BREAKING NEWS

০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২৫ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বিশ্বকাপ জিতেছে পুদুচেরি! লেফটেন্যান্ট গর্ভনর কিরণ বেদির টুইটে বিতর্ক তুঙ্গে

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 16, 2018 12:36 pm|    Updated: July 16, 2018 2:50 pm

Kiran Bedi congratulates Puducherry residents for France's World Cup win, faces flak

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিভিন্ন সময়ে তাঁর মন্তব্যে জলঘোলা হয়েছে বিস্তর। বাদ গেল না ফুটবল বিশ্বকাপও! ফের বিতর্কে পুদুচেরির লেফটেন্যান্ট গর্ভনর কিরণ বেদি। ফ্রান্সের বিশ্বজয়ের রাতে তাঁর টুইট, ‘পুদুচেরিয়ানরা বিশ্বকাপ জিতেছে। অভিনন্দন বন্ধুরা। অসাধারণ দলগত সাফল্য! খেলাই সকলকে ঐক্যবদ্ধ করে।’ কিরণ বেদির টুইটে সমালোচনার ঝড়ে ওঠেছে নেটদুনিয়ায়। চাপে পড়ে সোমবার সকালে নিজের বক্তব্য শুধরে নিয়ে ফের টুইট করেন দেশের প্রথম মহিলা আইপিএস অফিসার।

[বিশ্বজয়ের দিনেও মুসলিম বিদ্বেষের ছবি ফ্রান্সে, দেশজুড়ে বিচ্ছিন্ন গোষ্ঠী সংঘর্ষে উত্তেজনা]

পরাধীন ভারতে সিংহভাগ এলাকাই শাসন করত ব্রিটিশরা। কয়েক অঞ্চলে আবার উপনিবেশ স্থাপন করেছিলেন ফরাসিরাও। এ রাজ্যের চন্দননগর, দক্ষিণের পুদুচেরির শাসক ছিলেন ফরাসিরা। ১৩০ কোটির দেশ ভারতের বিশ্বকাপ খেলার স্বপ্ন অধরা। পুদুচেরির মানুষ চেয়েছিলেন, রাশিয়ায় বিশ্বকাপ জিতুক ফ্রান্স। ঠিক তেমনটাই ঘটেছে। ফাইনালে ক্রোয়েশিয়াকে হারিয়ে দ্বিতীয়বার বিশ্বজয় করেছেন ফরাসিরা। সোমবার রাতে বঙ্গোপসাগর লাগোয়া কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ছিল উৎসবের মেজাজ। রাস্তায় নেমে পড়েছিলেন সাধারণ মানুষ। টুইট করেন খোদ পুদুচেরির লেফটেন্ট্যান্ট গর্ভনর কিরণ বেদিও। আর সেই টুইটকে ঘিরে এখন সরগরম নেটদুনিয়া। সমালোচনায় সবর নেটিজেনরা।

কারণটা কী? টুইটে কী লিখেছেন কিরণ বেদি? ভারতের ভূখণ্ডকে ফ্রান্সের সঙ্গে জুড়ে দিয়েছেন তিনি! প্রাক্তন এই আইপিএস লিখেছেন, ‘পুদুচেরিয়ানরা বিশ্বকাপ জিতেছে। অভিনন্দন বন্ধুরা। অসাধারণ দলগত সাফল্য! খেলাই সকলকে ঐক্যবদ্ধ করে।’ এককালে  ফরাসি উপনিবেশ ছিল সাবেক পন্ডিচেরি। কিন্তু, আজকের পুদুচেরির সঙ্গে্ ফ্রান্সের আর কোনও সম্পর্ক নেই। ১৯৬২ সালে স্বাধীন ভারতের অন্তর্ভুক্তি। পুদুচেরির শাসনব্যবস্থা পরিচালনা করেন কেন্দ্রের নিযুক্ত লেফটেন্ট্যান্ট গর্ভনর। বিশ্ব ফুটবলের ক্রমতালিকায় এখন ভারত ৯৭ নম্বরে। স্বাধীনতার পর সত্তর বছর পেরিয়ে গিয়েছে। কিন্ত, এখন বিশ্বকাপের মূলপর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে পারেননি সুনীল ছেত্রীরা। তাই ফ্রান্স বিশ্বকাপ জেতায়, কীভাবে বিশ্বজয়ী হলেন পুদুচেরির বাসিন্দারা? এই প্রশ্ন তুলে কিরণ বেদির টুইটের সমালোচনা করেছেন নেটিজেনরা। শেষপর্যন্ত সোমবার সকালে ফের টুইট  করে নিজের বক্তব্যের ব্যাখ্যা দেন পুদুচেরির লেফটেন্ট্যান্ট গর্ভনর।

 

 

[বিশ্বকাপের সফল আয়োজন, বিদেশি সমর্থকদের পুরস্কার দিলেন পুতিন]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে