BREAKING NEWS

১৫ মাঘ  ১৪২৮  শনিবার ২৯ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

ফিক্সিংয়ের অভিযোগ থেকে মুক্ত শামি, বহাল বোর্ডের চুক্তি

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: March 22, 2018 5:55 pm|    Updated: March 22, 2018 6:39 pm

Mohammed Shami cleared of match-fixing allegations by cricket board BCCI

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  অবশেষে স্বস্তিতে মহম্মদ শামি। বোর্ডের দুর্নীতি দমন শাখার তরফে তাঁকে ক্লিনচিট দেওয়া হল। অর্থাৎ ফিক্সিংয়ের অভিযোগ থেকে মুক্ত হলেন ভারতীয় পেসার। বোর্ডের চুক্তিতেও রাখা হল তাঁকে। বি-গ্রেডে তিন কোটির চুক্তি হল শামির সঙ্গে। আইপিএলে খেলা নিয়েও আর কোনও সমস্যা থাকল না। তাঁর বিরুদ্ধে ফিক্সিংয়ের কোনও প্রমাণ মেলেনি বলেই জানালেন দুর্নীতি দমন শাখার প্রধান নীরাজ কুমার।

যদিও শামি -হাসিন তরজা অব্যাহত। যত দিন যাচ্ছে, তাঁদের সম্পর্ক এতটাই তলানিতে গিয়ে ঠেকছে যে, আর সমঝোতার পথে ফেরার ছিটেফোঁটা আশাও দেখা যাচ্ছে না। ফের মহম্মদ শামির বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন হাসিন জাহান। যার পালটা দিলেন ভারতীয় পেসারও।

[‘অশান্তি’ অব্যাহত, মাঠে এসেও ড্রেসিংরুমে বসে রইলেন কোচ খালিদ]

শামি ও তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে পরকীয়া, শারীরিক অত্যাচার এমনকী ধর্ষণেরও অভিযোগ তুলেছিলেন হাসিন। একাধিক মহিলার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে জড়িয়েছেন শামি। এমন অভিযোগের প্রমাণ হিসেবে বারবার তুলে ধরেছেন স্বামীর মোবাইলের চ্যাটিংয়ের স্ক্রিন শট। ফের এক নতুন মহিলার কথা ফাঁস করলেন হাসিন। জানালেন, মঞ্জু মিশ্র নামের এক মহিলা তাঁর সঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়ায় যোগাযোগ করার চেষ্টা করেন। এমনকী হাসিনের কাছে ক্ষমাও চান তিনি। সেই চ্যাটের স্ক্রিন শট পোস্ট করেছেন ভারতীয় ক্রিকেটারের স্ত্রী। যেখানে মঞ্জু নামের ওই মহিলা হাসিনকে অনুরোধ জানিয়েছেন, শামির সঙ্গে যেন তারঁ নাম না জড়ানো হয়। সব ছবি ও চ্যাট ডিলিট করে দেওয়ার আর্জিও জানিয়েছেন। এমনকী মহম্মদ ভাই নামের ব্যক্তির উল্লেখও করেছেন মঞ্জু। শামির সঙ্গে মঞ্জুর কী সম্পর্ক ছিল, তা জানতে চেয়েছেন হাসিন। উত্তরে মঞ্জু জানান, ফোন করে সব বলবেন। তবে তাঁদের মধ্যে কী কথা হয়েছে তা এখনও জানা যায়নি।

chat

এদিকে দিন দুয়েক আগেই হাসিন জানিয়েছিলেন, সংসার খরচের টাকায় রাশ টেনেছিলেন শামি। তাঁর দেওয়া চেক নাকি ভাঙাতে পারেননি হাসিন। কিন্তু হাসিনের অভিযোগ উড়িয়ে শামি পালটা একটি স্ক্রিন শট প্রকাশ করেছেন। যেখানে দেখা যাচ্ছে, গত ২০ মার্চ এক লক্ষ টাকা শামির অ্যাকাউন্ট থেকে জমা পড়েছে হাসিনের অ্যাকাউন্টে। উল্লেখ্য, হাসিন জানিয়েছিলেন, ভারতীয় দলের সঙ্গে দক্ষিণ আফ্রিকা যাওয়ার আগে দু’টি চেক তাঁর হাতে দিয়ে গিয়েছিলেন শামি। বলেছিলেন, নিজের গাড়ির কিস্তির টাকা মেটানো ও সংসার চালানোর খরচ এই চেক ভাঙিয়েই তুলতে পারবেন হাসিন। সেইমতোই প্রথম চেক ভাঙিয়ে হাসিন শামির বিএমডব্লু গাড়ির কিস্তির টাকা মিটিয়েছিলেন। বাকি ছিল সংসার খরচের জন্য আরও একটি এক লক্ষ টাকার চেক। সেই চেকটিই ভাঙাতে পারেননি তিনি। কারণ ভারতীয় পেসার ‘স্টপ পেমেন্ট’ করে দিয়েছিলেন। তবে শামির নয়া দাবিতে ফের তাঁদের সম্পর্ক নিয়ে জল্পনা শুরু হল।

[জানেন, কেন এবার আইপিএল-এর উদ্বোধনে থাকবেন না কার্তিক-কোহলিরা?]

chat1

বোর্ডের দুর্নীতি দমন শাখার রিপোর্টের পর অনেকটাই স্বস্তিতে শামি। তবে হাসিনের অভিযোগের উদ্দেশ্য নিয়ে এবার নতুন করে প্রশ্ন উঠেই গেল।

axis

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে