ছবি তোলার প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, ‘নিশান্ত গার্ডেনে আমি ও আমার এক বন্ধু ছবি তুলতে গিয়েছিলাম। তখন শরৎকাল ছিল। গিয়ে এক জায়গায় দেখি কয়েকজন যুবক চিনার গাছের ছায়ায় ক্রিকেট খেলছে। আমি তখনই ছবি তোলা শুরু করি। প্রায় আধ ঘণ্টা ধরে ছবি তুলেছিলাম। আমাকে উৎসাহ দেওয়ার জন্য আমার পরিবার, বন্ধু এবং ওই পত্রিকাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।’

[ডেটা পরিষেবার ক্ষেত্রে এবার এক্সচেঞ্জ অফার আনল Jio]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে