BREAKING NEWS

২২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ৯ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মারাদোনার বাড়ি এবার মিউজিয়াম

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: October 30, 2016 1:00 pm|    Updated: October 30, 2016 2:04 pm

Maradona's Former house turned into Museum

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ঘরে ঢুকলেই মনে হবে যেন এক ঝটকায় জীবন পিছিয়ে গিয়েছে অনেকটা৷ এক লহমায় পৌঁছে যাওয়া সেই সাতের দশকে৷ চোখের সামনে ভেসে উঠবে ছোট্ট মারাদোনা হাসছে, খেলছে, ভাইদের সঙ্গে দুষ্টুমি করছে- এমন অনেক টুকরো টুকরো ছবির কোলাজ৷ গল্প নয়৷ সত্যি তাই৷ আর্জেণ্টিনার রাজধানীতে যে বাড়িতে মারাদোনার ছেলেবেলার বেশ কিছুটা সময় কেটেছে, সেটাই এবার পরিণত হতে চলেছে ‘তাঁর’ মিউজিয়ামে৷

বাড়ির আশপাশে যাঁরা থাকেন, তাঁরা এখনও যেন গোটা ব্যাপারটা বিশ্বাস করতে পারছেন না৷ কাঠের তৈরি এই দোতলা বাড়িতেই থাকতেন ফুটবলের রাজপুত্র৷ ভিলা ফিয়ারিতোর শহরতলি অঞ্চল থেকে পরিবার সমেত বুয়েনস আইরেসে এই বাড়িতে উঠেছিলেন মারাদোনা৷ ১৯৭৮ সালে তাঁর প্রথম সই ছিল আর্জেণ্টিনোস জুনিয়র সকার ক্লাবে৷ ক্লাবের পক্ষ থেকেই এই বাড়ি দেওয়া হয়েছিল তাঁকে৷ দোতলায় থাকতেন দিয়েগো৷ আসবাবপত্র বলতে শোয়ার খাট, একটা ছোট্ট টেবিল, নাইট ল্যাম্প৷ সব কিছু রাখা হয়েছে একদম আগের মতোই৷

038d750049d748198b705319987a6538

বাড়িটি সত্যি মারাদোনার কি না সেটা নিয়েও প্রশ্ন উঠতে পারে৷ সেই মতো সব ব্যবস্থাও করা হয়েছে৷ মারাদোনার ছোটবেলার বেশ কয়েকটি ছবি লাগানো হয়েছে বাড়ির ঠিক সামনে৷ মারাদোনা যখন থাকতেন বাড়িটির নাম তাঁর বাবা ডন দিয়েগোর নামে ছিল৷ এখনও তা অবিকল৷  আর আছে আর্জেণ্টিনোসের সেই চুক্তির খসড়া৷ তখন ম্যানেজার পদে ছিলেন আলবার্তো পেরেজ৷ বাড়ির যে জায়গায় মারাদোনা তাঁর ভাইদের সঙ্গে পিংপং দিয়ে খেলতেন, সেখানে দাঁড়িয়েই পেরেজ বলছিলেন, “ছোটবেলায় আমরাই মারাদোনাকে প্রথম চিনেছি৷ ওকে গড়ে তুলেছি নিজেদের মতো৷ ক্লাবের কাছে ও ঈশ্বরের মতো ছিল৷ দিয়েগোও আমাদের যথেষ্ট ভালবাসত৷ আমরা ওঁর জন্য গর্বিত৷ কারণ দিয়েগোর জন্যই বিশ্ব এখন আমাদের সবাইকে চিনেছে৷” প্রসঙ্গত, আর্জেণ্টিনোসের এই প্রাক্তন ম্যানেজার একক কৃতিত্বেই ছাত্রের পুরনো জিনিসগুলি জোগাড় করেছেন৷ এবার সেগুলি তুলে ধরতে চান গোটা বিশ্বের মানুষের সামনে৷ মারাদোনার মিউজিয়াম দেখতে অর্থ খরচ হবে না৷ কিংবদন্তির ফ্ল্যাশব্যাক সবাই দেখতে পারবেন ফ্রিতেই৷

52be0a10f10b47ab9ad2285407617edb

১৯৮১ সালে বোকা জুনিয়র্সে যোগ দিয়েছিলেন মারাদোনা৷ তখন এই কাঠের দোতলা বাড়ি ছেড়ে দেন৷ তারপর থেকে এতদিন এই বাড়ির দখল নিয়ে ছিলেন এক মহিলা৷ মামলা-মোকদ্দমা চলে বেশ কয়েকিদন৷ আট বছর আগে এই বাড়ি কিনে নেন পেরেজ৷ খসেছিল এক লক্ষ মার্কিন ডলার৷

3f0807708cff462186d02b92ea578f27

তারপর বাড়িটিকে একদম আগের মতো সাজিয়ে তোলায় মন দেন তিনি৷ মারাদোনার ব্যবহৃত জিনিসগুলির অনুকরণে আসবাবপত্রও জোগাড় করেছেন তিনি৷ নিঃসন্দেহে মারাদোনার ভক্তদের জন্য এই মিউজিয়াম যে এক তীর্থস্থান হয়ে উঠবে, তা বলার অপেক্ষা রাখে না৷

d9db386fc406422fb9df89f6ca62976e

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে