BREAKING NEWS

৭ কার্তিক  ১৪২৮  সোমবার ২৫ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

হাসিনের আরজিতে সাড়া দিলেন মুখ্যমন্ত্রী, সাক্ষাৎ শুক্রবার

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: March 21, 2018 2:53 pm|    Updated: March 21, 2018 2:53 pm

Mohammed Shami’s wife Hasin Jahan to meet Mamata Banerjee

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: “সত্যের জন্য লড়ছি। তাই চাই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও যেন আমার লড়াইয়ের সাক্ষী থাকেন।” মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করার ইচ্ছাপ্রকাশ করে দিন কয়েক আগে এ কথাই বলেছিলেন মহম্মদ শামির স্ত্রী হাসিন জাহান। ভারতীয় পেসারের স্ত্রীর আরজিতে এবার সাড়া দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নবান্ন সূত্রে খবর, আগামী ২৩ মার্চ অর্থাৎ শুক্রবার বিকেল তিনটে নাগাদ হাসিনের সঙ্গে দেখা করবেন তিনি।

[টাকায় রাশ টানলেন শামি! চেক ভাঙাতে পারলেন না হাসিন]

শামি ও তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে পরকীয়া, গোপনে চ্যাট, শারীরিক অত্যাচার, এমনকী ধর্ষণেরও অভিযোগ তুলেছেন হাসিন। পাশাপাশি ম্যাচ গড়াপেটায় যুক্ত থাকতে পারেন শামি। সে ইঙ্গিতও দিয়েছিলেন। যে বিষয়টি খতিয়ে দেখছে বিসিসিআইয়ের দুর্নীতি দমন শাখার প্রধান নীরজ কুমার। এদিকে, হাসিনের অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত চালাচ্ছে কলকাতা পুলিশ। শামির পরিবারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য উত্তরপ্রদেশও পৌঁছে গিয়েছিলেন আধিকারিকরা। সেই সঙ্গে বিসিসিআইয়ের কাছ থেকেও জানতে চাওয়া হয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকায় টেস্ট সিরিজের পর তিনি সত্যিই দুবাই গিয়েছিলেন কিনা। ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড চিঠি দিয়ে কলকাতা পুলিশকে
জানায়, দু’দিনের জন্য দুবাই গিয়েছিলেন শামি। কিন্তু তার সঙ্গে ম্যাচ গড়াপেটার কোনও যোগ আছে কিনা, সে তথ্য এখনও সামনে আসেনি। এরই মধ্যে আবার সোমবার আলিপুর আদালতে গোপন জবানবন্দি দেন হাসিন। তারপরই কালীঘাটে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়ি গিয়েছিলেন তিনি। বুধবার জানা গেল, হাসিনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করার সময় দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

[প্রতি মাসে লক্ষ লক্ষ টাকার শপিং করত হাসিন, অভিযোগে সরব শামির পরিবার]

দিন কয়েক আগেই মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে চেয়ে চিঠি পাঠিয়েছিলেন হাসিন। বলেছিলেন, মুখ্যমন্ত্রীর কাছে তিনি কোনও সাহায্য চান না। শুধু চান, এমন পরিস্থিতিতে তিনি যেন হাসিনের পাশে দাঁড়ান। তাঁর যন্ত্রণার কথা জানাতে চান। তাতেই সাড়া দিলেন মুখ্যমন্ত্রী।

এদিকে, শামির দাদার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তুলেছিলেন হাসিন। জানিয়েছিলেন, শামি নাকি তাঁকে দাদার ঘরে ঢুকিয়ে বাইরে থেকে দরজা বন্ধ করে দিয়েছিল। এর পরিপ্রেক্ষিতে নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে একাধিক নথি ও তথ্য কলকাতা পুলিশের কাছে ক্যুরিয়ার করে পাঠিয়েছিলেন শামির দাদা। এমন কথাই জানিয়েছেন ভারতীয় পেসার। তবে পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, তাদের হাতে এমন কোনও নথি আসেনি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement