BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শুক্রবার ২৭ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

অ্যারোজের বিরুদ্ধে জয়ের খোঁজে আজ ভুবনেশ্বরে মোহনবাগান

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: November 8, 2018 11:23 am|    Updated: November 8, 2018 11:23 am

Mohun Bagan to face Indian Arrows

স্টাফ রিপোর্টার: আজ জয়ের খোঁজে ভুবনেশ্বরের পথে পা বাড়াল মোহনবাগান। ইন্ডিয়ান অ্যারোজকে হারানোর জন্য যাবতীয় পরিকল্পনা ছকে ফেলেছেন কোচ শংকরলাল চক্রবর্তী। এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা।

পরপর দুটো ম্যাচ ড্র। এককথায় বলতে গেলে শুরুতে মুখ থুবড়ে পড়া। তবু দল টেনশনে নেই বলে জানিয়ে দিলেন মোহনবাগান কোচ। তাঁর স্পষ্ট অভিমত, মনোবলের সঙ্গে মনযোগের মেলবন্ধন ঘটলেই আর পিছন ফিরে তাকাতে হবে না। বুধবার ছিল দিওয়ালি। তবু প্র‌্যাকটিসে খামতি রাখতে চাননি কোচ। এদিনও যথারীতি প্র‌্যাকটিস চালিয়ে গিয়েছেন। পরে শংকরলাল জানিয়ে দেন, তাঁর দল দুটো ম্যাচ ড্র করেছে বলে তিনি ভেঙে পড়ছেন না। “টেনশনে থাকব কেন? দুটো ম্যাচ ড্র করেছে বলে আলাদা করে ভাবতে বসব কেন? এমন ঘটনা ঘটতেই পারে। আগে দেখতে হবে, দল কেমন খেলছে। যারা মোহনবাগানের খেলা দেখেছেন তাঁরা নিশ্চয় আমার সঙ্গে সহমত পোষণ করবেন। বল পজেশনে আমরা কখনও পিছিয়ে থাকিনি। প্রচুর সুযোগ নষ্ট হচ্ছে। এক একটা ম্যাচ ৫-৬টা গোল করার জায়গায় দল চলে যাচ্ছে। তাহলে এত ভাবব কেন?”

[সোনি ম্যাজিকেও শেষরক্ষা হল না, ফের পয়েন্ট নষ্ট মোহনবাগানের]

পরক্ষণেই অবশ্য শংকরলাল বলে ফেলেন, “তবে মানতে দ্বিধা করব না, দলের কোথাও না কোথাও তো সমস্যা হচ্ছে। যা বুঝেছি তাতে মনে হয়েছে, মনোবল বাড়ানো খুব প্রয়োজন। মনোবলে একটা খামতি থেকে যাচ্ছে। সেই সঙ্গে মনোযোগের অভাব প্রকট হয়ে উঠছে। ফুটবলাররা কখনও ভাবছে, অমুক ফুটবলার কোনওমতে গোল করতে পারবে না। পরক্ষণেই দেখা যাচ্ছে, সেই ফুটবলারটি হয়তো গোল করে যাচ্ছে। কিংবা দলের একজন হয়তো ভাবছে, অমুক যখন কভারে গিয়েছে নিশ্চয় আমার যাওয়ার আর প্রয়োজন হবে না। দেখা গেল সেই ফুটবলারটি ফলস পজিশনে পড়ে গিয়ে দলকে ফেলে দিচ্ছে সংকটে। এসবই হচ্ছে মনোযোগ অভাবের একটা দিক। আমার মনে হয়, এই ব্যাপারগুলো শুধরে নিতে পারলে দলকে আর সমস্যায় পড়তে হবে না।”

বৃহস্পতিবার সকাল ন’টার ফ্লাইট ধরে দল ভুবনেশ্বর রওনা দেয়। এদিন যে ১৮ জনের দল ঘোষণা হয়েছে তার মধ্যে ঘটেছে দুটি পরিবর্তন। মেহতাবের জায়গায় এসেছেন শিলটন ডি সিলভা। ব্রিটোর পরিবর্তে অবিনাশ রুইদাস। দু’জনের মধ্যে প্রথম একাদশে ঢুকে পড়ার মতো জায়গায় আছেন অবিনাশ। অন্তত প্র‌্যাকটিস দেখে মনে হয়েছে। ইন্ডিয়ান অ্যারোজ দলে কোনও বিদেশি নেই। সুতরাং বিদেশিহীন দলকে হারানো নিয়ে সবুজ-মেরুন শিবির আতঙ্কে থাকার কথা নয়। শংকরলালের সাফ জবাব, “প্রতিপক্ষ দলে কে আছে কে নেই, এসব নিয়ে ভাবছি না। আমরা জয়ের খোঁজে যাচ্ছি। যেভাবেই হোক জিতে ফিরতে হবে। ভুলে যাবেন না, অ্যারোজ গত ম্যাচে শিলং লাজংকে হারিয়েছে। আই লিগে খেলা দলগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি এক্সপোজার পাওয়া দল। সবচেয়ে বেশি গতিসম্পন্ন। জানি কীভাবে গতির বিরুদ্ধে লড়তে হয়।” সোনি দলের সঙ্গে গেলেও প্রথম একাদশে তিনি যে থাকছেন না এটা নিশ্চিত। সেরকম ইঙ্গিত দিয়েছেন শংকরলাল।

[মোহনবাগানের আজীবন সদস্যপদ পেয়ে আপ্লুত চুনী-সৌরভরা]

 

ছবি: অচিন্ত্য রায়

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে